২০২৩-২৪ অর্থবছরে কুবিতে বরাদ্দ বেড়েছে সাড়ে ৬ কোটি



কুবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, কুমিল্লা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

আগামী ২০২৩-২৪ অর্থবছরে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (ইউজিসি) থেকে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় বরাদ্দ পেয়েছে ৬০ কোটি ৫৭ লাখ টাকা। গত বছরের তুলনায় যা ৬ কোটি ৫ লাখ টাকা বেশি।

বৃহস্পতিবার (২৫ মে) ইউজিসির অর্থ ও হিসাব বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত সদস্য অধ্যাপক মো. আবু তাহের মুঠোফোনে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

আবু তাহের জানান, গত রবিবার (২১ মে) ইউজিসির চেয়ারম্যান অধ্যাপক কাজী শহীদুল্লাহর সভাপতিত্বে ১৬৫ তম পূর্ণ কমিশন সভা অনুষ্ঠিত হয়। এই বছর পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর জন্য ১২ হাজার ১৮৫ কোটি ৩৩ লাখ টাকার বাজেট অনুমোদন করেছে ইউজিসি। এতে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়কে ৬০ কোটি ৫৭ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

ইউজিসি অর্থ ও হিসাব বিভাগের তথ্য অনুযায়ী, সব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে সবচেয়ে বেশি (৮৫৩ কোটি ৮০ লাখ টাকা) বরাদ্দ পেয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। চলতি ২০২২-২৩ অর্থবছরে ৫৩টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুকূলে সংশোধিত বাজেটে ৯ হাজার ২৬৫ কোটি ১৭ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়। এক্ষেত্রে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য ২০২৩-২৪ অর্থবছরে বরাদ্দ বেড়েছে ২ হাজার ৯২০ কোটি টাকা।

এদিকে ২০২২-২৩ অর্থবছরে ইউজিসি হতে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের বরাদ্দকৃত অর্থের পরিমাণ ছিল ৫৪ কোটি ৫২ লাখ টাকা। সেই হিসেবে ২০২৩-২৪ অর্থবছরে বিশ্ববিদ্যালয়টিতে বরাদ্দ বেড়েছে ৬ কোটি ৫ লাখ টাকা।

নতুন অর্থবছরে ইউজিসির বরাদ্দকৃত বাজেট বিষয়ে কুবির কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মোঃ আসাদুজ্জামান বলেন, এই বাজেটটি আনুষ্ঠানিক ভাবে আমরা এখনো পাই নি। তবে শীঘ্রই এই বাজেটের টাকাসহ কুবির ২০২৩-২৪ অর্থবছরের মোট বাজেট সম্পর্কে পূর্ণাঙ্গ পরিকল্পনা গ্রহণ করা হবে।

   

মঙ্গলবার থেকে ৩ দিন অর্ধদিবস কর্মবিরতিতে যাবে জাবির শিক্ষকরা



জাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়। ছবি: বার্তা২৪.কম

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়। ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

অর্থ মন্ত্রণালয়ের জারিকৃত পেনশন সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপনকে ‘বৈষম্যমূলক’ আখ্যা দিয়ে তা প্রত্যাহার, সুপার গ্রেডে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের অন্তর্ভুক্তি এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের স্বতন্ত্র বেতনস্কেল প্রবর্তনের দাবিতে মঙ্গলবার (২৫ জুন) থেকে ৩ দিন অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালন করবে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) শিক্ষকগণ৷

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. শাহেদ রানা স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে কর্মবিরতি সংক্রান্ত এ ঘোষণা দেওয়া হয়। এছাড়া আগামী ০১ জুলাই থেকে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের পূর্ণদিবস কর্মবিরতির ঘোষণাও বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়৷

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি থেকে আগামী ২৫, ২৬ ও ২৭ জুন অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালন করবেন শিক্ষকরা। পরে ৩০ জুন পূর্ণদিবস কর্মবিরতি পালন করা হবে৷ তবে এ সময়ে অনুষ্ঠাতব্য পরীক্ষাসমূহ কর্মবিরতির আওতামুক্ত থাকবে৷ এছাড়া আগামী ০১ জুলাই থেকে দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত সর্বাত্মক কর্মবিরতি পালন করা হবে।

এর আগে, চলতি বছরের ১৩ মার্চ অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে একটি প্রজ্ঞাপন জারির মাধ্যমে সর্বজনীন পেনশন ব্যবস্থা প্রত্যয় স্কিমে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের অন্তর্ভুক্ত করা হয়। প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী আগামী ০১ জুলাই থেকে নিয়োগপ্রাপ্তরা এই স্কিমের অন্তর্ভুক্ত বলে বিবেচিত হবেন বলে জানানো হয়।

;

কর্মচারীদের হাতে অবরুদ্ধ বুয়েট উপাচার্য, লিখিত প্রতিশ্রুতি দিয়ে মুক্তি



ঢাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: কর্মচারীদের হাতে অবরুদ্ধ বুয়েট উপাচার্য

ছবি: কর্মচারীদের হাতে অবরুদ্ধ বুয়েট উপাচার্য

  • Font increase
  • Font Decrease

২০১৫ সালের পদোন্নতি নীতিমালা বহালের দাবিতে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) উপাচার্য ড. সত্য প্রসাদ মজুমদারকে নিজ কার্যালয়ে অবরুদ্ধ করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। কর্মচারীদের প্রতিনিধি দলকে লিখিত প্রতিশ্রুতি দিলে আন্দোলন স্থগিত করেন কর্মচারীগণ।

সোমবার (২৪ জুন) বিকেল থেকেই উপচার্যের কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ করছেন ৩ শতাধিক কর্মচারী। আন্দোলনের এক পর্যায়ে রাত সাড়ে আটটায় কর্মচারীদের ১০ সদস্যের প্রতিনিধি দলের সাতজে আলোচনায় বসেন বুয়েট উপাচার্য। কর্মচারীদের দাবি বাস্তবায়নের পক্ষে উপাচার্য নিজে সুপারিশ করে পরবর্তী সিন্ডিকেট সভায় প্রস্তাবনা তুলবেন বলে আশ্বাস দিলে আন্দোলন স্থগিত করেন কর্মচারীগণ।

আন্দোলনরত কর্মচারীরা জানান, গত বছরের ২৭ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত বুয়েট সিন্ডিকেটের ৫৪০তম সভায় ২৭-১২-২০২৩ তারিখের পরবর্তী সময়ে নীতিমালা-২০১৫ এর মাধ্যমে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো কর্মকর্তা বা কর্মচারীর পদোন্নতি, পদোন্নয়ন, সিলেকশন গ্রেড, সিনিয়র গ্রেড স্কেল প্রাপ্যতার জন্য বিবেচিত হবেন না বলে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। বিষয়টি জানিয়ে গতকাল রোববার বুয়েট কর্তৃপক্ষ একটি অফিস আদেশ জারি করে। এ আদেশে উল্লেখ করা হয়, নীতিমালা-২০১৫ এর মাধ্যমে ইতোমধ্যে যাদেরকে পদোন্নতি, পদোন্নয়ন, সিলেকশন গ্রেড, সিনিয়র গ্রেড স্কেল প্রদান করা হয়েছে তা অপরিবর্তিত থাকবে। নীতিমালা-২০১৫ এর মাধ্যমে ইতোমধ্যে যাদেরকে পদোন্নতি, পদোন্নয়ন, সিলেকশন গ্রেড, সিনিয়র গ্রেড স্কেল প্রদান করা হয়েছে, তাদের চাকুরি শেষ হলে/পদত্যাগ করলে/অপসারণ/পদচ্যুত করা হলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে তাদের অর্গানোগ্রাম বহির্ভূত পদ বিলুপ্ত হবে এবং অর্গানোগ্রামভূক্ত মূল পদ শূন্য হবে।

এছাড়াও, ২৭-১২-২০২৩ তারিখের পরবর্তী সময়ে প্রাপ্যতার ক্ষেত্রে কর্মকর্তা ও কর্মচারীকে পদোন্নতি, পদোন্নয়ন, সিলেকশন গ্রেড, সিনিয়র গ্রেড স্কেল প্রদানে সরকারি নীতিমালা এবং ইউজিসি অনুমোদিত অর্গানোগ্রাম প্রযোজ্য হবে। কোনো কর্মকর্তা ও কর্মচারী যদি সরকারি নীতিমালায় ইতোমধ্যে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় প্রণীত নীতিমালা-২০১৫ এর মাধ্যমে প্রাপ্ত গ্রেডের চেয়ে উচ্চতর গ্রেড অথবা পদপ্রাপ্ত হন তাহলে তা প্রদান করা হবে। সব সিদ্ধান্ত উল্লেখপূর্বক অনুমোদনের জন্য ইউজিসিতে প্রেরণ করা হবে বলেও ওই অফিস আদেশে জানানো হয়।

তাই তারা দাবি উপস্থাপন করে বলেন, আমরা আগের নীতিমালা বহাল চাই। এই দাবিতে উপচার্যকে অবরুদ্ধ করা হয়েছে। তিনি যেন আলোচনার মাধ্যমে বিষয়টির সমাধান করেন সেই দাবি জানাই। তিনি বহুবার আমাদের আশ্বাস দিয়েছেন কিন্তু আজকে তার শেষ কার্যদিবসে আমরা এমন একটি প্রজ্ঞাপন দেখলাম যেটি মোটেও কাম্য নয়। আমরা অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো বুয়েটেও ন্যায্য সুবিধাদি চাই।

উল্লেখ্য, অবরুদ্ধ অবস্থা থেকে উপাচার্য বের হয়ে নিজ বাসভবনে যাওয়ার সময় আন্দোলনরত কর্মচারিগণ তাকে উদ্দেশ্য করে 'ভুয়া,ভুয়া' স্লোগান দিয়ে ঘিরে রাখেন। এ সময় সাংবাদিকরা বিভিন্ন প্রশ্ন করলে তিনি জবাব দেন নি।

;

তিনদিন অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালন করবে কুবি শিক্ষক সমিতি



কুবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, কুমিল্লা
কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক

  • Font increase
  • Font Decrease

বৈষম্যমূলক পেনশন স্কিম প্রত্যাহার, সুপার গ্রেডে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের অন্তর্ভুক্তি এবং শিক্ষকদের জন্য স্বতন্ত্র বেতন স্কেল প্রবর্তনের দাবিতে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের নির্দেশনা মোতাবেক দেশের সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ন্যায় আগামী ২৫, ২৬ ও ২৭ জুন অর্ধদিবস কর্মবিরতি করবে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় (কুবি) শিক্ষক সমিতি।

সোমবার (২৪ জুন) মুঠোফোনে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. আবু তাহের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

এই বিষয়ে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. আবু তাহের বলেন, 'কেন্দ্রীয় নির্দেশনা মোতাবেক আমরা ২৫ জুন সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালন করবো। পরীক্ষাসমূহ কর্মবিরতির আওতামুক্ত থাকবে।'

প্রসঙ্গত, প্রত্যয় স্কিম নিয়ে জারি করা প্রজ্ঞাপন ও অর্থ মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তির তথ্যানুযায়ী- আগামী ১ জুলাই বা তার পরে স্বশাসিত, স্বায়ত্তশাসিত, রাষ্ট্রায়ত্ত, সংবিধিবদ্ধ বা সমজাতীয় সংস্থার চাকরিতে যারা যোগদান করবেন, তাদের বাধ্যতামূলকভাবে সর্বজনীন পেনশন ব্যবস্থায় প্রত্যয় স্কিমে যুক্ত করা হবে। স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান হিসেবে দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলো এর অন্তর্ভুক্ত হবে। এছাড়াও ২০২৫ সাল থেকে সরকারি কর্মকর্তারা এ পেনশনের অন্তর্ভুক্ত থাকবে।

;

‘প্রত্যয় স্কিম’ বাতিলের দাবিতে ফের কর্মবিরতির ঘোষণা ইবিশিস'র



ইবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, কুষ্টিয়া
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

অর্থ মন্ত্রণালয় জারিকৃত পেনশন সংক্রান্ত বৈষম্যমূলক প্রজ্ঞাপন প্রত্যাহারসহ তিন দফা দাবিতে ফের তিনদিনের অর্ধদিবস কর্মবিরতির ঘোষণা দিয়েছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি (ইবিশিস)। এর আগে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশন এক বিজ্ঞপ্তিতে চলমান আন্দোলনের পরবর্তী কর্মসূচির ঘোষণা করা হয়।

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি (ইবিশিস) ওই কর্মসূচির সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে আগামীকাল (মঙ্গলবার) থেকে বৃহস্পতিবার প্রতিদিন বেলা ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত অনুষদ ভবনের নিচতলায় অবস্থান কর্মসূচি পালন করবে। তবে পরীক্ষাসমূহ কর্মবিরতির আওতামুক্ত থাকবে।

সোমবার (২৪ জুন) ইবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. মামুনুর রহমান স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে কর্মবিরতিসহ তিন দফা দাবির বিষয়ে জানানো হয়।

তাদের অপর দাবিগুলো হলো- প্রতিশ্রুতি সুপার গ্রেডে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের অন্তর্ভুক্তি এবং শিক্ষকদের জন্য স্বতন্ত্র বেতনস্কেল প্রবর্তন। এদিকে কর্মবিরতির পাশাপাশি প্রতিদিন এক ঘণ্টা অবস্থান কর্মসূচিরও ঘোষণা দিয়েছেন তারা।

এদিকে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের বিজ্ঞপ্তি সূত্রে জানা যায়, আগামী ২৪ জুন তারিখের মধ্যে ১৩ই মার্চ ২০২৪ তারিখ জারিকৃত 'প্রত্যয় স্কিম' সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন প্রত্যাহার, সুপার গ্রেডে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের অন্তর্ভুক্তি এবং শিক্ষকদের জন্য স্বতন্ত্র বেতনস্কেল প্রবর্তনের কার্যকর কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ না করা হয়, তবে আগামী ২৫, ২৬ ও ২৭ জুন অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালিত হবে। তবে পরীক্ষাসমূহ কর্মবিরতির আওতামুক্ত থাকবে। এরপর ৩০ জুন পূর্ণদিবস কর্মবিরতি পালিত হবে এবং এদিনও পরীক্ষাসমূহ কর্মবিরতির আওতামুক্ত থাকবে। এছাড়াও ১ জুলাই থেকে দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়সমূহে সর্বাত্মক কর্মবিরতি পালিত হবে।

এ বিষয়ে ইবি শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. মামুনুর রহমান বলেন, ফেডারেশনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আমরা এই কর্মসূচি গ্রহণ করেছি। আগামী ৩০ জুলাই আমরা দিনব্যাপী কর্মবিরতি পালন করবো। পরীক্ষাসমূহ এর আওতার বাইরে থাকবে। এতেও দাবি না মানা হলে আমরা পহেলা জুলাই থেকে সর্বাত্মক কর্মবিরতি করবো৷ ক্লাস-পরীক্ষাসহ যাবতীয় একাডেমিক কার্যক্রম আমরা বর্জন করবো।

;