টুথপেস্ট নয়, নারিকেল তেলে পাওয়া যাবে দাঁতের সুরক্ষা!

ফাওজিয়া ফারহাত অনীকা, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইফস্টাইল
দাঁত ভালো থাকবে নারিকেল তেলের ব্যবহারে, ছবি: সংগৃহীত

দাঁত ভালো থাকবে নারিকেল তেলের ব্যবহারে, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

আমাদের দিনের শুরু হয় টুথপেস্টে দাঁত মেজে।

চিরাচয়িত এই নিয়মে হুট করে যদি পরিবর্তন আনা হয়, তবে কেমন হয়? টুথপেস্টের বদলে নারিকেল তেল ব্যবহারে দাঁত মাজার কথা বলা হলে অবাক না হয়ে উপায় নেই। কিন্তু গবেষকেরা নানান পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও গবেষণা শেষে জানাচ্ছেন, দাঁতের সুরক্ষা ও সুস্বাস্থ্য রক্ষার্থে টুথপেস্টের চাইতেও উপকারী ভূমিকা পালন করে প্রাকৃতিক নারিকেল তেল।

আমাদের স্যালাইভা তথা লালাতে থাকা এনজাইমের সাথে নারিকেল তেলের সংযোগে উৎপাদিত উপাদান ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করতে ও দাঁতের ক্ষয়রোগ প্রতিরোধে কাজ করে।

আয়ারল্যান্ডের অ্যাথলোন ইন্সটিটিউট অফ টেকনোলজির (AIT) গবেষকেরা মানুষের মুখের স্ট্রেপটোকক্কাস (Streptococcus) ব্যাকটেরিয়ার বিরুদ্ধে নারিকেল তেলের কার্যকারিতা পরীক্ষা করেন। ফলাফল থেকে দেখা যায় নারিকেল তেল মুখের লালার সাথে মিশ্রিত হয়ে এই ব্যাকটেরিয়াসহ অন্যান্য ব্যাকটেরিয়ার বৃদ্ধিতেও বাধা প্রদান করে।

গবেষকেরা পরীক্ষার জন্য নারিকেল তেলের পাশাপাশি ভেজিটেবল অয়েল, অলিভ অয়েল নিয়েও পরীক্ষা করেন। দেখা গেছে, খুব স্বল্প পরিমাণ নারিকেল তেল থেকেও ইতিবাচক ফলাফল পাওয়া গিয়েছে।

গবেষণার প্রধান ড্যামেইন ব্র্যাডলি জানান, তাদের গবেষণার ফলাফল থেকে দেখা গেছে- মানুষের পাচনতন্ত্রে রয়েছে অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল কার্যক্রম। তিনি বিশ্বাস করেন, তাদের তথ্য ভবিষ্যতে দাঁতের সুরক্ষায় কার্যকরি ভূমিকা পালন করবে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jun/12/1560338465745.jpg

সবার সুবিধার্থে এখানে তিনটি কারণ তুলে ধরা হলো, যা আরও ভালোভাবে বোঝাতে সাহায্য করবে কেন টুথপেস্টের চাইতে নারিকেল তেলের ব্যবহার দাঁতের জন্য উপকারী।

নারিকেল তেল প্রাকৃতিক ও নিরাপদ

দুঃখজনক হলেও সত্যি যে, বেশিরভাগ টুথপেস্টেই থাকে নানাবিধ কেমিক্যাল ও টক্সিন উপাদান। ক্ষতিকর উপাদানের মাঝে প্রধান তিনটি হলো-

ট্রাইক্লোসান – এটা হরমোনাল সমস্যা তৈরি করে এবং অ্যান্টিবায়োটিক রেসিস্টেন্স তৈরি করে শরীরে। কিছু ক্ষেত্রে ক্যান্সার তৈরির কারণো এই উপাদানটি।

ফ্লোরাইড – এটা হলো বিষাক্ত ইন্ডাস্ট্রিয়াল বর্জ্য পদার্থ, যা বেশ কিছু টুথপেস্টে পাওয়া যায়।

সারফ্যাকট্যান্টস – এটা হলো সোডিয়াম লরেথ সালফেট (SLS), যা এক ধরনের ফোমিং উপাদান। এর ফলে খাবারে অরুচির সমস্যা দেখা দিয়ে থাকে।

অন্যদিকে নারিকেল তেল সম্পূর্ণ বিশুদ্ধ ও প্রাকৃতিক একটি উপাদান। যা মুখের ভেতরের ও দাঁতের সার্বিক সুরক্ষা ছাড়া কোন ক্ষতি করে না।

ক্যাভিটি প্রতিরোধ করে

ফিচারের শুরুতেই উল্লেখ করা হয়েছিল, নারিকেল তেল স্ট্রেপটোকক্কাস (Streptococcus) ব্যাকটেরিয়ার বিরুদ্ধে কাজ করে। এই ব্যাকটেরিয়া মূলত ক্যাভিটি তৈরির জন্য দায়ী। নারিকেল তেল ব্যবহারে দাঁত এক্ষেত্রে অনেকটাই সুরক্ষিত থাকে।

তৈরি করা যাবে নারিকেল তেলের পেস্ট

চাইলে ঘরেই তৈরি করে নেওয়া যাবে নারিকেল তেলের পেস্ট। দুই টেবিল চামচ বেকিং সোডা ও দুই টেবিল চামচ পরিমাণ নারিকেল তেল মিশিয়ে নিলেই তৈরি হয়ে যাবে কাঙ্ক্ষিত নারিকেল তেলের পেস্ট।

আরও পড়ুন: ঘরেই বানিয়ে নিন পেপারমিন্ট-নারিকেল তেলের টুথপেস্ট

আরও পড়ুন: চিনির বিকল্পে চার উপাদান

আপনার মতামত লিখুন :