অভাবে মেঝেতে ঘুমাতে হতো টাইগারকে

বিনোদন ডেস্ক, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
টাইগার শ্রফ

টাইগার শ্রফ

  • Font increase
  • Font Decrease

বর্তমান সময়ে বলিউড ইন্ডাস্ট্রির জনপ্রিয় ও বেশি পারিশ্রমিক পাওয়া অভিনেতাদের মধ্যে একজন টাইগার শ্রফ। এ নিয়ে নতুন করে কিছু বলার প্রয়োজন নেই।

কিন্তু বলিউডের আজকের এই সুপারস্টারের ছোটবেলা কেটেছে অনেক কষ্টে। এমনকি অভাবের কারণে এক এক করে বিক্রি করে দেওয়া হয়েছিল তাদের বাড়ির আসবাবপত্রও।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে অংশ নিয়েছিলেন টাইগার শ্রফ। যেখানে তিনি কষ্টের দিনগুলোর কথা স্মরণ করে বলেন, আমি সেসময় খুব ছোট ছিলাম যখন মা ‘বুম’ ছবিটি প্রযোজনা করেছিলেন। এতে অভিনয় করেছিলেন অমিতাভ বচ্চন, জ্যাকি শ্রফ, গুলশান গ্রোভার, ক্যাটরিনা কাইফ ও পদ্মলক্ষ্মী। কিন্তু প্রেক্ষাগৃহে ছবিটি মুক্তির আগেই অনলাইনে ফাঁস হয়ে যায়। ফলে বক্স অফিসে ভালো ব্যবসা করতে পারেনি ছবিটি।

২০০৩ সালে এই ছবিটি ফ্লপ হওয়ার পরই শুরু হয় আমাদের কষ্টের দিন। বলতে গেলে এটি ছিল আমার জীবনের সবচেয়ে বাজে অনুভূতি। এতোটাই অভাবে পড়েছিলাম আমরা যে, এক এক করে বাড়ির আসবাবপত্র বিক্রি করে দিতে হচ্ছিল। এমনকি একটা সময় আমার খাটটিও বিক্রি করে দেওয়া হয়েছিল। যার ফলে মেঝেতে ঘুমাতে হত।

সবশেষ করণ জোহর প্রযোজিত ‘স্টুডেন্ট অব দ্য ইয়ার টু’ ছবিতে দেখা গেছে টাইগার শ্রফকে। এতে তার সহশিল্পী হিসেবে ছিলেন অনন্যা পাণ্ডে ও তারা সুতারিয়া।

বর্তমানে ‘ওয়ার’ ছবির কাজ নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন টাইগার শ্রফ। এতে তার সঙ্গে আরও দেখা যাবে হৃতিক রোশনকে। এছাড়াও তার হাতে রয়েছে ‘বাঘি’ ছবির তৃতীয় কিস্তি ‘বাঘি থ্রি’র কাজ। শিগগিরই শুরু হবে ছবিটির শুটিং।

আপনার মতামত লিখুন :