ইমরুল-আরিফুলের জোড়া সেঞ্চুরিতে মোহামেডানের জয়



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা ২৪
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগে ইমরুল কায়েস এবং আরিফুল হকের জোড়া সেঞ্চুরিতে জয় পেয়েছে মোহামেডান। রূপগঞ্জ টাইগার্সকে ৮৪ রানে হারিয়ে টানা দ্বিতীয় জয় তুলে নিয়েছে তারা।

দিনের অন্য দুই ম্যাচে সিটি ক্লাবকে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ এবং পারটেক্স স্পোর্টিং ক্লাবকে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স সমান ৫ উইকেটে হারিয়ে দিয়েছে।

ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলি স্টেডিয়ামে টস হেরে আগে ব্যাট করতে হয় মোহামেডানকে। টপ অর্ডারের অন্য ব্যাটাররা দুই অঙ্কের ঘোর না ছুঁতে পারলেও সেঞ্চুরি করে দলকে লড়াকু সংগ্রহের পথে এগিয়ে দেন ইমরুল। চতুর্থ উইকেটে আরিফুলের সঙ্গে ১৭৬ রানের জুটি গড়ে তোলেন ইমরুল।  সালমান হোসেনের বলে বোল্ড হওয়ার আগে ১০৬ রান আসে ইমরুলের ব্যাটে। আরিফুল হাল ছাড়েননি, দলকে ২৬৬ রানের চ্যালেঞ্জিং সংগ্রহ এনে দিয়েই তবে ব্যাট উঁচিয়ে মাঠ ছাড়েন। ১০৬ বলে ৯ চার এবং ৪ ছক্কায় আরিফুল করেন ১১৫ রান।

২৬৭ রান তাড়া করতে নেমে পুরো ৫০ ওভার ব্যাট করেও ১৮২ রানের বেশি করতে পারেনি রূপগঞ্জ টাইগার্স। ওপেনার মাহফিজুর রহমান ৭৮ রান করলেও বাকি ব্যাটাররা নিজেদের মেলে ধরতে না পারায় বড় হারের মুখ দেখতে হয় তাদের।

মোহামেডানের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪ উইকেট নেন পেসার আবু হায়দার রনি। ব্যাট হাতে দুরন্ত আরিফুলের হাতে ওঠে ম্যাচসেরার পুরস্কার।

বিকেএসপির চার নম্বর মাঠে দিনটা ছিল বোলারদের। টসে হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে মোটেই সুবিধা করতে পারেনি পারটেক্স। ৩৮.৫ ওভারে ১৩০ রান তুলতেই সব উইকেট হারিয়ে বসে তারা। দলটির পক্ষে সর্বোচ্চ ৩২ রান করে আসে আজমির আহমেদ এবং রাজিবুল ইসলামের ব্যাটে। বল হাতে পারটেক্সের ব্যাটারদের জন্য ত্রাস হিসেবে উপস্থিত হন গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সে খেলা যুব এশিয়া কাপজয়ী অধিনায়ক মাহফুজুর রাব্বি। পারটেক্সের ৪ উইকেট তুলে নিতে খরচ করেন মোটে ২৫ রান, ৩ উইকেট যায় জয়নুল ইসলামের ঝুলিতে।

জবাব দিতে নেমে অধিনায়ক মেহেদী মারুফের অপরাজিত ৫৯ রানের ইনিংসে ৩২.১ ওভারেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স। দুর্দান্ত বোলিং পারফরম্যান্সে ম্যাচসেরা হন রাব্বি।

বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ বনাম সিটি ক্লাব ম্যাচেও দাপট দেখিয়েছেন বোলাররা। টসে জিতে আগে সিটি ক্লাবকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ। সিটি ক্লাবের ওপেনার সাদিকুর রহমানের ৯৬ রানের ইনিংসের পরও অন্য ব্যাটারদের ব্যর্থতায় ৪৬.২ ওভারে ১৮৭ রানে অলআউট হয় দলটি।

চারটি করে উইকেট নিয়ে সিটি ক্লাবকে দুইশর আগে রুখে দিতে ভূমিকা রাখেন আলাউদ্দিন বাবু এবং আব্দুল হালিম।

জবাব দিতে নেমে পাঁচ উইকেট হাতে রেখেই ৩৭.১ ওভারেই লক্ষ্য ছুঁয়ে ফেলে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ। সাদমান ইসলামের অপরাজিত ৯১ রানের ইনিংসে ভর করে টানা দ্বিতীয় জয়ের দেখা পায় মুমিনুল হকের দল।

   

এল ক্লাসিকো ছাড়াও টিভিতে যা থাকছে আজ



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

সুপার সানডেতে লা লিগায় আজ মাঠে নামছে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সেলোনা। রাত ১টায় শুরু হবে ম্যাচটি। এছাড়াও টিভিতে যা যা থাকছে।

আইপিএল

কলকাতা–বেঙ্গালুরু

বিকেল ৪টা, স্টার স্পোর্টস ১, গাজী টিভি ও টি স্পোর্টস

পাঞ্জাব–গুজরাট

রাত ৮টা, স্টার স্পোর্টস ১, গাজী টিভি ও টি স্পোর্টস

৩য় টি–টোয়েন্টি

পাকিস্তান–নিউজিল্যান্ড

রাত ৮টা ৩০ মিনিট, জিও সুপার ও এ স্পোর্টস

এফএ কাপ (সেমিফাইনাল)

কভেন্ট্রি–ম্যান ইউ

রাত ৮টা ৩০ মিনিট, সনি স্পোর্টস টেন ২

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ

এভারটন–নটিংহাম

সন্ধ্যা ৬টা ৩০ মিনিট, স্টার স্পোর্টস সিলেক্ট ১

অ্যাস্টন ভিলা–বোর্নমাউথ

রাত ৮টা, স্টার স্পোর্টস সিলেক্ট ২

ফুলহাম–লিভারপুল

রাত ৯টা ৩০ মিনিট, স্টার স্পোর্টস সিলেক্ট ১

বুন্দেসলিগা

ডর্টমুন্ড–লেভারকুসেন

রাত ৯টা ৩০ মিনিট, সনি স্পোর্টস টেন ৫

লা লিগা

রিয়াল মাদ্রিদ–বার্সেলোনা

রাত ১টা, র‍্যাবিটহোল ও স্পোর্টস ১৮–১

;

দৌড়ে প্রথম হয়ে বোল্ট স্টাইলে উদযাপন নাহিদ রানার



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা ২৪
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

দৌড়ে গ্রুপে প্রথম হয়ে উসাইন বোল্টের স্টাইলে নাহিদ রানার উদযাপন। বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামের অ্যাথলেটিকস ট্র্যাকে শনিবার ছিলো জাতীয় দলের পুলে থাকা ক্রিকেটারদের ফিটনেস টেস্ট। মোট ৩৫ জন ক্রিকেটার সকাল ছয়টায় হাজির বঙ্গবন্ধু জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। চোটের কারণে ছিলেন না তাইজুল-সৌম্য। দেশের বাইরে আছেন সাকিব। মুস্তাফিজ আইপিএলে। আর তাসকিন রেস্টে ছিলেন টানা খেলার ধকল সামলাতে।

এদিন ক্রিকেটাররা দুই ভাগে ভাগ হয়ে ১৬০০ মিটার দৌঁড়েছেন এবং দিয়েছেন ৪০ মিটার স্প্রিন্ট। যেখানে সেরা দুই গ্রুপের দুই সেরা দুই পেসার তানজিম সাকিব এবং নাহিদ রানা। জুনিয়র সাকিব যেখানে প্রথম হয়েছেন সেখানে তার পরেই ফিনিশিং লাইন স্পর্শ করেন মুশফিক। অন্য গ্রুপে দ্বিতীয় সেরা মেহেদী মিরাজ। তবে সবার পেছনে থেকে শেষ করেছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। একই পরিনতি শামীম পাটোয়ারিরও। তিনিই তার গ্রুপের স্লোয়েস্ট।

সবসময় মিরপুরের সবুজ ঘাসে এই ধরনের টেস্ট কিংবা ক্যাম্প করানো হলেও টাইগারদের নতুন স্ট্রেংথ অ্যান্ড কন্ডিশনিং কোচ ন্যাথান কিলি দেখতে চেয়েছেন কার ফিটনেসের কী অবস্থা। তাই তার চাওয়া অনুযায়ী অ্যাথলেটিকস ট্র্যাকে জিপিএস ট্র্যাকার পরিয়ে এই টেস্ট নিয়েছেন তিনি। কিলির সঙ্গে বিসিবির দুই ট্রেনার মীর ইফতি খায়রুল ইসলাম ও তুষার কান্তি হাওলাদার কাছ থেকে তাদের পর্যবেক্ষণ করেন।

‘অ্যাথলেটিকস ট্র্যাক বেছে নেওয়ার কারণ আসলে টাইমিংয়ের একটা বিষয় আছে। আমরা যদি আন্তর্জাতিকভাবে টাইমিং দেখি, তাহলে বেশ কিছু পদ্ধতি আছে। আমরা আজ ১৬শ মিটার টাইম ট্রায়াল নিলাম। অ্যাথলেটিকস ট্র্যাকে যথাযথ টাইমিংটা পাব। কারণ ওভাবেই হিসেব করা হয়। এটা ক্রিকেটারদের কাছে নতুন মনে হয়েছে। সব মিলিয়ে ভালো।’

কিলির মিশন এখানেই শেষ না। এরপর মিরপুরের জিমে বিশেষ সেশনে অংশ নেবেন রিয়াদ-সাকিব-শান্তদের সাথে।

;

প্লে-অফ নিয়ে ধোঁয়াশা, আবাহনী-মেরিনার্স যা বলছে



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা ২৪
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

শুক্রবারের আবাহনী-মোহামেডান ম্যাচ দিয়েই প্রিমিয়ার হকির শিরোপার হিসাব নিষ্পত্তি হতে পারত। মোহামেডান জিতলেই শিরোপা যেত তাদের ঘরে। কিন্তু মারামারি, হট্টগোল আর মাঠ ছেড়ে যাওয়ার মতো ঘটনায় সে ম্যাচে ২-৩ ব্যবধানে এগিয়ে থেকেও ‘হারতে’ হয় মোহামেডানকে, জয়ী হয় আবাহনী। তাতে মেরিনার্সের সমান ৩৭ পয়েন্ট হয় আকাশি-হলুদদেরও।

লিগের বাইলজ অনুায়ী, দুই দলের পয়েন্ট সমান হলে প্লে-অফ ম্যাচের মধ্য দিয়ে চ্যাম্পিয়ন বেছে নেয়া হবে। আগামীকাল (রবিবার) সে প্লে-অফ ম্যাচ হওয়ার কথা ছিল। তবে আবাহনী এবং মেরিনার্স কেউই এখন প্লে-অফ ম্যাচটি খেলতে সম্মত নয়।

আবাহনীর যুক্তি, তাদের চারজন খেলোয়াড় বিমানবাহিনীর হয়ে ভারতে প্রীতি ম্যাচ খেলতে যাচ্ছে। মেরিনার্সের দুইজন খেলোয়াড়ও ভারতে যাচ্ছেন, এছাড়া দলটির বিদেশি খেলোয়াড়রাও যার যার দেশে ফিরে গেছেন। এমতাবস্থায় রবিবার (২১ এপ্রিল) এই ম্যাচ খেলা সম্ভব নয় বলে দুই ক্লাবই ফেডারেশনকে জানিয়ে দিয়েছে। ১ মে ভারত থেকে খেলোয়াড়রা ফেরার পর ম্যাচটি খেলতে আপত্তি নেই তাদের।

মেরিনার্সের সাধারণ সম্পাদক হাসান উল্লাহ খান অবশ্য সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘প্লে-অফটি বাতিল করে যৌথ চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করলে আমরা আপত্তি করবো না।’

এদিকে প্লে-অফ ইস্যুতে দুই ক্লাবের চিঠি দিয়ে আজ বৈঠকে বসার কথা ফেডারেশনের। এরপরই জানা যেতে পারে প্রিমিয়ার হকির শিরোপার ফয়সালা কীভাবে হবে।

;

ব্রাদার্সকে ধসিয়ে মোহামেডানের রেকর্ডগড়া জয়



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা ২৪
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

অবিশ্বাস্য মোহামেডান, উড়ন্ত সুলেমান দিয়াবাতে! ময়মনসিংহের রফিক উদ্দিন ভূঁইয়া স্টেডিয়ামে ইতিহাস গড়ল মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। গোপীবাগের ক্লাব ব্রাদার্স ইউনিয়নকে ৮-০ গোলের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে দিয়েছে সাদাকালোরা। একাই পাঁচ গোল করেছেন মোহামেডান অধিনায়ক সুলেমান দিয়াবাতে।

ময়মনসিংহে নিজেদের হোম ভেন্যুতে প্রথম বাঁশি থেকেই চলে মোহামেডানের দাপট। প্রথমার্ধেই তিন গোলের লিড পেয়ে যায় তারা। ৩৪ মিনিটে মুজাফফরভের অ্যাসিস্টে প্রথম ব্রাদার্সের জাল উন্মুক্ত করেন শাহরিয়ার ইমন।

প্রথমার্ধের শেষদিকে আরও দুই গোল যোগ করে ম্যাচের অর্ধেকটা বাকি থাকতেই মোহামেডানের জয় নিশ্চিত করে ফেলেন দিয়াবাতে।

৪৩ মিনিটে সানডে ইমানুয়েলের বানিয়ে দেয়া বল জালে পাঠিয়ে ম্যাচে প্রথম গোলের দেখা পান দিয়াবাতে। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে প্রথম গোলের কারিগর মুজাফফরভের অ্যাসিস্টে নিজের দ্বিতীয় ও দলের তৃতীয় গোল করেন মোহামেডান অধিনায়ক।

বিরতির পর কিছুটা আক্রমণাত্মক হয়ে খেলতে চায় ব্রাদার্স। মোহামেডানকে গোল শোধ করার তাড়ায় তেড়েফুঁড়ে খেলতে গিয়ে উল্টো তাদের নিজেদের রক্ষণই অরক্ষিত হয়ে পড়ে। সে সুযোগে ৬৮ মিনিটে নিজের হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন দিয়াবাতে। এর মিনিট চারেক পর পেয়ে যান নিজের চতুর্থ ও দলের পঞ্চম গোলের দেখা।

পাঁচ গোল হজমের পর অভিজ্ঞ ফরোয়ার্ড এলিটা কিংসলেকে মাঠে নামায় ব্রাদার্স। তবে তাতেও কাজ হয়নি। উল্টো মাঠে নামার দুই মিনিটের মধ্যেই জাল খুঁজে পান মোহামেডানের বদলি ফুটবলার জুয়েল মিয়া।

শেষ বাঁশির আগে ৮৭ মিনিটে টনি আগবাজি এবং ৮৯ মিনিটে দিয়াবাতে পঞ্চমবারের মতো ব্রাদার্সের গোলমুখ উন্মুক্ত করলে বিশাল এক জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে মোহামেডান।

নিজেদের ইতিহাসে এর আগে কেবল দুইবার ৮ গোলের ব্যবধানে জয় পায় মোহামেডান। ১৯৯৩-৯৪ মৌসুমে এশিয়ান কাপ উইনার্স কাপে নিউ রেডিয়েন্ট ও ১৯৯৬-৯৭ মৌসুমে একই টুর্নামেন্টে ইলেক্ট্রিসিটি দু লাওসকে একই ব্যবধানে হারিয়েছিল তারা। সেই স্মৃতি মনে করিয়ে আবারও প্রতিপক্ষকে ৮-০ গোলে হারানোর উৎসব করল তারা। ট্রান্সফারমার্কেটের তথ্য অনুযায়ী, ঘরোয়া ফুটবলে এখন পর্যন্ত এটাই তাদের রেকর্ড ব্যবধানে জয়ের কীর্তি।

এই জয়ে ১২ ম্যাচ থেকে ২৬ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে মোহামেডান। আর ৩ পয়েন্ট নিয়ে  টেবিলের তলানিতে ধুঁকছে ব্রাদার্স।

;