Alexa

ডুয়েটস ইন মেটাল অ্যান্ড ওয়াটার’ শীর্ষক স্ক্র্যাপ মেটাল ভাস্কর্য প্রদর্শনী

ডুয়েটস ইন মেটাল অ্যান্ড ওয়াটার’ শীর্ষক স্ক্র্যাপ মেটাল ভাস্কর্য প্রদর্শনী

ছবিঃ সংগৃহীত

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফুলার রোডে অবস্থিত ব্রিটিশ কাউন্সিল প্রাঙ্গণে শুরু হয়েছে ‘ডুয়েটস ইন মেটাল অ্যান্ড ওয়াটার’ শীর্ষক স্ক্র্যাপ মেটাল ভাস্কর্য প্রদর্শনী। 

 শুক্রবার(২২ ফেব্রুয়ারি)  থেকে শুরু হয়েছে এই ভাস্কর্য প্রদর্শনী। চলবে আগামী ৭ মার্চ পর্যন্ত। ভাস্কর আরহাম উল হক চৌধুরী ও ব্রিটিশ কাউন্সিল কালচারাল সেন্টারের যৌথ অংশীদারিত্বে শুরু হওয়া এই প্রদর্শনী সবার জন্য উন্মুক্ত।

প্রদর্শনীটির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার অ্যালিসন ব্লেক, ব্রিটিশ কাউন্সিল বাংলাদেশের ডেপুটি ডিরেক্টর অ্যান্ড্রিউ নিউটন, সেন্টার ফর দ্য রিহ্যাবিলিটেশন অব দ্য প্যারালাইজড (সিআরপি)-এর প্রতিষ্ঠাতা ভ্যালেরি টেলর, দেশের স্বনামধন্য আর্ট গ্যালারি ও সাংস্কৃতিক কেন্দ্রগুলোর চেয়ারম্যান ও পরিচালকবৃন্দ, বিশেষভাবে সক্ষম মানুষদের সাথে কাজ করা বিভিন্ন ব্যক্তি ও সংস্থা, বিভিন্ন শিল্পী ও ফ্রিল্যান্সার, সিআরপির অংশগ্রহণকারী, ব্রিটিশ কাউন্সিলের কৌশলগত অংশীদার ও সংবাদমাধ্যমকর্মীরা।

প্রদর্শনীটিতে শিল্পী আরহাম উল হক চৌধুরীর স্ক্র্যাপ মেটালের ভাস্কর্য প্রদর্শিত হচ্ছে। ভাস্কর্য তৈরিতে ব্যবহৃত স্ক্র্যাপ মেটাল সংগ্রহ করা হয়েছে সিআরপির বাতিল ও ব্যবহারে অযোগ্য স্ট্রেচার ট্রলি, ক্রাচ প্রভৃতি থেকে প্রাপ্ত ধাতু থেকে। বিশেষভাবে সক্ষম মানুষদের ক্ষমতায়ন এবং প্রতিদিন ব্যবহারের অযোগ্য পণ্যসমূহের সুপ্ত সম্ভাবনাগুলো সবার সামনে তুলে ধরতেই এ প্রদর্শনী আয়োজন করা হয়।

এই প্রদর্শনীটি আয়োজনের আরেকটি উদ্দেশ্য হলো সমাজ যাদের প্রচলিত অর্থে ‘অক্ষম’ বলে গণ্য করে তাদের সাথে অন্যদের পার্থক্য না করার ব্যাপারে উৎসাহিত করা। এই প্রদর্শনীর ভাস্কর্যগুলো তৈরি হয়েছে সাভারে সিআরপির ওয়ার্কশপ থেকে। এর লক্ষ্য ছিলো পানির পুনঃব্যবহার এবং পরিবেশে এর ইতিবাচক প্রভাব বোঝানো। এ প্রদর্শনী থেকে প্রাপ্ত অর্থ সিআরপির কল্যাণ তহবিলে জমা হবে।

উল্লেখ্য, বিশেষভাবে সক্ষম মানুষদের জন্য সমান সুযোগ তৈরিতে কাজ করে যাচ্ছে ব্রিটিশ কাউন্সিল বাংলাদেশ কালচারাল সেন্টার।

আপনার মতামত লিখুন :