চীনের ট্রায়ালে থাকা ভ্যাকসিন মানবদেহে কার্যকরী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

চীনা শীর্ষ সামরিক ভাইরোলজিস্ট দ্বারা তৈরি করোনার সম্ভাব্য ভ্যাকসিনটি প্রাথমিক ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে কার্যকরী ফল দেখিয়েছে। ভ্যাকসিনের একটি ডোজেই ১৪ দিনের মধ্যে মানবদেহে কার্যকরী অ্যান্টিবডি তৈরি করতে সক্ষম হয়েছে।

ভ্যাকসিনের প্রাথমিক ট্রায়ালে শতাধিক সুস্থ বয়স্কদের মধ্যে প্রতিরোধ ব্যবস্থা গড়ে তুলেছে। ভ্যাকসিনটি সফলভাবে মানবদেহে অ্যান্টিবডি তৈরি করতে সক্ষম হয়েছে।

শনিবার (২৩ মে) চীনের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, একাডেমি অব মিলিটারি মেডিকেল সায়েন্সেস এবং চীনা সংস্থা ক্যানসিনো বায়ো কর্তৃক নির্মিত ভ্যাকসিনের প্রথম পর্যায়ের পরীক্ষায় পরামর্শ দেওয়া হয়েছে, ভ্যাকসিনটি সম্পূর্ণ নিরাপদ ছিল।

সামরিক গবেষকদের নেতৃত্বদানকারী বিজ্ঞানী মেজর জেনারেল চেন ওয়ে এক বিবৃতিতে বলেন, এই ফলাফলগুলো একটি গুরুত্বপূর্ণ মাইলফলককে উপস্থাপন করে।

পরীক্ষাটি প্রমাণ করেছে ভ্যাকসিনের একটি মাত্র ডোজ ১৪ দিনের মধ্যে নির্দিষ্ট ভাইরাসের বিরুদ্ধে অ্যান্টিবডি তৈরি করে। এটি আরও সুনির্দিষ্ট করতে বৃহৎ ট্রায়ালের দিকে এগোচ্ছি আমরা।

পিপলস লিবারেশন আর্মি একাডেমি অব মিলিটারি মেডিকেল সায়েন্সেস এবং চীনা সংস্থা ক্যানসিনো বায়ো কর্তৃক উদ্ভাবিত রিকম্বিন্যান্ট অ্যাডেনোভাইরাস ভেক্টর-ভিত্তিক ভ্যাকসিন এপ্রিলের ১২ তারিখে দ্বিতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল শুরু করেছে। ভেক্টর ভ্যাকসিন নিরাপদ এবং একসঙ্গে অনেক রোগই নির্মূল করতে সক্ষম। করোনাভাইরাসের প্রোটিনকে প্রতিরোধ করতে ও শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িতে তুলতে সক্ষম এ ভ্যাকসিন। এর কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই।

আরও পড়ুন: দ্বিতীয় ট্রায়ালে অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন, জুনেই কার্যকারিতা

মর্ডানার ভ্যাকসিনের প্রাথমিক ট্রায়ালে কার্যকরী ফল

করোনা ঠেকাতে শতভাগ কার্যকরী অ্যান্টিবডি আবিষ্কারের দাবি

করোনার প্রপোটাইপ ভ্যাকসিনে সুস্থ হলো বানর

ভ্যাকসিন তৈরির দৌড়ে এগিয়ে যারা

আপনার মতামত লিখুন :