উৎসবের রুপালী পর্দায় ‘আজব কারখানা’ নিয়ে শবনম ফেরদৌসী



রুদ্র হক, বার্তা ২৪.কম
আজব কারখানার অফিসিয়াল পোস্টার ও শবনম ফেরদৌসী

আজব কারখানার অফিসিয়াল পোস্টার ও শবনম ফেরদৌসী

  • Font increase
  • Font Decrease

প্রামাণ্যচিত্র নির্মাণে ইতিমধ্যেই তিনি দেখিয়েছেন মুন্সিয়ানা, অর্জন করেছেন সম্মান ও ভালোবাসা। এবার বড়পর্দায় তার অভিষেক হতে যাচ্ছে পূর্ণদৈর্ঘ্য কাহিনিচিত্রে। তার পরিচালনায় নির্মাণ শেষ চলচ্চিত্র ‘আজব কারখানা’ প্রথম বারের মতো বড়পর্দায় উঠতে যাচ্ছে আগামীকাল (২০ জানুয়ারি)।

রাজধানীতে চলমান ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের ভ্যানু জাতীয় গণগ্রন্থাগারের মিলনায়তনে সন্ধ্যা সাতটায় প্রদর্শিত হতে যাচ্ছে চলচ্চিত্রটি।

চলচ্চিত্রটির প্রথম প্রদর্শনী নিয়ে উচ্ছ্বসিত এ নির্মাতা। বললেন, “অবশেষে দীর্ঘদিন পর চলচ্চিত্রটি পর্দায় উঠছে এতে আমরা আনন্দিত। করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও বড়পর্দায় চলচ্চিত্রটি দেশের উৎসবেই প্রথমবারের মতো প্রদর্শিত হতে যাচ্ছে এটা বেশ ভালো লাগার। অনেক সাড়া পাচ্ছি-সকলেই দেখতে আসতে আগ্রহী। আমরাও আমন্ত্রণ জানাই। করোনা সংক্রমণ বাড়ছে। কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবেও এটির প্রদর্শনী তাই থেমে গেছে। পরিস্থিতি আবারও একটু স্বাভাবিক হলে বড়পর্দায় আসবে ‘আজব কারখানা’।

২০১৬-২০১৭ অর্থবছরে সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত চলচ্চিত্রটির প্রযোজনা করেছেন বাংলাদেশের প্রথিতযশা চলচ্চিত্র নির্মাতা, প্রযোজক ও মিডিয়া ব্যক্তিত্ব সামিয়া জামান।

আজব কারখানা চলচ্চিত্রের কাহিনী আবর্তিত হয়েছে একজন রকস্টারের জীবনকে ঘিরে। রকস্টার রাজীব গ্রাম বাংলার বাউল শিল্পীদের সংস্পর্শে এসে নিজের জীবনের নতুন অর্থ খুঁজতে শুরু করে। চলচ্চিত্রটিতে আবহমান বাংলার বিভিন্ন গানের ধারা, ঘরানা ও মর্মবানী তুলে ধরা হয়েছে। সেই সঙ্গে আছে রক ও ফিউশনের আয়োজন।


চলচ্চিত্রটি সম্পর্কে নির্মাতা শবনম ফেরদৌসী বলেন, “এটা একদম এই সময়ের গল্প। আমাদের দেখা চারপাশের বাংলাদেশের গল্প। এটা একজন রকস্টারের কাহিনি। একজন শিল্পী, ডায়নামিক চরিত্রের একজন। জনপ্রিয়তা যার একদম তুঙ্গে। তাকে ঘিরেই গল্পটা। সে নানা জায়গায় শো করতে যাওয়ার সুবাদে তার মধ্যে যে পরিবর্তনগুলো হতে থাকে, এবং সে যে আজব সুন্দরের দেখা পায়, সেটাই জানাবার চেষ্টা।”

চলচ্চিত্রটির রক স্টার চরিত্রে অভিনয় করেছেন পশ্চিমবঙ্গে জনপ্রিয় অভিনেতা ও নির্মাতা পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়। তার সঙ্গে সহশিল্পী হিসেবে ছিলেন সাদিয়া শাবনাজ ইমি ও দিলরুবা দোয়েল। ২০১৯ সালের ১৫ মার্চ থেকে ময়মনসিংহ, কেন্দুয়া, সিলেট ও রাজধানীর বিভিন্ন লোকেশনে চিত্রায়িত হয় চলচ্চিত্রটি।


শবনম ফেরদৌসীর মতে, “এটা একটা মিডল সিনেমা। যেখানে সব মানুষই কমুনিকেট করতে পারবে। যে গল্পটা বলা হচ্ছে তাতে দর্শক এন্টারটেইনডও হতে পারে, একটা বোধও নিয়ে যেতে পারে। অর্থাৎ যার যেটা বুঝবার, যার আনন্দ নেবার সে আনন্দ নেবে, যার মেসেজ নেয়া দরকার সে মেসেজটা নেবে।”-যোগ করেন শবনম।

চলচ্চিত্রটিতে ৫টি মৌলিক গান রয়েছে এবং প্রথমবারের মতো বাংলা সাহিত্যের অন্যতম জনপ্রিয় কবি হেলাল হাফিজের ৪টি কবিতাকে গানে রূপায়ন করা হয়েছে। গানগুলোর সঙ্গীতায়োজন করেছে ভাইকিং এবং গৌরব। ছবিটির সংগীত পরিচালনা করেছেন লাবিক কামাল গৌরব।

প্রায় ৪০টিরও অধিক প্রামাণ্যচিত্রের নির্মাতা শবনম ফেরদৌসীর ‘জন্মসাথী’ ২০১৬ সালে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জণ ছাড়াও দেশ বিদেশের বিভিন্ন চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শিত হয়েছে এবং একাধিক পুরস্কার অর্জন করেছে।

 

সালমানের ‘কাভি ঈদ কাভি দিওয়ালি’ থেকে সরে গেলেন আয়ুশ



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
আয়ুশ শর্মা ও সালমান খান

আয়ুশ শর্মা ও সালমান খান

  • Font increase
  • Font Decrease

সালমান খানের হাতের ধরে এখনও পর্যন্ত অনেকেই বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে পা রেখেছেন। যে তালিকায় রয়েছেন সাল্লুর ছোট বোন অর্পিতা খান শর্মার স্বামী আয়ুশ শর্মার নামটিও।

শুধু তাই নয়, পরিচিতিও পান সালমানের সূত্র ধরেই। আর এবার একটু মতবিরোধ হতে সেই সালমান খানের ছবি থেকেই বের হয়ে গেলেন আয়ুশ?

সালমানের পরের ছবি ‘কাভি ঈদ কাভি দিওয়ালি’তেও কাজ করছিলেন। তবে প্রযোজনা সংস্থার সঙ্গে মতের অমিলে সেই কাজই ছেড়ে দিলেন তিনি।

সিনেমার ঘনিষ্ঠ এক সূত্র জানিয়েছে, ‘হ্যাঁ কাভি ঈদ কাভি দিওয়ালি-র টিম শ্যুটিং শুরু করে দিয়েছিল। তারপর কিছু সমস্যা তৈরি হয় আয়ুশ আর এসকেএফের মধ্যে। আর তার জেরেই নিজেকে সরিয়ে নেন আয়ুশ।’

ওই সূত্র আরও জানিয়েছে, ‘আয়ুশ নিজেই কাজ শুরু করে দিয়েছিল। এমনকি গোটা একটা দিন কাজও করেছিলেন। কিন্তু তারপর প্রযোজনা সংস্থার সঙ্গে সমস্যা তৈরি হয় আর তিনি ছেড়ে দেন।’

যদিও কোনওরকম ঝগড়ার খবর মানতে রাজি নন আয়ুশ। তার সাফ কথা, ‘চরিত্রটি ছোট ছিল, তাই সরে গিয়েছি’।

;

করণের ৫০তম জন্মদিন পার্টিতে হাজির গোটা বলিউড



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
করণের জন্মদিন পার্টিতে বলিউড তারকারা

করণের জন্মদিন পার্টিতে বলিউড তারকারা

  • Font increase
  • Font Decrease

বলিউড ইন্ডাস্ট্রির জনপ্রিয় পরিচালক ও প্রযোজক করণ জোহর। ‘কাভি খুশি কাভি গাম’, ‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’, ‘অ্যায় দিল হ্যায় মুশকিল’র মতো অসংখ্য ব্লকবাস্টার দর্শকদের উপহার দিয়েছেন তিনি।


শুধু পরিচালনা ও প্রযোজনা সঞ্চালকের আসনেও দেখা মিলেছে করণের। তার সঞ্চালিত অনুষ্ঠান ‘কফি উইথ করণ’ তো সবসময়ই আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে থাকে। সাম্প্রতিক সময়ে তাকে বিভিন্ন রিয়্যালিটি শোয়ের বিচারকের আসনেও দেখা গেছে।


জনপ্রিয় এই নির্মাতার হাত ধরে বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে অভিষেক হয়েছে অসংখ্য তারকা সন্তানদের। যার কারণে তার বিরুদ্ধে স্বজনপ্রীতির অভিযোগও উঠেছে বারবার।


২৫ মে ছিলো করণের ৫০তম জন্মদিন। আর তার জন্মদিনে জমকালো আয়োজন থাকবে না তা কি করে হয়। এবারও তার ব্যতিক্রম ছিলো না। করণের বার্থডে পার্টিতে যেনো উপস্থিত ছিলো গোটা বলিউড।


চলুন তাহলে দেখে নেওয়া যাক করণের বার্থডে পার্টিতে কোন কোন তারকা উপস্থিত ছিলেন।

মালাইকা আরোরা

 

তামান্না ভাটিয়া

 

টাবু

 

ভিকি কৌশল ও ক্যাটরিনা কাইফ দম্পতি

 

সালমান খান

 

মনীষ মালহোত্রা

 

টাইগার শ্রফ

 

মানুষি ছিল্লার

 

প্রীতি জিনতা ও জেনে গুডেনাফ দম্পতি

 

উপস্থিত ছিলেন দক্ষিণী তারকারাও

 

সাবেক স্ত্রী কিরণ রাওকে নিয়ে করণের বার্থডে পার্টিতে এসেছিলেন আমির খান

 

আনুশকা শর্মা

 

প্রেমিকা সাবা আজাদের সঙ্গে হৃত্বিক রোশন

 

শহিদ কাপুর ও মীরা রাজপুত দম্পতি

 

;

মালয়েশিয়ার পর এবার ফ্র্যান্সে মুক্তি পাচ্ছে ‘শান’



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
সিয়াম আহমেদ ও পূজা চেরি

সিয়াম আহমেদ ও পূজা চেরি

  • Font increase
  • Font Decrease

ঈদুল ফিতরে বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়াতে একযোগে মুক্তি পায় সত্য ঘটনা অবলম্বনে নির্মিত পুলিশি অ্যাকশন থ্রিলার ছবি শান। মুক্তির পরই দর্শক নন্দিত হয় ছবিটি। এবার 'শান' মুক্তি পাচ্ছে ফ্রান্সে।

আগামী ২৭ মে থেকে ফ্রান্সের প্যারিস শহরের গোমো সেন্ট ড্যানি ও পাথে লা ভিলেত হলে ছবিটি প্রদশির্ত হবে। সেখানে ছবিটি ডিস্টিবিউশন করছে দেসি এন্টারটেইনমেন্ট।

প্রতিষ্ঠানটির কর্ণধার রাব্বানী খান বলেন, ‘আমরা আপাতত প্যারিস শহরতলীর দুটি থিয়েটারে মুক্তি দিচ্ছি ছবিটি। পরের সপ্তাহে তুলুজে রিলিজের সম্ভাবনা আছে। দুটি হলে প্রথম সপ্তাহে ১৮টি শো দেখানো হবে। দর্শকদের রেসপন্স বাড়লে পরবর্তীতে শো আরও বাড়ানো হবে।’

শান এ মূখ্য ভূমিকায় অভিনয় করেছেন সিয়াম আহমেদ। তার বিপরীতে আছেন পূজা চেরি। ঈদুল ফিতরে বাংলাদেশের সব বড় বড় হলে মুক্তি পায় ছবিটি। মুক্তির প্রথম দিন থেকেই রাজধানীতে বেশ সাড়া ফেলে। অলমোস্ট হাউজফুল যায় শান।

ছবিটি পরিচালনা করেছেন এম রাহিম। ফ্রান্সে ছবিটির মুক্তি নিশ্চিত করে তিনি বলেন, ‘ঈদে দর্শক টেনেছে ছবিটি। আমরা চাই ছবিটি প্রবাসী বাংলাদেশীরাও দেখার সুযোগ পাক। এবার ফ্যান্সে ছবিটি মুক্তি দিচ্ছে দেসি এন্টারটেইনমেন্ট। বাংলা সিনেমা বিদেশে মুক্তি দিতে তাদের এগিয়ে আসার উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাই। আশা করি ২৭ মে ছবিটি ফ্যান্সের দর্শকরাও হলে এসে দেখবেন।’

'শান' ছবিটির কাহিনি সাজিয়েছেন আজাদ খান। ছবিটির ক্রিয়েটিভ প্রধানও তিনি। চিত্রনাট্য ও সংলাপ লিখেছেন যৌথভাবে আজাদ খান ও নাজিম উদ দৌলা। ফিলম্যান প্রডাকশনের ব্যানারে সিনেমাটি প্রযোজনা করেছেন ওয়াহিদুর রহমান এবং এম আতিকুর রহমান।

আজাদ খান বলেন, 'শানের মতো পুলিশ অ্যাকশন ছবি এর আগে বাংলাদেশে হয়নি। যে ভাবনা নিয়ে শান নির্মাণ করতে চেয়েছিলাম সেই ভাবনাকেও হার মানিয়েছে। ছবিটি মুক্তির পর দর্শকদের সাড়া পেয়েছি এটা আমাদের পরবর্তী সিনেমা নির্মাণে আগ্রহী করেছে। এবার ছবিটি ফ্রান্সে মুক্তি পাচ্ছে এটা আমাদের জন্য দারুণ সুখবর।'

বিদেশে মুক্তি নিয়ে সিয়াম আহমেদ বলেন, ‘শান ছবিটি এবার ফ্রান্সে মুক্তি পাচ্ছে। ভালো লাগছে সেখানকার প্রবাসী ভাই-বোনরা ছবিটি এবার দেখতে পাবেন। আমি সবাইকে হলে এসে ছবিটি দেখার জন্য আহ্বান করবো।’

ছবিটিতে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন তাসকিন রহমান, সৈয়দ হাসান ইমাম, চম্পা, অরুনা বিশ্বাস প্রমুখ।

;

৪ জুন আসছে তাহসান-তিশার ‘মানি মেশিন’



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
‘মানি মেশিন’র দৃশ্য

‘মানি মেশিন’র দৃশ্য

  • Font increase
  • Font Decrease

‘বেচতে জানলে টাকাও বেচা যায়!’ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া এই সংলাপটি বেঙ্গল মাল্টিমিডিয়ার ব্যানারে নির্মিত আরটিভি প্লাস এর ওয়েব ফিল্ম ‘মানি মেশিন’ এর।

আগামী ৪ জুন রাত ৮টায় আরটিভি প্লাসে আসছে বহুল প্রতীক্ষিত ওয়েব ফিল্ম ‘মানি মেশিন’।

বেঙ্গল মাল্টিমিডিয়া লিমিটেড এর ব্যানারে সৈয়দ আশিক রহমানের প্রযোজনায় মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ-এর গল্প ও পরিচালনায় ‘মানি মেশিন’ এর শুটিং শেষ হয় গত বছরের শেষদিকে। চিত্রনাট্য লিখেছেন মারুফ রহমান।

অভিনয় করেছেন- তাহসান খান, তানজিন তিশা, শতাব্দী ওয়াদুদ, মুনিরা আক্তার মিঠু, ফজলুল বাশার, মিলি বাশার প্রমুখ।

ওয়েবফিল্ম মানি মেশিন এর প্রযোজক ও আরটিভি’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আশিক রহমান বলেন- মানি মেশিন অত্যন্ত সুন্দর একটি ওয়েবফিল্ম হিসেবে দর্শকরা গ্রহণ করবে বলে আমি মনে করি, কারণ মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ কাজটি খুব যত্ম নিয়ে করেছেন। তাহসান ও তিশাসহ অভিনয়শিল্পীরা অত্যন্ত আন্তরিকতার সাথে কাজটি করেছেন।

;