সালেহ আহমাদ তাকরিমের তেলাওয়াত বিশ্বময় মুগ্ধতা ছড়িয়েছে



সাঈদ চৌধুরী
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

আন্তর্জাতিক হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতায় (১৪৪৪ হিজরি) প্রথম স্থান অর্জন করেছেন হাফেজ সালেহ আহমাদ তাকরিম। এটা ছিল সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে অনুষ্ঠিত ২৬তম আন্তর্জাতিক হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতা। এতে প্রথম হয়ে দেশ ও জাতির নাম উজ্জ্বল করেছেন বাংলাদেশের এই কৃতিমান মেধাবী কিশোর। তার তেলাওয়াত বিশ্বময় মুগ্ধতা ছড়িয়েছে।

মঙ্গলবার (৪ এপ্রিল) বিকেলে প্রথম স্থান অধিকারী হিসেবে তাকরিমের নাম ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে সেখানে এক অভূতপূর্ব দৃশ্যের অবতারণা ঘটে। হৃদয়ের গভীর ভালোবাসা দিয়ে উপস্থিত সকলে তাকে স্বাগত জানান। হাফেজ সালেহ আহমাদ তাকরিম সহাস্যে প্রধান অতিথির কাছ থেকে সনদ গ্রহণ করেন। এক্সপো প্রাঙ্গণে তাকরিমের হাতে পুরস্কার তুলে দেন দুবাইয়ের শেখ মোহাম্মদ বিন রাশিদ মুহাম্মদ আল মাকতুম।

১৪ বছরের এই কিশোর তিলাওয়াতের সময় নির্ভুল ৫টি পয়েন্টে ৭০ দেশের প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলে শীর্ষস্থান লাভ করেন। খবরটি দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে মুসলিম বিশ্বে। সর্বত্র তার তেলাওয়াতের ভিডিও শোনার জন্য সাড়া পড়ে যায়। আহ্ কি মধুর কণ্ঠ! শুনলে কলিজা জুড়িয়ে যায়। পবিত্র কোরআনের আয়াতে নন্দিত ছন্দ ও আল্লাহ তাআলার প্রশংসার বিবরণ। হাফেজ সালেহ আহমাদ তাকরিমের তেলাওয়াতে সেই ছন্দ যেমন প্রাণকে আন্দোলিত করে, তেমনি তার মোহনীয় সুরে হৃদয়ে উচ্ছ্বাস জাগায়, প্রাণিত করে।

প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্বে সকলেই ছিলেন আন্তর্জাতিক মানের। সুমধুর ও সুললিত কণ্ঠস্বর তাদের। হৃদয়কাড়া জান্নাতি সুরে মুগ্ধ হতে হয়। চূড়ান্ত পর্বে বাংলাদেশের হাফেজ সালেহ আহমদ তাকরিম ছাড়াও ছিলেন ইথিওপিয়ার আব্বাস হাদি ওমর, সৌদি আরবের খালেদ সুলাইমান বুরকানি, ক্যামেরুনের নুরুদ্দীন, ইন্দোনেশিয়ার হাদি মাওলানা, কেনিয়ার আব্দুল আলিম আব্দুর রহিম মোহাম্মদ হাজি, সিরিয়ার মোহাম্মদ হাজ আসআদ, ইয়ামেনের মোহাম্মদ আবদু আহমাদ কাসেম, ব্রুনাইয়ের আব্দুল আজিজ বিন নুর নাসরান ও মরক্কোর হামজা মুস্তাকিম। এর মধ্য থেকে প্রথম হয়েছেন হাফেজ সালেহ আহমদ তাকরিম। তার সুরের মূর্ছনায় থমকে দাঁড়ান অনুষ্ঠানের বিচারকমন্ডলি।

সালেহ আহমাদ তাকরিম টাঙ্গাইলের নাগরপুর থানার ভাদ্রা গ্রামের সন্তান। তার সৌভাগ্যবান বাবা হাফেজ আব্দুর রহমান একটি মাদরাসার শিক্ষক। তাকরিম ঢাকার মিরপুরে অবস্থিত মারকাযু ফয়জিল কোরআন আল ইসলামীর ছাত্র। এই মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক এবং প্রিন্সিপাল মুফতি মুরতাজা হাসান ফয়েজী মাসুম দুবাইয়ে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতায় তাকরিমের সঙ্গে ছিলেন। অনুষ্ঠানে তিনি এবং বাংলাদেশ থেকে প্রথম বিচারক হিসেবে উপস্থিত শোয়াইব আল আজহারীকে বিশেষ সম্মান জানানো হয়।

হাফেজ সালেহ আহমাদ তাকরিম ইসলামিক ফাউন্ডেশন কর্তৃক গত ১২ জানুয়ারি নির্বাচনী পরীক্ষায় বাংলাদেশের একমাত্র প্রতিনিধি নির্বাচিত হয়েছিলেন।

তারও আগে তিনি ২০২২ সালে লিবিয়ায় অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় সপ্তম, একই বছর ইরানে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক কোরআন প্রতিযোগিতায় প্রথম ও সৌদি আরবে অনুষ্ঠিত বাদশাহ আব্দুল আজিজ আন্তর্জাতিক হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতায় তৃতীয় স্থান অর্জন করেন। সৌদি আরবে অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতায় ১১১টি দেশের ১৫৩ জন হাফেজের মাঝে তৃতীয় হওয়ায় তাকরিমকে ১ লাখ রিয়াল (২৮ লাখ টাকা) পুরস্কার দেয় হয়।

উল্লেখ্য, মারকাযু ফয়জিল কোরআন আল ইসলামী ঢাকা ২০১৪ সালে তাদের শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করে । প্রতিষ্ঠানটি কোরআনের খেদমতে খুবই সুনামের সঙ্গে পরিচালিত হচ্ছে। শুরু থেকেই ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশের তত্ত্বাবধানে আয়োজিত বিভিন্ন আন্তর্জাতিক হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে তাদের শিক্ষার্থীরা বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছেন। জাতীয়ভাবে এবং বিভিন্ন টেলিভিশনে হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে স্বর্ণপদকসহ অনেক সম্মাননা লাভ করেছেন তারা। সালেহ আহমাদ তাকরিমের আগে হাফেজ মুয়াজ মাহমুদ আন্তর্জাতিক হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতায় ২০১৯ সালে দুবাইয়ে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেন। তুরস্কে আন্তর্জাতিক হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতায় ২০১৭ সালের জন্য নির্বাচিত হন হাফেজ মাহমুদুল হাসান।

লেখক: লন্ডন প্রবাসী। সাংবাদিক, কবি ও কথাসাহিত্যিক।

   

সংযুক্ত আরব আমিরাতে আজ বৃষ্টির সম্ভাবনা



সংযুক্ত আরব আমিরাত (দুবাই) থেকে তোফায়েল পাপ্পু:
সংযুক্ত আরব আমিরাতে আজ বৃষ্টির সম্ভাবনা

সংযুক্ত আরব আমিরাতে আজ বৃষ্টির সম্ভাবনা

  • Font increase
  • Font Decrease

সংযুক্ত আরব আমিরাতে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। বাতাসে ধুলিকণা সৃষ্টি করে কিছু উপকূলীয় এবং অভ্যন্তরীণ এলাকায় মঙ্গলবার রাত এবং বুধবার সকাল পর্যন্ত আর্দ্রতা থাকবে। আমিরাতের ন্যাশনাল সেন্টার অফ মেটিওরোলজি (এনসিএম) এর তথ্যমতে সারা দেশে আবহাওয়ার অবস্থা রৌদ্রোজ্জ্বল হবে বলে আশা করা হচ্ছে, তবে কিছু অংশে কুয়াশাচ্ছন্ন আকাশ এবং বৃষ্টিপাতের সাথে আংশিক মেঘলা থাকতে পারে।

কিছু উপকূলীয় এবং অভ্যন্তরীণ এলাকায় মঙ্গলবার রাত এবং বুধবার সকাল পর্যন্ত আর্দ্র থাকবে। হালকা থেকে মাঝারি বাতাসের কারণে ধুলো উড়বে।

এদিতে কারও যদি ধূলিকণার অ্যালার্জি থাকে এমন কেউ বাইরের দিকে না যায় এবং বাহিরে যেসব শ্রমিক কাজ করছেন তাদেরও সতর্ক থাকতে নির্দেশ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। কেননা কখনও কখনও হালকা থেকে মাঝারি বাতাস, ১৫-২৫ বেগে, ৪৫ কিমি/ঘন্টা বেগে, ধুলো এবং বালি উড়তে পারে।"

দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪১-৪৪ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৫-২৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে থাকবে বলে আশা করা হচ্ছে।


উপকূলীয় অঞ্চলে তাপমাত্রা সর্বোচ্চ ৩৭-৪২ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং পার্বত্য অঞ্চলে ৩০-৩৪ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে থাকবে। পার্বত্য অঞ্চলে আর্দ্রতা ৬০-৮০ শতাংশ মাঝারি থাকবে, যেখানে উপকূলীয় অঞ্চলে এটি ৭০-৯০ শতাংশ হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

এনসিএম আরও বলেছে যে মঙ্গলবার রাত এবং বুধবার সকালে আপেক্ষিক আর্দ্রতা বাড়তে পাওে এবং কিছু অভ্যন্তরীণ এবং উপকূলীয় এলাকায় কুয়াশা এবং কুয়াশা তৈরি হচ্ছে। মাঝারি বাতাস প্রত্যাশিত এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের উপকূলরেখা বরাবর সমুদ্র তুলনামূলকভাবে শান্ত থাকবে।

;

মালয়েশিয়ায় পুলিশের মোটরসাইকেল কিনে বিপাকে বাংলাদেশি



স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, সাউথ-ইস্ট এশিয়া, ব্যাংকক, থাইল্যান্ড
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

মালয়েশিয়ান পুলিশের ব্যবহৃত একটি মোটরসাইকেল মাত্র ১ হাজার ৫০০ রিঙ্গিত বা ৩০ হাজার টাকায় কেনেন একজন প্রবাসী বাংলাদেশি। সেটা চালানোও শুরু করেন। কিন্তু বিপত্তি ঘটলো টিকটকে বড় কথা বলতে গিয়ে।

ড্রাইভিং লাইসেন্স ছাড়াই মালয়েশিয়ান পুলিশের মোটরসাইকেল চালানোর বিষয়টি টিকটকে বড়াই করে জানান দেন প্রবাসী। ভিডিওটিও ভাইরাল হয়ে পড়ে। আর সেটা চোখে পড়ে মালয়েশিয়ান পুলিশের। অবশেষে খুঁজে বের করা হয় তাকে।

সেপাং জেলা পুলিশের প্রধান সহকারী কমিশনার ওয়ান কামারুল আজরান ওয়ান ইওসুফ বলেন, সেপাং পুলিশ হেডকোয়ার্টারের একজন সদস্যের মোটরসাইকেল ছিল সেটি। আমরা তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছি।

তিনি বলেন, পুলিশ সদস্য তার মোটর সাইকেলটি মেকানিক দোকানে নিয়ে যান কিছু যান্ত্রিক ত্রুটি ঠিক করতে।

মোটরসাইকেলটি অনেকদিন ধরেই পরিচর্যা করা হয়নি। পরে মেকানিক দোকানের বাংলাদেশি কর্মচারী বলেন, ১ হাজার ৫০০ রিঙ্গিতের বিনিময়ে তিনি মোটরসাইকেলটি কিনতে চান। মোটর সাইকেলের মালিক এই প্রস্তাবে রাজি হন।

এরপর ক্রেতা বাংলাদেশি টিকটকে একটি ভিডিও প্রকাশ করলে সেটি ভাইরাল হয়ে যায়। যেখানে তিনি নিজেই বলেন যে, ড্রাইভিং লাইসেন্স ছাড়াই তিনি গাড়িটা চালাচ্ছেন। এবং দ্বি-চক্র যানটির সড়ক কর পরিশোধ করা নেই।

এছাড়াও ১৫০০ রিঙ্গিত দিয়ে একজন পুলিশ কর্মকর্তার কাছ থেকে মোটরসাইকেলটি কিনেছেন বলেও জানান তিনি।

ওয়ান কামারুল আজরান বলেন, ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে পড়লে গত শনিবার ওই বাংলাদেশি ব্যক্তিকে চিহ্নিত করা হয়।

রোড ট্রান্সপোর্ট অ্যাক্ট ১৯৮৭ এর ২৬ (১) ধারায় তাকে জরিমানাসহ শাস্তি দেয়া হয়েছে বিনা লাইসেন্সে মোটর সাইকেল চালনার জন্য।

;

প্রবাস স্কিম নিয়ে বৈরুতস্থ দূতাবাসের আলোচনা সভা



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
প্রবাস স্কিম নিয়ে লেবানন দূতাবাসের আলোচনা সভা

প্রবাস স্কিম নিয়ে লেবানন দূতাবাসের আলোচনা সভা

  • Font increase
  • Font Decrease

সর্বজনীন পেনশন স্কিমের আওতায় প্রবাস স্কিম সম্পর্কে জানাতে আলোচনা সভার আয়োজন করেছে লেবাননের বৈরুতস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস।

বুধবার (১৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে দূতাবাস প্রাঙ্গণে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। লেবাননে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এয়ার ভাইস মার্শাল জাভেদ তানভীর খান সভায় সভাপতিত্ব করেন।

রাষ্ট্রদূত বলেন, সর্বজনীন পেনশন স্কিম বাংলাদেশের সকল নাগরিকের টেকসই ভবিষ্যৎ আর্থিক ও সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃঢ় ইচ্ছা ও তার দূরদর্শী নেতৃত্বের বহিঃপ্রকাশ। এ সময় রাষ্ট্রদূত লেবাননে অবস্থানকারী বাংলাদেশি প্রবাসীদেরকে সর্বজনীন পেনশন স্কিমের আওতায় প্রবাস স্কিমে অংশগ্রহণ করার জন্য আহ্বান জানান।

সভায় প্রবাসী বাংলাদেশিরা স্বতঃস্ফুর্তভাবে অংশগ্রহণ করেন। এ সময় অনেক প্রবাসী সর্বজনীন পেনশন স্কিমের প্রবাস স্কিমে রেজিস্ট্রশন করার আগ্রহ প্রকাশ করেন এবং এ স্কিম সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করেন।

;

আরব আমিরাতে মঞ্চায়িত হলো ‘জনকের অনন্তযাত্রা’



তোফায়েল আহমেদ (পাপ্পু), দুবাই করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
জনকের অনন্তযাত্রা

জনকের অনন্তযাত্রা

  • Font increase
  • Font Decrease

সংযুক্ত আরব আমিরাতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারের সদস্যদের নির্মমভাবে হত্যাকাণ্ডের পরবর্তী ঘটনা প্রবাহ নিয়ে রচিত নাটক ‘জনকের অনন্তযাত্রা’ মঞ্চস্থ হয়েছে । ইতিমধ্যে নাটকটি সরকারিভাবে বাংলাদেশের প্রতিটি জেলায় মঞ্চস্থ হয়েছে।

বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল দুবাইয়ের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ও প্রবাসীদের নাট্যদল হিজল নাট্যমঞ্চর প্রথম প্রযোজনা জনকের অনন্তযাত্রা। মাসুম রেজার রচনা ও নির্দেশনায় নাটকটি শনিবার (৯ সেপ্টেম্বর) মঞ্চস্থ হয় আরব বিশ্বের সংস্কৃতির রাজধানী শারজার একটি অডিটোরিয়ামে। এসময় অভিনেতাদের অনবদ্য অভিনয় ও নাটকের বিষয়বস্তু সাড়ে তিন শতাধিক প্রবাসীদের হৃদয়ে নাড়া দিয়েছে। নাটকটি মঞ্চস্থ হওয়া অবস্থায় বহু দর্শককে কাঁদতে দেখা যায়।

এতে অভিনয় করেন দেশের প্রথমসারির বেশ কয়েকজন অভিনেতা। তাদের সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেন প্রবাসী অভিনেতারাও। এর মধ্যে আছেন- আজিজুল হাকিম, শামছি আরা সায়েকা, রামিজ রাজু, শিবলী আল সাদিক, এসএম শাফায়েত, উচ্ছ্বাস, নাজমুল হক, মেহেদি হাসান, জাহুর হোসাইন শাহীন, জসিম উদ্দিন, পলাশ, নাজমা জর্জ প্রমুখ।

এ নাটক প্রসঙ্গে মাসুম রেজা বলেন, জনকের অনন্তযাত্রা শুধু একটি নাটক নয়, বরং বাঙালি জাতির নির্মম ইতিহাস। নাটকটির প্রতিটি চরিত্রের জন্য যখন আমি স্ক্রিপ্ট লিখি, তখন নিজেই কান্না করেছি। যে মানুষটি দেশকে স্বাধীন করল, তাকেই হত্যা করা হয়েছে। সঙ্গে পুরো পরিবারকে, যেখানে ছিল ১০ বছর বয়সী একজন শিশুও। পরদিন ভোরে পরিবারের সবাইকে সমাধিস্থ করা হয় রাজধানীর বনানী কবরস্থানে। কেবল বঙ্গবন্ধুকে কফিনে করে নিয়ে যাওয়া হয় তার চিরচেনা নিজভূমি টুঙ্গিপাড়ায়। একজন মুসলমানকে যেভাবে সমাধিস্থ করা হয়, সেভাবেই হয়েছিল পিতার অন্তিম শয়ান।

তিনি বলেন, তথ্য ও গবেষণার মাধ্যমে ১৬ আগস্টের সারা দিনের খন্ডচিত্র জোড়া দিয়ে সাজানো হয়েছে জনকের অনন্তযাত্রা নাটকের গল্প। এ নাট্যে সেদিনের ইতিহাস হয়ে উঠেছে গল্পনির্ভর, আর গল্পটা হয়েছে ইতিহাস নির্ভর।

কনসাল জেনারেল বিএম জামাল হোসেন বলেন, ৭৫-এর ঘাতকেরা জাতির পিতার দাফন নিয়ে যে নির্মমতা দেখিয়েছিল নাটকটিতে আমরা তা দেখতে পেলাম। হত্যাকাণ্ড ও দাফন নিয়ে ইতিহাস বিকৃতকারীদের জন্য নাটকটি সঠিক জবাব দিচ্ছে। সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রবাসীরা মুগ্ধ হয়ে নাটকটি দেখেছেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, কনস্যুলেটের শ্রম সচিব মুহাম্মদ আব্দুস সালাম, পাসপোর্ট সচিব কাজী ফয়সাল, প্রথম সচিব শাহনাজ পারভীনসহ কনস্যুলেটের কর্মকর্তা, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিকস মিডিয়ার প্রতিনিধিরা।

;