ইতিবাচক ধারায় পুঁজিবাজার

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ইতিবাচক প্রবণতার মধ্য দিয়ে সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) দেশের পুঁজিবাজারে লেনদেন হয়েছে। এদিন দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচক বেড়েছে ৭৩ পয়েন্ট।

অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক বেড়েছে ২১০ পয়েন্ট। সূচকের পাশাপাশি বেড়েছে বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম এবং লেনদেন। আর তাতে নতুন বিনিয়োগকারীদের মূলধনও বেড়েছে।

বৃহস্পতিবার ডিএসইতে সূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতার মধ্য দিয়ে লেনদেন শুরু হয়। ব্যাংক, বিমাসহ বেশির ভাগ খাতের শেয়ারের দাম বাড়ায় লেনদেন শেষ হয় একইভাবে।

দিন শেষে ডিএসইতে ৩৫৬টি কোম্পানির ১৮ কোটি ৩৩ লাখ ৯১ হাজার ৬৫৯টি শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের কেনা-বেচা হয়েছে। তাতে লেনদেনের পরিমাণ ৫১৪ কোটি ৩৯ লাখ ৫৫ হাজার ৫৭৫ টাকা।

এদিন ডিএসই ব্রড ইনডেক্স আগের কার্যদিবসের চেয়ে ৭৩ দশমিক ৬০ পয়েন্ট বেড়ে ৪ হাজার ৫১৩ দশমিক ৮৯ পয়েন্ট, ডিএস-৩০ মূল্য সূচক ২৩ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৫৪৩ পয়েন্ট এবং ডিএসইএস শরিয়াহ সূচক ১৬ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৩৫ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

লেনদেন হওয়া কোম্পানির শেয়ারের মধ্যে দাম বেড়েছে ২৮০টির, কমেছে ৪৪টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩২টির।

সিএসইতে লেনদেন হওয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে ২০৩টির কমেছে ৩৭টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ২৫ কোম্পানির শেয়ারের দাম বেড়েছে। তাতে সিএসইর প্রধান সূচক ২১০ বেড়ে দাঁড়িয়েছে পয়েন্টে। লেনদেন হয়েছে ১৬ কোটি ৮১ লাখ ৬ হাজার ১২ টাকা।

বৃহস্পতিবার ডিএসইতে লেনদেন হওয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি দাম বেড়েছে রিলায়েন্স ইন্স্যুরেন্স, রংপুর ফাউন্ড্রি, বিবিএস, ঢাকা ইন্স্যুরেন্স, কপারটেক ইন্ডাস্ট্রিজ, সাইফ পাওয়ার, ন্যাশনাল হাউজিং, এসকোয়ার নিট কম্পোজিট, এসইএমএল আইবিবিএল শরীয়াহ্ ফান্ড ও এসইএমএল এফবিএসএল গ্রোথ ফান্ডের শেয়ারের।

আপনার মতামত লিখুন :