বিক্রি হচ্ছে এয়ার ইন্ডিয়ার শতভাগ মালিকানা

ইশতিয়াক হুসাইন, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ভারতের রাষ্ট্রায়ত্ত বিমান সংস্থা এয়ার ইন্ডিয়ার শতভাগ মালিকানা বিক্রি করে দেওয়া হচ্ছে। সরকার আগ্রহী সংস্থা ও কোম্পানিকে একটি ইওআই (এক্সপ্রেস অব ইন্টারেস্ট) বা আগ্রহপত্র জমা দিতে বলেছে। সোমবার (২৭ জানুয়ারি) সেদেশের সরকার এ সংক্রান্ত ইওআই প্রকাশ করে।

এতে বলা হয়েছে, আগ্রহীদেরকে আগামী ১৭ মার্চ বিকেল ৫টার মধ্যে এই আগ্রহপত্র জমা দিতে হবে। এরপর ওই মাসের ৩১ মার্চের মধ্যে যোগ্য কোম্পানিকে নির্বাচিত হওয়ার তথ্য জানিয়ে দেওয়া হবে।

দেশটির সরকার শুধু এয়ার ইন্ডিয়াই নয়, এয়ার ইন্ডিয়া এক্সপ্রেস ও এয়ার ইন্ডিয়ার গ্রাউন্ড হ্যান্ডেলিং কোম্পানি স্যাটসের ৫০ শতাংশ মালিকানা বিক্রি করতে চাইছে। তবে মুম্বাইয়ে এয়ার ইন্ডিয়ার আইকনিক নারিম্যান পয়েন্ট সদর দফতর ও দিল্লীর কনাট প্লেসের সদর দফতরের ভবন সরকার নিজেদের হাতেই রাখছে।

বর্তমানে এয়ার ইন্ডিয়া ও এয়ার ইন্ডিয়া এক্সপ্রেসের ৬০ হাজার কোটি রুপি দেনায় রয়েছে। সরকার বলছে, এর মধ্যে ২৩ হাজার ২৮৬ কোটি রুপি দেনার দায় নিতে হবে ক্রয়কারী সংস্থাকে।

এর আগে সরকার রাষ্ট্রায়ত্ত বিমান সংস্থাটির ৭৬ শতাংশ মালিকানা বিক্রির জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করলেও তাতে সাড়া মেলেনি। সরকার মনে করছে, এবার শতভাগ মালিকানা বিক্রির সিদ্ধান্তের ফলে ক্রয়কারী সংস্থা অপারেশনালে কার্যক্রমে শতভাগ স্বাধীনতা পাবে।

১৯৩২ সালে প্রতিষ্ঠিত এয়ারলাইন্সটির বর্তমানে ১০২টি গন্তব্যে ফ্লাইট পরিচালনা করে থাকে। তাদের বহরে এখন ১৩৬টি উড়োজাহাজ রয়েছে।

ভারতে শুধু এয়ার ইন্ডিয়াই নয়, বিমান ব্যবসায় মন্দা যাচ্ছে। এ কারণে গেল বছর দেশটির অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বেসরকারি বিমানসংস্থা জেট এয়ারওয়েজে বন্ধ হয়ে যায়। এর আগে ভারতের অল্প সময়ের মধ্যে আকাশপথের বাজার ধরতে সক্ষম হওয়া কিংফিশার এয়ারলাইন্সও আর্থিক কারণে একইভাবে বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। আর্থিক সংকট ও বাজেট এয়ারলাইন্সসমূহের কাছে মার খেয়ে ভারতে বিমান চলাচল খাতে দুরবস্থা নতুন কোনো সংবাদ নয়।

আপনার মতামত লিখুন :

এ সম্পর্কিত আরও খবর