ঈদ বিদ্যুৎ বিভ্রাটে থাকুন দুশ্চিন্তামুক্ত!

বিদ্যুৎ বিভ্রাট।

বজ্রপাতের সাথে ভারি বর্ষণ অথবা ঠাঠা রোদ। এভাবেই কাটবে এবারের ঈদ-উল-ফিতর। এমন আবহাওয়ার ভেতর বিদ্যুৎ বিভ্রাটের কথা ভুলে গেলে কিন্তু চলবে না। কারণ যেকোন সময়েই দেখা দিতে পারে লোডশেডিং। কতক্ষণে বিদ্যুৎ আসবে সেটাও বেশীরভাগ সময় থাকে অজানা।

উৎসব অর্থাৎ ঈদের দিনেই যদি এমন অনাকাঙ্ক্ষিত বিদ্যুৎ বিভ্রাট দেখা দেয় তবে সমস্যায় পরে যাবেন অনেকেই, অনেক দিক দিয়ে। জেনারেটর ও ইউপিএস সবার বাসাতে সহজলভ্য নয়। কারোর বাসাতে এই দুইটির যেকোন একটি থাকলেও, তাতে সমস্যা দেখা দিতে পারে যেকোন সময়।

তখন যেন কোন সমস্যার মুখোমুখি হতে না হয়, তার জন্যে একবার চোখ বুলিয়ে নিন নিচের পয়েন্টগুলোতে।

হাতপাখা

রাস্তায় বের হলেই দেখা যাবে অনেকেই তালপাতা কিংবা প্লাস্টিকের হাতপাখা বিক্রি করছেন। এমন কাউকে পেলেই চটজলদি দুইটি হাতপাখা কিনে নিন। এমন আবহাওয়ার মাঝে ভ্যাপসা গরমে সেদ্ধ না হতে চাইলে হাতপাখার চাইতে ভালো বিকল্প নেই বললেই চলে।

মোমবাতি

ঈদের বাজার করার সময় মনে করে চার-পাঁচটি মোমবাতিও কিনে ফেলুন। ভীষণ প্রয়োজনীয় এই জিনিসটি শুধু লোডশেডিং এর সময়েই নয়, যেকোন সময়েই প্রয়োজন হতে পারে।

চার্জার ল্যাম্প

শুধু মোমবাতি দিয়েই সবকিছু সামাল দেওয়া সম্ভব হবে না। চেষ্টা করুন চার্জার টর্চ, চার্জার ল্যাম্প আগে থেকেই ফুল চার্জ দিয়ে রাখতে।

ইলেক্ট্রিক ব্যাট

মশার উৎপাত কখনো বাড়ে তো কখনো কমে। মশা মারার কয়েল ঘরে দুর্গন্ধই বাড়ায়, অথচ কাজের কাজ কিছুই হয় না। ঈদের দিনে হইহুল্লোড় ও আনন্দের মাঝে মশার উৎপাতে যেন অতিষ্ট হতে না হয় তাই চানরাতেই মশা মারার ইলেক্ট্রিক ব্যাটটি ফুল চার্জ দিয়ে রাখুন।

/uploads/files/N20yt9SH0nJDuYAJ1UGtMVCBUBfWxD3JNkBYN59y.jpeg

পাওয়ার ব্যাংক

ঈদের আগের দিন থেকেই শুরু হয় পরিবার, আত্মীয়-স্বজন ও বন্ধুদের সাথে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করা। চানরাতে কেনাকাটা করতে বেরোলে কিংবা বন্ধুদের সাথে আড্ডায় ছবি তোলা হয় হরদম। ফলে মোবাইলের চার্জ একেবারে শূন্যের কোঠায় এসে ঠেকে। ঈদের দিন সকালে বের হবার সময় দেখা গেলো মোবাইলে একেবারেই চার্জ নেই, সাথে ঘরে নেই বিদ্যুৎ। এমন ধরণের সমস্যায় যেন পড়তে না হয় তাই মনে করে ঈদের আগের দিনেই পাওয়ার ব্যাংক ফুল চার্জ দিয়ে রাখুন।

ডিএসএলআর ক্যামেরার ব্যাটারি

নিশ্চয় ঈদের দিনের জন্য পরিকল্পনা করে রেখেছেন নতুন জামা পরে পরিবার ও বন্ধুদের সাথে দারুন সব ছবি তুলবেন। প্রিয় ক্যামেরাটি যেন ঈদের দিন অকেজো হয়ে পরে না থাকে, তাই আগে থেকেই ক্যামেরার ব্যাটারি ফুল চার্জ করে রাখুন। ঈদের দিন সকালের জন্য এই কাজটি রেখে দিলে অনিশ্চয়তা থাকতে পারে।  

পরিপাটি জামা

ঈদের জন্য খুব শখ করে কয়েকটি মার্কেট ঘুরে একদম মনের মতো যে জামাটি কেনা হলো, সেটা যদি পরিপাটি না থাকে তবে কী হয়! ঈদের দিন সকালে দেখলেন জামাটি খুব কুঁচকে আছে কিংবা জামাতে ভাঁজ পরে গেছে। আয়রন প্রেস করতে যাবেন, এমন সময় দেখা দিলো লোডশেডিং! নিশ্চয় ঈদের দিন এমন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার মুখোমুখি হতে চাইবেন না। তাই চানরাতেই ঈদের দিনের জামাগুলো আয়রন প্রেস করে পরিপাটিভাবে গুছিয়ে রেখে দিন।

ঈদ রান্নার প্রিপারেশন

হয়তো এমন কোন রান্নার প্রপারেশন নিয়েছেন, যা তৈরি করা হবে ওভেনে। ভেবে রেখেছিলেন মেহমান আসলেই ওভেনে চালান করে দিবেন আর সহজেই তৈরি হয়ে যাবে রান্নাটি। কিন্তু মেহমান আসতেই, বাড়ি থেকে পালিয়ে গেলো বিদ্যুৎ! কী করবেন তখন? এমন বিড়ম্বনায় যেন পড়তে না হয় তাই রান্নার প্রিপারেশনটি এমনভাবে করুন, যেন চুলাতেও সেরে নেওয়া যায় রান্নাটি।

আশা করা যায় যে, বিদ্যুৎ বিভ্রাটের মাঝেও এই তালিকাটি দুশ্চিন্তা ও ঝামেলামুক্ত রাখতে সাহায্য করবে। অগ্রীম ঈদের শুভেচ্ছা সবাইকে।

লাইফস্টাইল এর আরও খবর