‘ভয় নেই, পাশে আছি’



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার সারাদেশে ‘সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা’ কর্মসূচি পালন করেছে আওয়ামী লীগ।

সমাবেশ থেকে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের পাশে থাকার প্রত‌্যয় ব‌্যক্ত করে দলটির নেতারা বলেছেন, ভয় নেই, পাশে আছি; সাম্প্রদায়িক অপশক্তির শেকড় উপড়ে ফেলা হবে।

মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে ‘সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা’ করে দলটির কেন্দ্রীয় ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

সমাবেশে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, আজকে মন্দিরে হামলা, প্রতিমা ভাঙচুর-এগুলো ২০০১ সালে বিএনপি সরকার যে নির্যাতন চালিয়েছিল, তার পুনরাবৃত্তি। আবার নতুন করে সম্প্রাদায়িক হামলা-সন্ত্রাস শুরু করেছে।শেখ হাসিনা সরকারের আমলে প্রত্যেকটি দুর্গাপূজায় হাজার হাজার পূজামণ্ডপে পূজা চলেছে। কোনো ঘটনা ঘটেনি। হঠাৎ আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে হিন্দুদের বাড়িঘরে হামলা শুরু হয়েছে।

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টকারীদের উদ্দেশ‌্য করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আওয়ামী লীগ রাজপথ ছাড়ে নাই। সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে শেখ হাসিনার নির্দেশে সারা বাংলাদেশে আজ সম্প্রীতি সমাবেশ হচ্ছে, শান্তিপূর্ণ শোভাযাত্রা হচ্ছে। আওয়ামী লীগ রাজপথে আছে। যতদিন না এই সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিষদাঁত আমরা ভেঙে দিতে পারব, ততদিন পর্যন্ত আওয়ামী লীগ রাজপথে থাকবে রাস্তায় থাকবে।

প্রতিবেশী দেশ ভারতে মুসলমান আছে, তাদের জানমালের কথা ও আমাদেরকে ভাবতে হবে। হিন্দুদের বাড়িঘরে হামলা এবং সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের যে উসকানি দেওয়া হচ্ছে ,তাতে ভারতের একটা বড় অংশ মুসলমানদের জীবনকেও বিপন্ন করে ফেলছে।

সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে মোকাবিলা করে তাদের সমুচিত জবাব দিতে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা প্রস্তুত আছে জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, আন্দোলনে ব্যর্থ, নির্বাচনে ব্যর্থ, বিএনপি আজ সাম্প্রদায়িক শক্তিকে উস্কে দিয়ে সাম্প্রদায়িকতার বিষবাষ্প ছড়াচ্ছে।

এ সময় সনাতন ধর্মাবলম্বীদের উদ্দেশ‌্য করে তিনি বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধভাবে আমরা এর প্রতিরোধ করবো। হিন্দু ভাইদের বলব আপনাদের ভয় নাই শেখ হাসিনা আপনাদের সাথে আছে আওয়ামী লীগ আপনাদের সাথে আছে।

আওয়ামী লীগসভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, সাম্প্রদায়িক এই হামলায় যারাই জড়িত কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। এরই মধ‌্যে সরকার খুব কঠোর হাতে পদক্ষেপ নিতে শুরু করেছে। অসাম্প্রদায়িক এই বাংলাদেশে কোনো সাম্প্রদায়িক অপশক্তি মাথাচারা দিয়ে উঠতে পারবে না।

বঙ্গবন্ধু এভিনিউ থেকে শোভাযাত্রা শুরু হয়ে জিরোপয়েন্ট, শিক্ষাভবন, দোয়েলচত্ত্বর হয়ে
কেন্ত্রীয় শহীদ মিনারে গিয়ে শেষ হয়।

এ সময় আওয়ামী লীগ সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আব্দুর রহমান বলেন, তারা জানে যে ভোটের এই সরকারকে পরাজিত করতে পারবে না। এজন‌্য এই ধর্মীয় উন্মাদনা সৃষ্টি করে ষড়যন্ত্রের জাল বুনছে। মুক্তিযুদ্ধের সকল শক্তিকে সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে লড়াই করতে হবে।

দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, সম্প্রীতি নষ্ট করার লক্ষ‌্যে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বাড়িঘর উপাসনালয়ে হামলা চালিয়েছে। আওয়ামী লীগ এই অপশক্তির বিরুদ্ধে সারাদেশে সতর্ক রয়েছে। যতোদিন এই অপশক্তিকে উৎখাত না হয়।

এ সময় আওয়ামী লীগ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুল উল আলম হানিফ, সাংগঠনিক সম্পাদক বি এম মোজাম্মেল হক, এস এম কামাল হোসেন, বন ও পরিবেশ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, উপ দপ্তর সম্পাদক সায়েম খান, কেদ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস‌্য শাহাবুদ্দিন ফরাজী, আব্দুল আওয়াল শামীম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও দলটির সহযোগী সংঘটনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন