Barta24

রোববার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৬

English

এলআরবি-নগরবাউলহীন ব্যান্ড উৎসব

এলআরবি-নগরবাউলহীন ব্যান্ড উৎসব
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট


  • Font increase
  • Font Decrease

আমাদের ব্যান্ড ‘এলআরবি’ আজ ১৪ মার্চ থেকে আজীবনের জন্য বামবা’র সদস্যপদ থেকে পদত্যাগ করলো। অগ্রহণযোগ্য পরিস্থিতির সাপেক্ষে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে ‘এলআরবি’ এবং যা নিয়ে আলোচনার অবকাশ নেই।

এটা এলআরবি’র চার বছর আগের ঘোষণা।

ফলে খুব স্বাভাবিকভাবেই এলআরবি থাকবে না বাংলাদেশ মিউজিক্যাল ব্যান্ডস অ্যাসোসিয়েশনের (বামবা) কোনো আয়োজনে।

নগরবাউল-ও থাকছেনা বামবা’র নতুন আয়োজন ‘লিজেন্ডস অব রক’-এ।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Aug/14/1534192312273.jpg

তবে, থাকছে অন্যান্য ২৩ টি ব্যান্ড।

তারা হচ্ছেন-

আর্বোভাইরাস, ব্ল্যাক, ব্যান্ড লালন, বেদুইন, ক্রিপটিক ফেইট, দলছুট, ফিডব্যাক, মাইলস, মাকসুদ ও ঢাকা, মেকানিকস, নেমেসিস, নাগরিক, অ্যাভয়েড রাফা, আর্টসেল, অবসকিওর, পাওয়ার সার্জ, পেন্টাগন, শিরোনামহীন, সোলস, দ্য ট্র্যাপ, ভাইকিংস, ওয়ারফেজ ও দৃক।

‘লিজেন্ডস অব রক’ সম্পর্কে জানালেন বামবার প্রেসিডেন্ট হামিন আহমেদ।

বললেন-

বাংলাদেশের ব্যান্ডসংগীতের ধারাকে বিকশিত ও অগ্রসর করার লক্ষ্যে বামবা কাজ করছে। সাধারণত ব্যান্ডসংগীত স্টেজে লাইভ পারফর্ম করা হয়। প্রচলিত এই ধারার বাইরে গিয়ে টিভিতে নতুন আঙ্গিকে পারফর্ম করার ইচ্ছা ছিল আমাদের। ‘লিজেন্ডস অব রক’ অনুষ্ঠানে আমরা সেই সুযোগ পেয়েছি, যা ভবিষ্যতে আমাদের ব্যান্ডসংগীতকে দর্শকদের সামনে নতুনভাবে তুলে ধরবে।

ডিজিটাল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান বাংলালিংক যোগ দিয়েছে বামবা’র এই আয়োজনে।

তাদের ভাষ্য-

বাংলালিংক শুরু থেকেই দেশীয় সংগীতের পৃষ্ঠপোষকতার সঙ্গে যুক্ত আছে। বিভিন্ন ধারার সংগীতের প্রসারে জাগরণের গান, বাংলাদেশ উৎসব, লালন ও নতুন দিনের কনসার্টের মতো উদ্যোগের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে। ‘লিজেন্ডস অব রক’ আমাদের নতুন উদ্যোগ। আশা করছি, এই আয়োজনে দেশের সমৃদ্ধ ব্যান্ডসংগীতকে নতুনভাবে উপস্থাপন করা হবে। জনপ্রিয় রকস্টারদের পারফরমেন্স সংগীতপ্রেমীদের ইদ উদযাপনে নতুন মাত্রা যোগ করবে।

এই আয়োজনের রেডিও পার্টনার হিসেবে থাকছে এবিসি রেডিও এফএম ৮৯.২।

দেখানো হবে ২২ থেকে ২৮ আগস্ট প্রতিদিন রাত পৌনে নয়টায়, দেশ টিভিতে।

দেশ টিভি জানাচ্ছে-

এই মেগা ইভেন্ট বাংলাদেশের তরুণ প্রজন্ম আর অন্যান্য বয়সের শ্রোতাদের মধ্যে সমকালীন রক ও পপসংগীতকে আরও জনপ্রিয় করবে। আমরা ‘লিজেন্ডস অব রক’ আয়োজনে ভিন্ন মাত্রার সংগীত উপস্থাপনের চেষ্টা করছি।

আপনার মতামত লিখুন :

জন্মদিনেও একাকিত্বে প্রবীর মিত্র

জন্মদিনেও একাকিত্বে প্রবীর মিত্র
অভিনেতা প্রবীর মিত্র, ছবি: সংগৃহীত

ঢাকাই সিনেমার রঙিন নবাব সিরাজউদ্দৌলা বলা হয় প্রবীর মিত্রকে। ১৯৮৯ 'রঙিন নবাব সিরাজউদ্দৌলা' সিনেমায় অভিনয় করে ঝড় তুলে ছিলেন ঢাকাই সিনেমার এই বর্ষীয়ান চলচ্চিত্র অভিনেতা।

আজ এই অভিনেতার ৭৮ তম জন্মদিন। অথচ তাঁকে নিয়ে নিয়ে কোন আয়োজন কিংবা আলোচনা। বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমের পক্ষে খোঁজ নিয়ে জানা গেল, জন্মদিনেও রাজধানীর সেগুনবাগিচার বাসায় অসুস্থতা আর একাকিত্বে কাটছে প্রবীর মিত্রের। অস্টিওপরোসিসে আক্রান্ত হয়ে ঠিকমত হাঁটতে পারেন না প্রবীর মিত্র। আর ২০০০ সালে স্ত্রী অজন্তা মিত্র মারা যাওয়ার পর থেকে একাকিত্বে ভুগছেন, বাসায় বসে সারা দিন কাটান বই পড়ে কিংবা পত্রিকা আর টেলিভিশন দেখে। তাই জন্মদিনেও নেই বেশি কোন আয়োজন।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/18/1566128171988.jpg

 

প্রবীর মিত্র 'লালকুটি' থিয়েটার গ্রুপে অভিনয়ের মাধ্যমে তার কর্মজীবন শুরু করেন। স্কুলজীবনে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের 'ডাকঘর' নাটকে অভিনয় করেছিলেন প্রবীর মিত্র। পরবর্তীতে পরিচালক এইচ আকবরের হাত ধরে 'জলছবি' নামে একটি চলচ্চিত্রের মধ্য দিয়েছে বড়পর্দায় তার অভিষেক হয়।

অভিনয়ের বাইরে প্রবীর মিত্র ষাটের দশকে ঢাকা ফার্স্ট ডিভিশন ক্রিকেট খেলেছেন, ছিলেন অধিনায়ক। একই সময় তিনি ফার্স্ট ডিভিশন হকি খেলেছেন ফায়ার সার্ভিসের হয়ে। এছাড়া কামাল স্পোর্টিংয়ের হয়ে সেকেন্ড ডিভিশন ফুটবলও খেলেছেন।

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার জয়ী প্রবীর মিত্র চাঁদপুর শহরে জন্ম গ্রহণ করেন। ব্যক্তিজীবনে তার এক মেয়ে তিন ছেলে। তবে ছোট ছেলে মারা গেছেন ২০১২ সালে।

১৫ বছর পর আবারও স্ত্রীকে গান উৎসর্গ করলেন আসিফ

১৫ বছর পর আবারও স্ত্রীকে গান উৎসর্গ করলেন আসিফ
কণ্ঠশিল্পী আসিফ ও তার স্ত্রী সালমা আসিফ মিতু

 

কণ্ঠশিল্পী আসিফ আকবরের প্রেম কাহিনী কম বেশি সবার জানা। বহু কাঠখড় পুড়িয়ে দীর্ঘদিন প্রেম করে বিয়ে করেছেন স্ত্রী মিতুকে। সেই মানুষটাকে ২০০৪ সালে নিজের প্রথম কোন গান উৎসর্গ করেছিলেন আসিফ আকবর।

গানটি ছিল আসিফের ১১তম একক অ্যালবাম ‘তবুও ভালোবাসি’র ৪নম্বর  ট্র্যাক ‘কোন একদিন যদি চলে যাই, তারাদের চেয়েও আরও দূরে’। শফিক তুহিনের কথায় গানটির সুর করেছিলেন রাজেশ। এরপর চলে গেছে ১৫টি বছর। কিন্তু প্রিয় সেই মানুষকে আর কোন গান উৎসর্গ করা হয়নি আসিফের।

তবে এবার আর ভুল করলেন না আসিফ। প্রায় ১৫ বছর পর আবারও স্ত্রী মিতুকে উৎসর্গ করে গান গাইলেন আসিফ আকবর। গানের শিরোনাম ‘ভালো থাকার জন্য’। আহমেদ রিজভী’র কথা ও সুরে গানটির সঙ্গীতায়োজন করেছেন কিশোর দাস। গানটি প্রকাশ করে আর্ব এন্টারটেইনমেন্ট।

গানটি প্রসঙ্গে আসিফ আকবর বলেন, 'মিতু আর আমি এক আত্মা। আমার দীর্ঘ ক্যারিয়ারে আমাকে গুছিয়ে রেখেছে মিতু।  ওকে শুধু ভালোবাসি বললে কম হয়ে যায়। এর থেকে বড় কোন শব্দ যদি প্রেমে থেকে থাকে তাহলে সেটা মিতুর জন্যই প্রযোজ্য।'

সালমা আসিফ মিতু বলেন, 'আসিফ একটু পাগলাটে। তবে আমি মানিয়ে নিয়েছি। ওর ব্যক্তিত্ব আমাকে বরাবরই মুগ্ধ করে। ওর সব গানই আমার প্রিয়। তবে যে গানটা একান্তই আমাকে নিয়ে করা , সেই গানের প্রতি একটু বেশিই মুগ্ধতা থাকে। আমরা ভালো আছি। এভাবেই ভালো থাকতে চাই। সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন।' 

 

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র