রসগোল্লায় হোক বছরের শুভ সূচনা

ফাওজিয়া ফারহাত অনীকা, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইফস্টাইল
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

যেকোন শুভ সূচনা কিংবা শুভ কাজের জন্য আমরা মিষ্টি মুখ করে থাকি।

নতুন বছরের শুভ সূচনার জন্যেও তাই মিষ্টি মুখ করা চাই। বেকারি শপ কিংবা পরিচিত ও দামী মিষ্টির দোকান থেকেই পছন্দসই মিষ্টি কিনে নেওয়া যায়। কিন্তু ঘরে নিজ হাতে তৈরি মিষ্টি দিয়ে পরিবারের মিষ্টি মুখ করানো ও অতিথিদের পরিবেশন করার মাঝে আবেদনটাই থাকে অন্যরকম।
আজকের দিনটা তাই শুরু করুন ঘরে তৈরি রসে ভেজা রসগোল্লা দিয়েই। একেবারেই সহজ রেসিপিতে ও কম সময়ের মাঝে মিষ্টিটা তৈরি করে নেওয়া যাবে বলে ঝামেলা হবে কম।

রসগোল্লা তৈরিতে যা লাগবে

১. দুই লিটার দুধ।

২. ২ চা চামচ ঘি।

৩. ১ টেবিল চামচ চিনি।

৪. ৫-৬ টেবিল চামচ ভিনেগার।

৫. ২ চা চামচ সুজি।

৬. ২ চা চামচ ময়দা।

৭. ১-২ চা চামচ বেকিং পাউডার।

সিরা তৈরিতে প্রয়োজন হবে

১. ৫০০ গ্রাম চিনি।

২. ৭ কাপ পানি।

রসগোল্লা যেভাবে তৈরি করতে হবে

১. একটি পাত্রে সবটুকু দুধ একসাথে জ্বাল দিতে হবে। দুধে বলক আসলে কিছুক্ষণ নেড়ে পুনরায় বলক আসার জন্য অপেক্ষা করতে হবে। দ্বিতীয়বারের মতো বলক আসলে এতে ভিনেগার দিতে হবে ধীরে ধীরে। দুধ থেকে যতক্ষণ না পর্যন্ত ছানা আলাদা হচ্ছে, অল্প করে ভিনেগার দিতে হবে।

২. দুধে ছানা কেটে গেলে কিছুক্ষণ নেড়েচেড়ে নামিয়ে নিতে হবে। একটি পরিষ্কার সুতি কাপড়ে দুধের ছানা নিংড়ে বাড়তি পানি ছড়িয়ে নিতে হবে।

৩. এই ছানার সঙ্গে ময়দা, বেকিং পাউডার ও সুজি মিশিয়ে খুব ভালোভাবে মথে নিতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে, সকল উপাদান যেন একসঙ্গে ভালোভাবে মিশে যায়। ছানার মিশ্রণটি যত ভালোভাবে মথা হবে, মিষ্টি ততই নরম ও ফুলকো হবে।

৪. এর মাঝেই ভিন্ন একটি পাত্রে রসগোল্লার রস তৈরির জন্য চিনি ও পানি জ্বালানোর জন্য মাঝারি তাপে চুলায় বসিয়ে দিতে হবে।

৫. এবারে উভয় হাতের তালুই ঘি মাখিয়ে ছানার মিশ্রণ অল্প করে নিয়ে দুই হাতের সাহায্যে গোলাকৃতির মিষ্টি তৈরি করে নিতে হবে। সবগুলো মিষ্টি তৈরি করা হয়ে গেলে চিনির সিরার একে একে সাবধানে ছেড়ে দিতে হবে।

৬. চুলার তাপ একেবারে কমিয়ে দিয়ে চিনির সিরায় ৩০ মিনিটের জন্য পাত্রের মুখ বন্ধ করে রেখে দিতে হবে। এই সময়ের মাঝেই মিষ্টি ফুলে উঠবে।

চুলা থেকে নামিয়ে আরও আধাঘণ্টা মুখ বন্ধ অবস্থাতেই রেখে দিতে হবে ঠাণ্ডা হবার জন্য। এরপর পাত্র থেকে সরাসরি পরিবেশন করতে হবে রসে টইটম্বুর রসগোল্লা।

আরো পড়ুন: মাত্র চারটি উপাদানেই স্বাস্থ্যকর ব্রাউনি

আরো পড়ুন: মিষ্টি পোলাও জর্দা

আপনার মতামত লিখুন :