সরিষাবাড়ীতে ভ্যান চালককে পিটিয়ে হত্যা



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, জামালপুর
ছবিঃ বার্তা২৪.কম

ছবিঃ বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে কুডালিয়াপটল এলাকায় তুচ্ছ ঘটনায় আলমগীর হোসেন (৪৫) নামে এক ভ্যান চালককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তারই জেঠাত ভাই-বোন বিরুদ্ধে।

শুক্রবার (৩০ অক্টোবর) দুপুরে তারাকান্দি তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জামালপুর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) রাতে কুডালিয়াপটল গ্রামে আলমগীরের নিজ বাড়িতেই তার মৃত্যু হয়। তিনি একই গ্রামের মৃত ইসমাইল হোসেনের ছেলে।

স্থানীয় ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে কুডালিয়াপটল গ্রামের খোকন মিয়ার স্ত্রী মমতা বেগম স্থানীয় কেরামজানি বাজার থেকে গো-খাদ্য কিনে একই গ্রামের প্রতিবেশী ভ্যান চালক রহিম মিয়াকে তার বাড়িতে পৌঁছে দিতে বলেন। এসময় তিনি মমতা বেগমকে আপত্তিকর কথা বলে।

এ বিষয়টি খোকনের স্ত্রী মমতা বেগম রহিমের চাচাত ভাই ভ্যান চালক আলমগীরের কাছে নালিশ জানায়। আলমগীর তার জেঠাত ভাই-বোন রহিম, শুক্কুর, রঞ্জু ও কল্পনার সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বললে তাদের সাথে কথাকাটকাটি হয়।

এক পর্যায়ে রহিম, শুক্কুর, রঞ্জু ও কল্পনা আলমগীরের উপর চড়াও হয়ে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে তাকে গুরুতর আহত করে। এতে আলমগী রঅজ্ঞান হয়ে পড়েন।

গুরুতর আহত আলমগীরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার প্রস্তুতিকালে তিনি মারা যান।

তারাকান্দি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ তরিকুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।