পোস্টার অপসারণে নামলেন নবনির্বাচিত মেয়র আতিক

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
পোস্টার সরানোতে ব্যস্ত নবনির্বাচিত মেয়র আতিক, ছবি: সংগৃহীত

পোস্টার সরানোতে ব্যস্ত নবনির্বাচিত মেয়র আতিক, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

পরিচ্ছন্ন নগরী ঘোষণার প্রথম ধাপ শুরু করলেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের নব নির্বাচিত মেয়র আতিকুল ইসলাম আতিক। নিজেই কর্মী সমর্থকদের নিয়ে নির্বাচনী পোস্টার অপসারণে নেমেছেন তিনি।

সোমবার (৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে রাজধানীর বনানী এলাকার ১৪ নম্বর রোডে দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে নির্বাচনের পোস্টার অপসারণ শুরু করেন তিনি।

ঢাকা সিটি করপোরেশনের নবনির্বাচিত মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, অবশ্যই সিটি করপোরেশন করবে, আমরা নিজেরা যদি করি তবে কাজটা দ্রুত শেষ হয়ে যাবে। আমরা সবাই পরিষ্কার আকাশ দেখতে চাই, অনুরোধ করব আমরা যদি যে যার পোস্টারগুলো নামিয়ে ফেলি তবে কাজটা তরান্বিত হবে।

আতিকুল বলেন, তাছাড়া 'বিলবোর্ড' করে লাভ নাই, মানুষের হৃদয় জিততে হলে 'দিলবোর্ড' করতে হবে।

এর আগে গতকাল রোববার (২ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে বনানী নির্বাচনী কার্যালয়ে সিটি নির্বাচনের ফলাফল পরবর্তী প্রতিক্রিয়ায় জানাতে গিয়ে আতিকুল ইসলাম বলেছিলেন, আগামী তিন দিনের মধ্যে ডিএনসিসি এলাকা পোস্টার মুক্ত করা হবে। আমাদের নিজেদের কর্মী মাঠে নামিয়ে দেব। এরইমধ্যে কাজ শুরু হয়েছে। আগামী তিন দিনের মধ্যে ডিএনসিসি পোস্টার মুক্ত করা হবে। আগামীকাল, পরশুর মধ্যে পোস্টার নামানো হবে। পলিথিনে মোড়ানো পোস্টারগুলো রিসাইকেলিং করা হবে। যারা পোড়াচ্ছেন তাদের প্রতি অনুরোধ কেউ পোড়াবেন না, আমরা এগুলো রিসাইকেলিং করব।

নেতাকর্মীদের নিয়ে পোস্টার অপসারণ করছেন মেয়র আতিক
নেতাকর্মীদের নিয়ে পোস্টার অপসারণ করছেন মেয়র আতিক

প্রসঙ্গত, গত ১ ফেব্রুয়ারি ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী হিসেবে বিজয়ী হন আতিকুল ইসলাম। ‘সবাই মিলে সবার ঢাকা, সুস্থ, সচল আধুনিক ঢাকা’ গড়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে মেয়র পদে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী করা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী বিএনপি মনোনীত প্রার্থী তাবিথ আউয়ালকে বিপুল ভোটের ব্যবধানে হারিয়ে জয়লাভ করেন তিনি।

ডিএনসিসি নির্বাচনে মোট এক হাজার ৩১৮টি কেন্দ্রের সবকটির ঘোষিত ফলাফল অনুযায়ী, নৌকা প্রতীকের আতিকুল ইসলাম পেয়েছেন ৪ লাখ ৪৭ হাজার ২১১ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী তাবিথ আউয়াল পেয়েছেন ২ লাখ ৬৪ হাজার ১৬১ ভোট।

আপনার মতামত লিখুন :