টস জিতে বোলিংয়ে কুমিল্লা, ব্যাটিংয়ে সিলেট



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স-সিলেট সানরাইজার্স

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স-সিলেট সানরাইজার্স

  • Font increase
  • Font Decrease

বিপিএলে সিলেট সিক্সার্সের বিপক্ষে টস জিতে ফিল্ডিং বেছে নিয়েছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। তাই তো টস হেরে শুরুতে ব্যাট হাতে মাঠে নেমেছে সিলেট।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স একাদশ: ইমরুল কায়েস (অধিনায়ক), ফাফ ডু প্লেসিস, মুমিনুল হক, আরিফুল হক, মাহিদুল ইসলাম অঙ্কন, শহীদুল ইসলাম, নাহিদুল ইসলাম, তানভীর ইসলাম, ক্যামেরন ডেলপোর্ট, করিম জানাতে ও মুস্তাফিজুর রহমান।

সিলেট সানরাইজার্স একাদশ: মোসাদ্দেক হোসেন (অধিনায়ক), মোহাম্মদ মিঠুন, কলিন ইনগ্রাম, এনামুল হক, নাজমুল ইসলাম, রবি বোপারা, সোহাগ গাজী, অলোক কাপালি, কেসরিক উইলিয়ামস, মুক্তার আলী ও তাসকিন আহমেদ। 

সাফল্যের নেপথ্যের কাহিনী গোপনই রাখলেন লিটন



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
লিটন দাস

লিটন দাস

  • Font increase
  • Font Decrease

আগের চেয়ে পুরোই বদলে গেছেন লিটন দাস। মাঠে নামলে নিয়মিত হাসছে তার ব্যাট। বইয়ে দিচ্ছেন রানের বন্যা। শ্রীলঙ্কার মধ্যকার ঢাকা টেস্টেও খেলেছেন ক্যারিয়ার সেরা ১৪১ রানের অনন্য এক ক্রিকেটীয় ইনিংস।

অথচ কয়েক মাস আগেও ব্যাটিং অফ ফর্মের জন্য কত কটু কথাই না শুনতে হতো লিটনকে। হঠাৎ এত পরিবর্তন হলো কি করে? এমন দাপুটে সাফল্যের রহস্যটা কি? সংবাদ সম্মেলনে ব্যাপারটা উঠতেই সাফল্যের নেপথ্যের কাহিনী গোপনই রাখলেন লিটন। 

লিটন কেবল অনুশীলনে পরিবর্তন আনার বিষয়টাই বললেন। বাকিটা রাখলেন লুকিয়ে, ‘আপনারা এটা ভালো বলতে পারবেন। আমার কাছে মনে হয় আমি অনুশীলন প্রক্রিয়ায় পরিবর্তন এনেছি। এটা কীভাবে বিশ্লেষণ দিব? মানে আমি কীভাবে বিশ্লেষণ করবো কি ধরণের মেথড পরিবর্তন করেছি। আপনিতো বুঝবেনও না কোন প্র্যাকটিস কেমন। আমি তো বিশ্লেষণ দিতেও পারবো না।’

মূল রহস্যটা মনের ভিতরেই রাখলেন লিটন, ‘খুবই কঠিন এ জিনিসটা (বলা)। কি কি করি না বা কি কি পরিবর্তন হয়েছে। আমার কাছে মনে হয় আমার প্র্যাকটিস মেথড পরিবর্তন হয়েছে এটা আমি বলতে পারি, কিন্তু কি কি পরিবর্তন হয়েছে সেটা আমি বলতে পারবো না। কীভাবে সফল হচ্ছি বা কেন হচ্ছি এ জিনিসটা আমার ভেতরে থাক।’

খারাপ খেললে সমালোচনা হবেই। ক্রিকেট ক্যারিয়ারের এই বিষয়টি স্বাভাবিক বলেই মানেন লিটন। যে কারণে সমালোচনা এখন আর তারকা এ উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যানকে কাবু করতে পারে না, ‘সমালোচনা হবেই। জীবন যেহেতু ক্রিকেটের সঙ্গে জড়িয়ে গেছে, ভালো খেললে আপনারা বাহবা দেবেন, জনগণ বাহবা দিবে, আবার খারাপ খেললে ঠিক উল্টোটা হবে। কারণ তারা চায় আমি পারফর্ম করি। এই জিনিসটা আমার ওপর এখন আর প্রভাব ফেলে না।’

;

হোটেল কক্ষে নারী অতিথি! মিশারাকে শ্রীলঙ্কায় ফেরত পাঠাল দল



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
কামিল মিশারা

কামিল মিশারা

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশের বিপক্ষে শ্রীলঙ্কার টেস্ট সিরিজ এখনও শেষ হয়নি। চলছে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট। কিন্তু তারপরও নিয়ম ভঙ্গের অভিযোগে দেশে ফিরতে হলো লঙ্কান ক্রিকেটার কামিল মিশারাকে।

আজ মঙ্গলবার লঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড জানিয়েছে, ‘শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড কামিল মিশারাকে দেশে ফিরিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তার বিরুদ্ধে সফরের নিয়ম ভঙ্গের অভিযোগ উঠেছে। তিনি এখন শ্রীলঙ্কা দলের বাংলাদেশ সফরে আছেন। তাকে দ্রুততার সঙ্গে দেশে ফিরিয়ে আনা হবে। তিনি দেশে ফেরার পর বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করা হবে।’

বাংলাদেশ সফরে আসা ১৮ সদস্যের লঙ্কান দলে ছিলেন কামিল মিশারা। তবে চট্টগ্রামের পর ঢাকা টেস্টের একাদশেও জায়গা পাননি তিনি। এরই মধ্যে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে সিরিজ চলাকালীন এই ক্রিকেটারকে দেশে পাঠিয়ে দিয়েছে সফরকারী দল।

শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বিস্তারিত না জানালেও সংবাদ সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, মিশারা টিম হোটেলে নিজের কক্ষে ‘অতিথি’ আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন। যা দলীয় আচরণবিধির পরিপন্থি। শোনা যাচ্ছে, ব্যাপারটা নারী ঘটিত। তার কক্ষে গিয়েছিলেন একজন নারী অতিথি। সেই অপরাধেই মিশারাকে দেশে পাঠিয়ে দিয়েছে লঙ্কান টিম ম্যানেজমেন্ট।

;

রান পাহাড়ের দিকে ছুটছে শ্রীলঙ্কা



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
এবাদত হোসেনের উইকেট উদযাপন

এবাদত হোসেনের উইকেট উদযাপন

  • Font increase
  • Font Decrease

মুশফিকুর রহিমের বীরত্বের পর ব্যাট হাতে দাপট দেখিয়েছে শ্রীলঙ্কা। শুরুটাও ছিল তাদের দারুণ। উদ্বোধনী জুটিতেই তারা তুলে ফেলে ৯৫ রান। তওব ওপেনিং পার্টনারশিপ ভাঙার আগেই ফিফটি করে বসেন ওপেনার ওশাদা ফার্নান্দো। ৯১ বলে ৮ বাউন্ডারি ও এক ছক্কায় ৫৭ রান নিয়ে এবাদত হোসেনের বলে নাজমুল হোসেন শান্তর হাতে উইকেট সঁপে দেন ওশাদা।

তবে দ্বিতীয় দিন শেষে অপরাজিত থেকে যান ক্যাপ্টেন দিমুথ করুনারত্নে। অর্ধ-শতক হাঁকিয়ে লঙ্কান এ তারকা ওপেনার ছুটে চলেছেন সেঞ্চুরির পথে। ১২৭ বলে ৭ বাউন্ডারির মারে ৭০* রানের দুরন্ত এক ইনিংস খেলে ব্যাটিং লড়াইটা চালিয়ে যাচ্ছেন করুনারত্নে। 

ওশাদা ফার্নান্দো ও দিমুথ করুনারত্নের ব্যাটিং নৈপুণ্যে দ্বিতীয় দিন শেষে প্রথম ইনিংসে ২ উইকেট হারিয়ে ১৪৩ রান সংগ্রহ করেছে শ্রীলঙ্কা। সফরকারীরা এখনো ২২২ রানে পিছিয়ে।

করুনারত্নেকে সঙ্গ দিয়ে যাচ্ছেন নাইটওয়াচ ম্যান কাসুন রাজিথা। তিনি অবশ্য এখনো রানের খাতের খুলতে পারেননি। তার আগে সাকিব আল হাসানের এলবিডব্লিউ’র ফাঁদে পড়ে উইকেট থেকে বিদায় নিয়েছেন কুসল মেন্ডিস। ফেরার আগে দলীয় স্কোরে তিনি যোগ করে যান ১১ রান।

বাংলাদেশের হয়ে অতিথি শিবিরের ব্যাটিং লাইন-আপে প্রথম আঘাত হানেন পেসার এবাদত হোসেন। বাঁ-হাতের ঘূর্ণি জাদুতে বাকি উইকেটটি নেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।

তারআগে মুশফিকুর রহিম ও লিটন দাসের ব্যাটিং দৃঢ়তায় বাংলাদেশ প্রথম ইনিংসে গড়েছে ৩৬৫ রানের পুঁজি।

;

মুশফিকের দ্বিশতক মিস, বাংলাদেশ থামল ৩৬৫ রানে



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
মুশফিকুর রহিম

মুশফিকুর রহিম

  • Font increase
  • Font Decrease

প্রথম দিনের দাপুটে ব্যাটিং ফর্মটা দ্বিতীয় দিনেও বইয়ে নিয়ে গেছেন মুশফিকুর রহিম। দেড়শ রান পেরিয়ে এগিয়ে যাচ্ছিলেন ডাবল সেঞ্চুরির দিকে। তবে ইনিংস থেমে যাওয়ায় মিস করেন ডাবল সেঞ্চুরি। ৩৫৫ বলে ২১ বাউন্ডারিতে খেলেন হার না মানা ১৭৫* রানের দুরন্ত এক ইনিংস।

মুশফিকের সঙ্গে আগের দিন সেঞ্চুরি হাঁকানো লিটন দাস অবশ্য বেশি দূর আগাতে পারেননি। ২৪৬ বলে ১৬ বাউন্ডারি ও ১ ছক্কায় ১৪১ রানের অসাধারণ এক ক্রিকেটীয় ইনিংস খেলে কাসুন রাজিথার বলে কুসল মেন্ডিসের হাতে ধরা পড়েন। এতে ষষ্ঠ উইকেটে ২৭২ রানে থামে মুশফিক লিটনের রেকর্ড গড়া জুটি।

মিরপুরের শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে মুশফিক-লিটনের ব্যাটিং দৃঢ়তায় দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম ইনিংসে সবকটি উইকেট হারিয়ে ৩৬৫ রানের পুঁজি গড়েছে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা।

মোসাদ্দেক হোসেন আবারও হতাশ করেছেন। তিন বল খেলে রাজিথার বলে নিরোশান ডিকভেলার গ্লাভস ধরা পড়েন এ অলরাউন্ডার। পেসার খালেদ আহমেদ ও ফিরে গেছেন কোনো রান না পেয়ে। 

শেষ দিকে মুশফিককে খানিকটা সঙ্গ দিয়েছেন কেবল তাইজুল ইসলাম। তারকা এ স্পিনার ৩৭ বলে ২ বাউন্ডারিতে ১৫ যোগ করেছেন তিনি দলীয় স্কোরে। 

লঙ্কানদের হয়ে ২৭ ওভারে ৬২ রান করে ৫ উইকেট শিকার করেন কাসুন রাজিথা। ২৬ ওভারে ৯৩ রান নিয়ে ৪ উইকেট নেন আসিথা ফার্নান্দো।

তার আগে ৫ উইকেটে ২৭৭ রান নিয়ে চতুর্থ দিনের খেলা শুরু করে বাংলাদেশ। মুশফিক প্রথম দিন শেষে ১১৫ রানে অপরাজিত থেকে যান। ১৩৫ রান নিয়ে তাকে সঙ্গ দিয়ে অবিচ্ছেদ্য থেকে যান লিটন দাস।

;