কেএসআরএমের পৃষ্ঠপোষকতায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় দক্ষতা প্রতিযোগিতা



নিউজ ডেস্ক বার্তা২৪.কম ঢাকা
বঙ্গবন্ধু জাতীয় দক্ষতা প্রতিযোগীতা-২০২১

বঙ্গবন্ধু জাতীয় দক্ষতা প্রতিযোগীতা-২০২১

  • Font increase
  • Font Decrease

আগামী ২৯ ও ৩০ ডিসেম্বর বঙ্গবন্ধু জাতীয় দক্ষতা প্রতিযোগীতার চূড়ান্ত পর্ব ঢাকার চারটি ভেন্যুতে অনুষ্ঠিত হবে। দক্ষতা কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করে এবং আর্থ-সামাজিক উন্নয়নকে ত্বরান্বিত করে। দক্ষতাই স্থিতিশীল উন্নয়নের মূল ভিত্তি। প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের জাতীয় দক্ষতা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ দেশের তরুণ সমাজকে দক্ষতা প্রশিক্ষণে উদ্বুদ্ধ করা, দক্ষতার মাধ্যমে মানবসম্পদ উন্নয়নের কাজকে গতিশীল করা, বিভিন্ন দেশের সাথে দক্ষতা উন্নয়নের সেতুবন্ধন তৈরি করা এবং ভবিষ্যতে নতুন নতুন কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করার লক্ষ্যে দেশব্যাপি এ প্রতিযোগীতার আয়োজন করা হয় ।

রোববার (১৯ ডিসেম্বর) আগারগাঁওয়ে বিনিয়োগ ভবন অডিটোরিয়ামে বঙ্গবন্ধু জাতীয় দক্ষতা প্রতিযোগীতা-২০২১ এর সংবাদ সম্মেলন এ বিষয়ে বিস্তারিত জানায় আয়োজক কর্তৃপক্ষ।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, বিভাগীয় পর্যায়ে বিজয়ী ৬৬ জন প্রতিযোগী চূড়ান্ত পর্বে অংশগ্রহণ করবেন। চূড়ান্ত পর্বের বিজয়ীরা ২০২২ সালের অক্টোবরে চীনের সাংহাইতে অনুষ্ঠিত ৪৬তম ওয়ার্ল্ড স্কিল কম্পিটিশন ২০২২ এ অংশগ্রহণের সুযোগ পেতে পারেন। এ সময় প্রতিযোগীতার লোগো উম্মোচন করা হয়। অনুষ্ঠানে জাতীয় দক্ষতা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের নির্বাহী চেয়ারম্যান (সচিব) দুলাল কৃষ্ণ সাহা সভাপতিত্ব করেন। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জাতীয় দক্ষতা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের যুগ্মসচিব ও সদস্য (নিবন্ধন ও সনদায়ন), মো. নূরুল আমিন, যুগ্মসচিব ও সদস্য (প্রশাসন ও অর্থ) ড. মো. জিয়াউদ্দিন এবং কেএসআরএমের রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট উইংয়ের জিএম কর্নেল (অব.) মো. আশফাক উল ইসলাম।

এতে আরও জানানো হয়, চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে সচেতনামূলক কর্মসূচির মাধ্যমে শুরু হয় এবারের প্রতিযোগীতা। দেশের ৮টি বিভাগের পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট, টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ, টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টার, বিশ্ববিদ্যালয়, দক্ষতা প্রশিক্ষণ প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান, শিল্প দক্ষতা পরিষদ, মন্ত্রণালয়, বিভাগ, অধিদপ্তর, সংস্থায় পত্র প্রেরণ করা হয়। তাছাড়া ওয়েবসাইট, ফেসবুক, প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া এবং এসএমএস এর মাধ্যমে সচেতনামূলক প্রচারনা চালানো হয়। প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য সারাদেশের এক হাজার ৭০৭ জন প্রতিযোগী অনলাইনে নিবন্ধন করেন। বঙ্গবন্ধু জাতীয় দক্ষতা প্রতিযোগীতা-২০২১ এর সহযোগী আয়োজক ও প্রধান পৃষ্ঠপোষক (পাওয়ার্ড বাই) কেএসআরএম স্টিল প্ল্যান্ট লিমিটেড।

বিভাগীয় প্রতিযোগীতা শেষে ১৩ টি ট্রেডে বাছাইকৃত ৬৬ বিজয়ী জাতীয় পর্যায়ের বঙ্গবন্ধু জাতীয় দক্ষতা প্রতিযোগীতা ২০২১-এ অংশগ্রহণের সুযোগ পাচ্ছেন। আগামী ২৯ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিতব্য জাতীয় দক্ষতা প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্বের উদ্বোধন ঘোষণা করা হবে এবং ৩০ ডিসেম্বর আগারগাঁওয়ে বিনিয়োগ ভবন অডিটোরিয়ামে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে। পরবর্তীতে চূড়ান্ত পর্বের বিজয়ীদের নিয়ে ছয় মাসব্যাপি গ্রুমিং সেশন অনুষ্ঠিত হবে।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় দক্ষতা প্রতিযোগীতা-২০২১ এর ট্রেডগুলো হলো: কনস্ট্রাকশন

অ্যান্ড বিল্ডিং টেকনোলজি বিভাগে পেইন্টিং অ্যান্ড ডেকোরেটিং এবং প্ল্যাস্টারিং অ্যান্ড ড্রাই ওয়াল সিস্টেম; আইসিটি বিভাগে আইটি নেটওয়ার্ক সিস্টেম অ্যাডমিনিস্ট্রেশন, ওয়েব টেকনোলজিস, ক্লাউড কম্পিউটিং এবং সাইবার সিকিউরিটি। ম্যানুফ্যাকচারিং অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং টেকনোলজি বিভাগে ওয়েল্ডিং এবং সোস্যাল অ্যান্ড পার্সোনাল সার্ভিস বিভাগে বেকারি, কুকিং, পেস্ট্রি অ্যান্ড কনফেকশনারি এবং রেস্টুরেন্ট সার্ভিস।

সংবাদ সম্মেলনে দুলাল কৃষ্ণ সাহা বলেন, কারিগরি দক্ষতা যে কতো গুরুত্বপূর্ণ সেই মানসিকতা আমাদের দেশের মানুষের মধ্যে এখনো সেভাবে গড়ে ওঠেনি। সচেতনতামূলক কর্মসূচির মাধ্যমে দক্ষতা অর্জনের বিষয়ে মানুষকে উদ্বুদ্ধ করতে হবে। একইসঙ্গে পাঠ্যক্রমে দক্ষতা উন্নয়নের বিষয়টি যুক্ত করতে আমরা কাজ করছি।

এ প্রসঙ্গে পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান কেএসআরএম স্টিল প্ল্যান্ট লিমিটেডের উপ ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহরিয়ার জাহান রাহাত বলেন, ‘দেশের জনসংখ্যাকে জনশক্তিতে পরিণত করার জন্য বর্তমান সরকার নানা পদক্ষেপ নিয়েছে। আমরা সরকারের ওই পদক্ষেপের অংশীদার হয়ে পাশে আছি সবসময়। আমরা মূলত যৌথভাবে দক্ষ জনগোষ্ঠী তৈরিতে কাজ করছি। সহযোগিতা ও উৎসাহ যুগিয়ে যাচ্ছি। কারণ দক্ষতাই স্থিতিশীল উন্নয়নের চাবিকাঠি। দেশের সামগ্রিক উন্নয়নে দক্ষ মানবসম্পদের বিকল্প নেই। তাই দক্ষ মানবসম্পদ তৈরিতে ভুমিকা রাখতে চাই পারস্পরিক সম্পর্ক উন্নয়নের মাধ্যমে। সেই লক্ষ্যে আমাদের সম্পৃক্ততা এমন আয়োজনে।’

মো. নূরুল আমিন বলেন, আমরা দেশের প্রচলিত দক্ষতা উন্নয়নে প্রতিষ্ঠানগুলোকে নিবন্ধনের আওতায় এনেছি। ইতোমধ্যে ২২৭টি প্রশিক্ষণ প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান আমাদের নিবন্ধনের আওতায় এসেছে। আরও অর্ধশত প্রতিষ্ঠান নিবন্ধনের প্রক্রিয়ায় আছে।

ড. মো. জিয়াউদ্দীন বলেন, আমাদের যে সংখ্যক তরুণ আছে সেটিই আমাদের বড় সম্পদ। প্রধানমন্ত্রীর রূপকল্প ২০৪১ বাস্তবায়নে আমাদের দেশে দক্ষ জনশক্তি তৈরি করা গুরুত্বপূর্ণ। এটি করা গেলে বিশাল দক্ষ জনগোষ্ঠির একটি অংশ প্রত্যেকে দৈনিক এক ডলার করে আউটসোর্সিংয়ের মাধ্যমে আয় করলেও প্রতিদিন এক কোটি ডলার আয় করা সম্ভব। সুতরাং দেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নে দক্ষতা অর্জনের বিকল্প নেই।

কৃষি খাতে সর্বোচ্চ প্রণোদনা বিতরণের স্বীকৃতি পেল ইসলামী ব্যাংক



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
কৃষি খাতে সর্বোচ্চ প্রণোদনা বিতরণের স্বীকৃতি পেল ইসলামী ব্যাংক

কৃষি খাতে সর্বোচ্চ প্রণোদনা বিতরণের স্বীকৃতি পেল ইসলামী ব্যাংক

  • Font increase
  • Font Decrease

ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড কৃষি খাতে করোনাকালীন সরকারি প্রণোদনা স্কিমের বিনিয়োগ বিতরণের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করায় বাংলাদেশ ব্যাংকের স্বীকৃতি অর্জন করেছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির ১৮ মে ২০২২ বাংলাদেশ ব্যাংকে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ইসলামী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মুহাম্মদ মুনিরুল মওলার কাছে এ প্রশংসাপত্র  হস্তান্তর করেন।

বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর এ কে এম সাজেদুর রহমান খান, নির্বাহী পরিচালক মোঃ আওলাদ হোসেন চৌধুরী, মহাব্যবস্থাপক আব্দুল হাকিম, ইসলামী ব্যাংকের কৃষি বিনিয়োগ বিভাগের প্রধান ড. মোঃ রুহুল আমিন এ সময় উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য ইসলামী ব্যাংক কৃষি খাতে সরকারি পুনঃঅর্থায়ন স্কিমের আওতায় ৪৯১ কোটি টাকা বিনিয়োগ (ঋণ) বিতরণ করে যা বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক বরাদ্দকৃত অর্থের ১০৯ শতাংশ।

;

এসআইবিএল-এ ‘‘ব্যাংকিং কার্যক্রমে শরীআহ্ পরিপালনে সচেতনতা” শীর্ষক কর্মশালা



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক এর উদ্যোগে  ‘‘ব্যাংকিং কার্যক্রমে  শরীআহ্ পরিপালনে সচেতনতা” শীর্ষক এক কর্মশালা ১৮ মে ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে অনুষ্ঠিত হয়েছে। ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী জাফর আলম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান ড. মোঃ মাহবুব উল আলম।

 সভায় প্রধান আলোচক ছিলেন ব্যাংকের শরীআহ্ সুপাভাইজরী কমিটির চেয়ারম্যান মুফতি ছাঈদ আহমদ মুজাদ্দেদী এবং বিশেষ আলোচক ছিলেন ব্যাংকের শরীআহ্ সুপারভাইজরি কমিটির সদস্য সচিব ড. মোহাম্মদ মানজুরে ইলাহী।

এছাড়াও ব্যাংকের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবু রেজা মোঃ ইয়াহিয়া, উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ সামছুল হক ও মুহাম্মদ ফোরকানল্লাহ এবং প্রধান কার্যালয়ের সর্বস্তরের কর্মকর্তাসহ রাজশাহী অঞ্চলের শাখা ও উপ-শাখার কর্মকর্তাগণ  কর্মশালায় অংশগ্রহণ করেন।

;

গ্লোবাল ইসলামী ব্যাংকের ৫ টি উপশাখার উদ্বোধন



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
গ্লোবাল ইসলামী ব্যাংকের ৫ টি উপশাখার উদ্বোধন

গ্লোবাল ইসলামী ব্যাংকের ৫ টি উপশাখার উদ্বোধন

  • Font increase
  • Font Decrease

আধুনিক ব্যাংকিং সেবার প্রতিশ্রুতি নিয়ে ১৯ মে গ্লোবাল ইসলামী ব্যাংকের মোট পাঁচটি উপশাখার উদ্বোধন করা হয়। চট্টগ্রামের আকবর শাহ, কুমিল্লার কবিলা বাজার ও কালির বাজার, গাজীপুরের বরমী চৌরাস্তা ও ময়মনসিংহের গয়েশপুর বাজারে সর্বমোট পাঁচটি উপশাখার উদ্বোধন করা হয়। প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে এই নতুন পাঁচটি উপশাখার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ হাবিব হাসনাত।

এ সময় ব্যাংকের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. গোলাম সারওয়ার ও কাজী মশিউর রহমান জেহাদ, উপ ব্যবস্থাপনা পরিচালক আতাউস সামাদ ও সামি করিম, প্রধান কার্যালয়ের বিভাগীয় প্রধান, শাখা ব্যবস্থাপক, ব্যাংকের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তাসহ আমন্ত্রিত সম্মানীত অতিথি ও গ্রাহকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। 

অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ও উৎকর্ষ ব্যাংকিং সেবার মাধ্যমে ব্যাংকটি দেশে ও দেশের বাইরে তাঁর স্বকীয়তা বজায় রেখে অত্যন্ত দ্রুততার সাথে শাখা সম্প্রসারণ করবে বলে অনুষ্ঠানে আশাবাদ ব্যক্ত করা হয়।

;

`বিদ্যুতের দাম প্রশ্নে ব্যালান্সি ও সহনশীল সিদ্ধান্ত দেওয়া হবে'



স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বাড়লে রপ্তানি ব্যায় বেড়ে যাবে, আবার না বাড়লে তারও প্রভাব রয়েছে। সবকিছু বিবেচনা করে ব্যালান্সিং ও সবার জন্য সহনশীল সিদ্ধান্ত দেওয়া হবে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনের চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল।

বুধবার (১৮ মে) রাজধানীর বিয়াম অডিটরিয়ামে বিদ্যুতের পাইকারি মূল্যবৃদ্ধির গণশুনানি শেষে তিনি এ মন্তব্য করেন। বিইআরসি কমিশনের চেয়ারম্যান আব্দুল জলিলের নেতৃত্বে শুনানি গ্রহণে উপস্থিত ছিলেন সদস্য মকবুল ই ইলাহী চৌধুরী, বজলুর রহমান, মোহাম্মদ আবু ফারুক ও মোঃ কামরুজ্জামান।

তিনি বলেন, আমরা যুক্তিতর্ক লিপিবদ্ধ করেছি। সব বিচার বিশ্লেষণ করা হবে। আপনাদের আরও কোনো মতামত থাকলে পোস্ট শুনানি দাখিল করতে পারবেন। আগামী ৩১ মে পর্যন্ত দেওয়া যাবে লিখিতভাবে। আমার সেগুলো বিচার বিশ্লেষণ করেই সিদ্ধান্ত জানাব।

তিনি বলেন, ডিমান্ড চার্জের বিষয়ে প্রশ্ন উঠেছে। বিভিন্ন দেশ সম্প কোয়ালিটি বিদ্যুৎ দিতে না পারলে তার জন্য ইউটিলিটিকে জরিমানা দিতে হবে। ডিমান্ড চার্জ নিবেন, ফেল করলে আপনাকে জরিমানা দিতে হবে। যদি তাই হয় তাহলে আমরা পাইকারিতে ডিমান্ড চার্জ দিতে আপত্তি নেই।

বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি হলে অর্থনৈতিক প্রভাব কি পড়বে, আপস্টিমে, ডাউনস্টিমে কি প্রভাব পড়বে, তার কোন বিশ্লেষণ প্রস্তাবে উঠে আসেনি। গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বাড়লে রপ্তানি ব্যায় বেড়ে যাবে। সবকিছু বিবেচনা করে ব্যালান্সিং ও সবার জন্য সহনশীল সিন্ধান্ত দেওয়া হবে।

বিদ্যুতের পাইকারি দাম বৃদ্ধি প্রস্তাবের উপর গণশুনানি শুরু হয়েছে। বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (বিপিডিবি) বর্তমান দর ইউনিট প্রতি ৫.১৭ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৮.৫৮ টাকা করার প্রস্তাব করেছে।

বিপিডিবির এই প্রস্তাব গ্যাসের বর্তমান দর বিবেচনায়। বিদ্যুৎউৎপাদনের ক্ষেত্রে গ্যাসের দাম ১০০ শতাংশ বৃদ্ধি হলে ৯.১৪ টাকা এবং ১২৫ শতাংশ হারে বৃদ্ধি পেলে ৯.২৭ টাকা করার প্রস্তাব করা হয়েছে। অন্যদিকে বিইআর টেকনিক্যাল কমিটি ভর্তুকি ছাড়া ৮.১৬ টাকা করার মতামত দিয়েছে বলে সুত্র জানিয়েছে। প্রথমে বিপিডিবি তাদের প্রস্তাবের যৌক্তিকতা তুলে ধরবেন। এরপর বিইআরসি টেকনিক্যাল কমিটি বিদ্যুৎ খাতে গ্যাসের দাম ইউনিট প্রতি ১ টাকা বৃদ্ধি বিবেচনায় এই দর সুপারিশ করেছে।

;