ভারী বর্ষণে ঘর হারালো ১৫ হাজার রোহিঙ্গা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, কক্সবাজার
উখিয়া-টেকনাফের রোহিঙ্গা ক্যাম্প,  ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

উখিয়া-টেকনাফের রোহিঙ্গা ক্যাম্প, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

টানা ৪৮ ঘণ্টা ভারী বর্ষণের কারণে কক্সবাজারের উখিয়া-টেকনাফের বেশ কয়েকটি ক্যাম্পে পাহাড়ধস ও বন্যায় প্রায় ১৫ হাজার রোহিঙ্গা বসতঘর হারিয়েছেন।

বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) রাত ৮টার দিকে আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইওএম) এর পক্ষ থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

ইন্টার সেক্টরাল কো-অর্ডিনেশন গ্রুপের (আইএসসিজি) বরাত দিয়ে জানানো হয়, গত ৪৮ ঘণ্টায় রোহিঙ্গা শিবিরের ১৫ জায়গায় পাহাড়ধস, ৫ জায়গায় বন্যা ও ২৫ জায়গায় ঝড়ো বাতাসের কারণে ৪ হাজার ৫৪৩ পরিবারের ১৪ হাজার ৮০১ জন রোহিঙ্গাদের বসতঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

এ বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্য ১২ হাজার রোহিঙ্গাদের বিভিন্ন আশ্রয় কেন্দ্রে রাখা হয়েছে। তাদেরকে শুকনো খাবার দেওয়া হয়েছে।

এছাড়াও এসব ঘর হারানো রোহিঙ্গাদের পুনরায় ঘরে ফেরা ও ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা নির্ণয়ে প্রায় তিন হাজার প্রশিক্ষিত কর্মী কাজ করছেন। ৩৪টি ক্যাম্পে যেকোন দুর্যোগ মোকাবেলায় এসব কর্মীরা নিয়োজিত আছেন।

আপনার মতামত লিখুন :