শিল্পকর্ম না টিভি?

টেক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

প্রযুক্তির ক্রমবিকাশে আমাদের ব্যবহৃত এমন অনেক কিছুরই আমূল পরিবর্তন এসেছে। হাত ঘড়ি থেকে শুরু করে টেলিফোন পর্যন্ত, এতে বাদ যায়নি টেলিভিশনও। সাদা-কালো থেকে রঙিন, ছোট থেকে বড়, মোটা থেকে সরু ব্যাপক পরিবর্তন এসেছে। তারই ধারাবাহিকতায় স্যামসাং তাদের ফ্রেম টিভির লঞ্চিং করেছে।

দক্ষিণ কোরিয়ার টেক জায়ান্ট স্যামসাংয়ের অত্যাধুনিক ফ্রেম টিভি আগামী সপ্তাহেই দক্ষিণ এশিয়ার অঞ্চলে লঞ্চিং হতে চলেছে।

স্যামসাংয়ের ফ্রেম টিভি লাইন আপ ২০২০ এর ছয়টি ভিন্ন সংস্করণ রয়েছে। এরমধ্যে সবচেয়ে বড় হচ্ছে ৭৫ ইঞ্চির বড় পর্দার ফ্রেম টিভি।

৫৫ ইঞ্চি ফ্রেম টিভির দাম হচ্ছে ১,৪৯৯ মার্কিন ডলার, ৬৫ ইঞ্চির দাম ১,৯৯৯ ডলার এবং ৭৫ ইঞ্চির দাম ২,৯৯৯ ডলার।

স্যামসাং ফ্রেম টিভি ২০২০ লাইন আপের মডেলগুলোতে থাকছে প্রিমিয়াম কোয়ালিটির আর্ট ওয়ার্কে আর্টমুড ফিচার। টিভি বন্ধ থাকা অবস্থায় চমৎকার সব নান্দনিক আর্ট ওয়ার্ক টিভির স্ক্রিনে সেট করা রাখা যাবে। এছাড়া স্যামসাং আর্ট স্টোর থেকে নতুন নতুন চিত্রকর্ম ডাউনলোড করা যাবে। তবে কেউ চাইলে তার নিজের শিল্পকর্মও টিভির স্ক্রিনে দিতে পারবে।

ফ্রেম টিভির মজার বিষয় হচ্ছে, দূর থেকে দেখলে মনে হবে ঘরের দেয়ালে কোনো এক শিল্পীর তুলি খচিত বাস্তব শিল্পকর্ম ঝুলে আছে কিন্তু আদতে তা একটি টিভি।

আসলে ঘরের দেয়ালে চিত্রকর্ম টানিয়ে রাখার চিন্তা থেকেই স্যামসাং তাদের এই টিভির নকশা করেছে। যা একটি বিশাল কোনো শিল্পীর আঁকা ক্যানভাসের মত।

ফ্রেম টিভিতে কোয়ান্টাম ডওটি প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। যা ডিসপ্লেতে শতভাগ কালার ভলিউম উৎপন্ন করতে পারবে। এছাড়া থাকছে ডুয়েল এলইডি ব্যাকলাইট সুবিধা, যা ডিসপ্লের কনটেন্ট অনুযায়ী কালার টোন ব্যালেন্স করতে পারবে।

এটি নিয়ন্ত্রণের জন্য থাকছে স্যামসাংয়ের বান্ডেল ফিচার সমৃদ্ধ 'ওয়ানরিমোট' সুবিধা। যা ফ্রেম টিভি ২০২০ ডিভাইসের সঙ্গে সাপোর্ট করে এমন ডিভাইসের মধ্যে স্বয়ংক্রিয়ভাবে যুক্ত হয়ে যাবে এবং তা নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে। এছাড়া এই রিমোটে থাকছে কিছু ডেটিকেটেড কী যা প্রেস করে নেটফ্লিক্স, আমাজন প্রাইম ভিডিওর মত সার্ভিসগুলো উপভোগ করা যাবে।

আপনার মতামত লিখুন :