নান্দাইলের ছেলে হোয়াইট হাউসে, খুশির বন্যা পৈত্রিক ভিটায়



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ময়মনসিংহ
জাইন সিদ্দিকীর পৈত্রিক বাড়ি

জাইন সিদ্দিকীর পৈত্রিক বাড়ি

  • Font increase
  • Font Decrease

৩০ বছর বয়সী যুবক জাইন সিদ্দিকী। বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত একজন আমেরিকান নাগরিক। যিনি প্রথম বাংলাদেশি-আমেরিকান হিসেবে নিয়োগ পেতে যাচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের হোয়াইট হাউস প্রশাসনের ডেপুটি চিফ অব স্টাফের সিনিয়র অ্যাডভাইজার পদে।

ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার মাদারীনগর গ্রামের চিকিৎসক মোস্তাক আহম্মেদ সিদ্দিকী ও হেলেনা সিদ্দিকী দম্পতির একমাত্র ছেলে জাইন সিদ্দিকী। ৩৩ বছর আগে সপরিবারে তারা পাড়ি জমান যুক্তরাষ্ট্রে। নাগরিকত্ব পেয়ে তখন থেকেই বসবাস করছেন। সেখানেই জন্ম একমাত্র ছেলে জাইনের। বিদেশে বড় হলেও দেশের প্রতি টান কমেনি একটু। সার্বক্ষণিক খোঁজখবর রাখেন নিজের স্বজন ও এলাকাবাসীর। সুযোগ পেলে ঘুরতেও আসেন নিজের পিতৃভূমিতে।

সপরিবারে জাইন সিদ্দিকী

সোমবার (১৮ জানুয়ারি) বিকেলে জাইন সিদ্দিকীর গ্রামের বাড়িতে দেখা যায় সেখানে চলছে খুশির বন্যা।

বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর ব্যক্তির সহকারী হওয়ায় জাইন সিদ্দিকীকে নিয়ে গর্ব করছেন সবাই। এলাকাবাসী ও স্বজনরা বলছেন, জাইন সিদ্দিকী এখন শুধু ময়মনসিংহের নান্দাইলেরই নয়, পুরো দেশের গর্ব।

সেখানে কথা হয়, জাইনের বাবার চাচাতো ভাই রতন সিদ্দিকীর সঙ্গে। তিনি জানান, বর্তমানে গ্রামের বাড়িতে জাইনের বাবা-ফুফুরা কেউ বসবাস করেন না। আমরা তার অনেক স্বজন এখানে আছি। নিয়মিত কথা হয় আমাদের সঙ্গে। তারা দেশে আসলে এই বাড়িতেই আমাদের সাথে থাকেন। হোয়াইট হাউজে চাকরির খবরটা টেলিফোনে আমাদের জানিয়েছেন জাইনের বাবা। গর্বে আমাদের বুকটা ভরে গেছে খবরটি শুনে।

বাবা-মার সঙ্গে জাইন সিদ্দিকী

জাইনের চাচি বিমলা খাতুন ও লুৎফুন্নাহার বলেন, সবশেষ ২০১৬ সালে বাবার সঙ্গে জাইন গ্রামের বাড়িতে এসেছিলেন। তখন আমাদের আধাপাকা টিনশেড বাড়িতেই সাধারণভাবে থেকেছেন। তখন আমাদের রান্না করা টাকি মাছের ভর্তা, লাউ শাক, ছোট মাছ, দেশি মুরগি ও মাষকলাইয়ের ডালসহ পিঠাপুলি বানিয়ে খাইয়েছি। এছাড়াও বাড়ির পাশের নরসুন্দা নদীতে নৌকায় করে ঘুরে বেড়িয়েছেন ও আনন্দ ফুর্তি করেছেন।

তারা বলেন, এর আগেও আরও দুইবার বাবা, মা ও দাদির সঙ্গে গ্রামের বাড়ি বেড়াতে আসেন জাইন। তারা যখন গ্রামে আসেন তখন সবাই তাদের দেখতে আসেন আমাদের বাড়িতে। যতদিন থাকে বাড়িতে ঈদের দিনের মত আনন্দ-ফুর্তি হয়।

জাইন সিদ্দিকী

এদিকে, মাদারীনগর গ্রামেই জাইনের বাবা-চাচা-ফুফুরা মিলে করছেন একটি হাফিজিয়া মাদরাসা। যেখানে পড়ছে ১২০ জন দরিদ্র ও এতিম শিশু। যা পরিচালিত হচ্ছে তাদের দেয়া অর্থেই।

মাদরাসার প্রধান হাফেজ মাওলানা মো. আল আমিন জানান, মাহবুব সিদ্দিকিয়া নূরানি হাফিজিয়া মাদরাসাটি জাইনের চাচা মাহবুব সিদ্দিকীর নামে। প্রতিষ্ঠা করেছেন দাদা আবু বক্কর সিদ্দিকী। এলাকার গর্ব জাইন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের ডেপুটি চিফ অব স্টাফের সিনিয়র অ্যাডভাইজার হওয়ার খবরটি জানানোর পর মাদরাসায় কোরআন খতমের পাশাপাশি গত শুক্রবার জুমার নামাজের পর মসজিদে মিলাদ পড়িয়ে মুসল্লি-শিশুসহ গ্রামের মানুষকে মিষ্টিমুখ করানো হয়েছে।

জাইন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের ডেপুটি চিফ অব স্টাফ হিসেবে নিয়োগ পাওয়ায় গ্রামের মানুষকে মিষ্টিমুখ করানো হয়

জানা গেছে, জাইন সিদ্দিকীর বেড়ে ওঠা যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে। প্রিন্সটন ইউনিভার্সিটি ও ইয়েল ল স্কুল থেকে গ্র্যাজুয়েশন সম্পন্ন করা জাইন বর্তমানে বাইডেন-কমলা ট্রানজিশন টিমে অভ্যন্তরীণ ও অর্থনৈতিক টিমের চিফ অব স্টাফ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি গত বছর কমলা হ্যারিসের ভাইস প্রেসিডেনশিয়াল বিতর্কের প্রস্তুতি টিমের সদস্য ছিলেন। এর আগে তিনি বেটো ও’রোরকের প্রেসিডেনশিয়াল প্রচার দলের ডেপুটি পলিসি ডিরেক্টর ছিলেন। তিনি সিনেট ক্যাম্পেইন টিমের সিনিয়র পলিসি অ্যাডভাইজার হিসেবেও কাজ করেছেন। মার্কিন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি এলেনা কাগান, ডিসি সার্কিটির আপিল আদালতের বিচারক ডেভিড ট্যাটেল ও ডিস্ট্রিক্ট কোর্ট ফর দ্য সেন্ট্রাল ডিস্ট্রিক্ট অব ক্যালিফোর্নিয়ার বিচারক ডিন প্রেগের সনের অধীনে ল ক্লার্ক হিসেবেও কাজ করেছেন জাইন।