প্রথমবার গ্র্যামিতে মনোনয়ন পেলো পাকিস্তানি গায়িকা



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
আরুজ আফতাব

আরুজ আফতাব

  • Font increase
  • Font Decrease

সংগীত দুনিয়ার সবচেয়ে সম্মানজনক পুরস্কার কোনটি? এক শব্দেই উত্তরটা বলে দেওয়া যায়, গ্র্যামি! বিশ্বের প্রতিটি সংগীত তারকার জন্য গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড পাওয়াটা হচ্ছে সোনার হরিণের মতো দামি। দু’দিন আগেই জানা গেছে গ্র্যামির এবারের অর্থাৎ ৬৪তম আসরের মনোনীত ব্যক্তিদের নাম।

গ্র্যামির মূল চারটি শাখাতেই মনোনীত হয়েছেন মার্কিন সংগীতশিল্পী অলিভিয়া রড্রিগো। ‘ড্রাইভার্স লাইসেন্স’ গানের জন্য সেরা অ্যালবাম, সেরা নতুন শিল্পী, বর্ষসেরা রেকর্ড ও বর্ষসেরা গান বিভাগে মনোনয়ন পেয়েছেন ১৮ বছর বয়সী এই শিল্পী।

বর্ষসেরা অ্যালবাম বিভাগে টানা দ্বিতীয়বার মনোনীত হলেন টেলর সুইফট।

এড শিরানের ‘ব্যাড হ্যাবিটস’ বর্ষসেরা গান বিভাগে মনোনীত হয়েছে। সেরা নতুন শিল্পী বিভাগের সংক্ষিপ্ত তালিকায় স্থান করে নিয়েছেন আর্লো পার্কস ও গ্লাস এনিমলস। ‘হায়ার পাওয়ার’ দিয়ে গ্র্যামিতে ৩৬তমবার মনোনয়ন পেল কোল্ড প্লে।

১১টি মনোনয়ন পেয়ে সবার শীর্ষে আছেন জ্যাজ কিবোর্ডিস্ট জন বেটিস। জাস্টিন বিবার, ডোজা ক্যাট ও হার আটটি করে মনোনয়ন পেয়েছেন। বিলি আইলিশ ও অলিভিয়া রড্রিগো পেয়েছেন সাতটি করে মনোনয়ন।

কিন্তু চমকপ্রদ তথ্য হলো- এই প্রথম গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ডে সেরা নতুন শিল্পী বিভাগে মনোনয়ন পেয়েছেন পাকিস্তানের কোন গায়িকা। তিনি হলেন- আরুজ আফতাব। তার ভালচার প্রিন্স অ্যালবামের ‘মোহাব্বত’ গানটি গ্র্যামিতে মনোনয়ন পেয়েছে।

মজার বিষয়টি হলো- আরুজের এই গানটি রিলিজ হওয়ার পর থেকেই সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার ২০২১ সালের গ্রীষ্মের প্লেলিস্টেও ছিলো।

সেরা নতুন শিল্পী বিভাগে আরুজ আফতাবের সঙ্গে মনোনয়ন পেয়েছেন অলিভিয়া রদ্রিগো, ফিনিয়াস, দ্য কিড লারোই এবং জিমি অ্যালেন।

লাহোরের মেয়ে আরুজ আফতাব বোস্টনের বার্কলি কলেজ অব মিউজিকে সংগীত উৎপাদন এবং প্রকৌশল নিয়ে পড়াশোনা করেছেন। তিনি গজল এবং শাস্ত্রীয় সংগীততে পারদর্শী।

১৯৯৬ সালে বেস্ট ট্রেডিশনালি ফোক অ্যালবাম ও বেস্ট ওয়ার্ল্ড মিউজিক অ্যালাবামের জন্য গ্র্যামিতে মনোনয়ন পেয়েছিলে ওস্তাদ নুসরাত ফাতেহ আলী খান।

২০২২ সালের ৩১ জানুয়ারি লস অ্যাঞ্জেলসে গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হবে।