Alexa

নাটোরে একসঙ্গে ৪ সন্তানের জন্ম

নাটোরে একসঙ্গে ৪ সন্তানের জন্ম

বিয়ের ১১ বছরের মাথায় একসঙ্গে চার সন্তানের জন্ম দিলেন নাটোরের এক মা/ ছবি: সংগৃহীত

নাটোরে দাম্পত্য জীবনের ১১ বছরের মাথায় একসঙ্গে চার সন্তানের জন্ম দিয়েছেন শাহিদা বেগম (৩৫) নামে এক মা। স্বাভাবিক প্রসবেই এই চার সন্তানের জন্ম দেন তিনি। বর্তমানে মা ও তার সন্তানরা সুস্থ আছেন।

শনিবার (২৫ মে) দুপুর ১টা ৫৫ মিনিটের দিকে নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতালে এই চার সন্তানের জন্ম দেন শাহিদা বেগম। চার সন্তানের মধ্যে একটি ছেলে ও অন্য তিনটি কন্যা সন্তান।

স্বাভাবিক প্রসবের মাধ্যমে চার সন্তানের জন্ম হওয়ায় বাবা, মা থেকে শুরু করে আত্মীয়স্বজন সবাই খুশি। শাহিদা নাটোরের সিংড়া উপজেলার শেরকোল ইউনিয়নের ভাগনারকান্দি গ্রামের মিলনের স্ত্রী।

শাহিদার পরিবার ও এলাকাবাসী জানায়, প্রায় ১১ বছর আগে বিয়ে হয় শাহিদা আর মিলনের। বিয়ের পর কয়েক বছর পেরিয়ে গেলেও সন্তান না হওয়ায় দুশ্চিন্তায় ছিলেন শাহিদা ও মিলন দম্পতি।

তারপর থেকে সন্তান হওয়ার জন্য ডাক্তারি চিকিৎসার পাশাপাশি পানি পড়া ও কবিরাজী চিকিৎসা, বিভিন্ন জনের পরামর্শে অনেক সময় গাছগাছলিও খেতে হয়েছে শাহিদাকে।

শনিবার সকালে প্রসব বেদনা শুরু হলে শাহিদাকে নেওয়া হয় নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতালে। সেখানেই স্বাভাবিক প্রসবের মাধ্যমে ভূমিষ্ঠ হয় এই চার সন্তান।

এদিকে এক মা একসঙ্গে চার সন্তানের জন্ম দেওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়লে বিভিন্ন বয়সের শতশত নারী-পুরুষ হাসপাতালে গিয়ে ভিড় করেন নবজাতকদের এক নজর দেখার জন্য।

শাহিদার স্বামী মিলন জানান, সকালে তার স্ত্রীর প্রসব ব্যাথা উঠলে তাকে নাটোর সদর হাসপাতালে নিয়ে এসে ভর্তি করেন তারা। পরে দুপুর ২টার দিকে হাসাপাতালের চিকিৎসক ফজলুল কাদিরের তত্ত্বাবধানে শাহিদা একে একে চার সন্তানের জন্ম দেন। পরে চার সন্তান ও মা শাহিদাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতালের দায়িত্বরত চিকিৎসক ফজলুল কাদির জানান, শাহিদা একে একে চারটি সন্তান স্বাভাবিকভাবে প্রসব করেন। কিন্তু একসঙ্গে চারটি বাচ্চা হওয়ার কারণে যেকোনো ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত সমস্যা এড়াতে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। মা ও সন্তানরা ভালো আছে।

আপনার মতামত লিখুন :