১৫ দিনের মধ্যেই দাম কমবে পেঁয়াজের: কৃষিমন্ত্রী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক

কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক

  • Font increase
  • Font Decrease

বাজারে নতুন পেঁয়াজ আসলে আগামী ১৫ দিনের মধ্যেই দাম কমবে বলে জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক। তিনি বলেন, ১৫ দিন পর বাজারে পেঁয়াজ নামলে তাৎক্ষণিক সমস্যা সমাধান হয়ে যাবে। তখন পেঁয়াজের দাম কমে যাবে।

বুধবার (৪ মার্চ) কৃষি মন্ত্রণালয়ে নিজ দফতরে বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল মিলারের নেতৃত্বে ৬ সদস্য প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠক শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, পেঁয়াজের দামতো এখনও কমে নাই। আমরা পর্যবেক্ষণ করছি। সমস্যা হলো বাংলাদেশ প্রাকৃতিক দুর্যোগের দেশ। গতকালকেই ফরিদপুরে বৃষ্টি হয়েছে। এই ফাল্গুন মাসেও শিলা বৃষ্টি এটা কি চিন্তা করা যায়। আমাদের সচিবসহ সকলেই খোঁজখবর নিয়েছি। এতে দেখা গেছে পেঁয়াজের ভালো ক্ষতি হয়েছে। এই পেঁয়াজ আরও ১৫ থেকে ২০ দিন পড়ে উত্তোলন হবে। তারপরও আমরা খুবই আশাবাদী এবছর ভালো পেঁয়াজ উৎপাদন হবে।

তিনি বলেন, এবছর অনেক এলাকাতে পেঁয়াজ উৎপাদন করা হয়েছে। এছাড়া নতুন জাতের পেঁয়াজ উদ্ভাবন করা হয়েছে। যা মাঠ পর্যায়ে চাষাবাদ হলে পেঁয়াজের কোনো সমস্যা থাকবে না।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, আমরা আগে বার বার ধানের কথা বলেছি। এখন যেমন ধানে আমরা স্বয়ংসম্পূর্ণ ইনশাল্লাহ পেঁয়াজেও আমরা নতুন জাত দিয়ে উৎপাদন ডাবল না হলেও কাছাকাছি হবে। আগে যেখানে প্রতি হেক্টরে ১০ থেকে ১১ টন হতো এখন নতুন জাতের পেঁয়াজে সেখানে ১৮ থেকে ১৯ টন হবে।

তাৎক্ষণিক সমস্যা সমাধান হবে কি না জানতে চাইলে কৃষিমন্ত্রী বলেন, তাৎক্ষণিক সমস্যাতো সমাধান হয়েই যাবে ১৫ থেকে ২০ দিন পর বাজারে পেঁয়াজ নামলে তখন দাম কমে যাবে। তখন আবার চাষিরা দাম পাবে না। এ বিষয়ে গত কেবিনেট বৈঠকে আলোচনা হয়েছে। বৈঠকে বাণিজ্যমন্ত্রী জানতে চেয়েছিল আমরা কি করছি। আমরা জানিয়েছি চাষিদের কাছ থেকে আশানুরূপ সাড়া পেয়েছি উৎপাদন যথেষ্ট বেড়েছে। আশা করছি পেঁয়াজ নিয়ে সমস্যা হবে না।

তিনি বলেন, কেবিনেট বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ জানিয়েছি কৃষকরা যাতে ন্যায্য দাম পায় এজন্য উত্তোলন মৌসুমে পেঁয়াজ আমদানি যেন বন্ধ করা হয়। এসময় ভারতের পেঁয়াজ এসে যেন বাজার ভাসিয়ে না দেয়। যাতে আমাদের চাষিরা ভালো দাম পায়। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এ ব্যপারে যথেষ্ট সজাগ।

এবিষয়ে প্রধানমন্ত্রী কি নির্দেশনা দিয়েছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বৈঠকে জানানো হয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়গুলোর সঙ্গে আলোচনা করে ব্যবস্থা নিতে হবে। আর সকলকে সতর্ক থাকতে বলেছে। যদি আমাদের ভালো পেঁয়াজ উঠে তাহলে চাষিদের স্বার্থটা দেখতে হবে।

কোন মাস থেকে পেঁয়াজ উত্তোলন শুরু হবে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এ মাসের শেষ দিকে অথ্যাৎ ১৫ থেকে ২০ দিন পরে উত্তোলন শুরু হবে। তখন আমরা দেখবো কোন প্রাকৃতিক দুর্যোগ হলো কিনা। যেমন গতকাল শিলা বৃষ্টি হলো এ মাসেতো কখনো বৃষ্টি হয় না। এটা জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :