জমকালো আয়োজনে শেষ হলো স্টাডি ইন ইন্ডিয়া এক্সপো



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশের বিশাল শিক্ষার্থী জনগোষ্ঠীর শিক্ষাগত ভবিষ্যতের চাহিদা পূরণ করতে 'স্টাডি ইন ইন্ডিয়া এক্সপো' একটি প্রধান আয়োজন। এ বছর অ্যাফেয়ার্স এক্সিবিশনস অ্যান্ড মিডিয়া প্রাইভেট লিমিটেড ভারতীয় শিক্ষার জনপ্রিয় প্রদর্শনী নিয়ে জমকালো আয়োজনে রাজধানী ঢাকায় অনুষ্ঠিত হয়েছে স্টাডি ইন ইন্ডিয়া এক্সপো। এবারের মেলাটি ভারতের শীর্ষস্থানীয় বোর্ডিং স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে ভর্তির জন্য সারা বাংলাদেশের শিক্ষার্থীদের জন্য দ্বার উন্মুক্ত করেছে।

ঢাকার যমুনা ফিউচার পার্কে শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) শুরু হওয়া দুইদিন ব্যাপি এই এক্সপোটি শেষ হয়েছে আজ।

এক্সপোটি এক ছাদের নীচে ভারতের ৩০টির ও বেশী সেরা বোর্ডিং স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর প্রধানদের সাথে শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকদের যোগাযোগ করা এবং ভর্তি হওয়া সহজ করে তোলে। এক্সপোটি শুধু ঢাকার শিক্ষার্থীদের জন্য নয়, সারা দেশের শিক্ষার্থীদের জন্যও সুযোগ এনে দিয়েছে। এছাড়াও, এক্সপোটি শিক্ষার্থীদের তাদের পছন্দের প্রতিষ্ঠানে অন-স্পট আবেদন করার এবং ১০০ শতাংশ পর্যন্ত মেধা-ভিত্তিক বৃত্তি অর্জন করার একটি অনন্য সুযোগ প্রদান করবে।

স্টাডি ইন ইন্ডিয়া এক্সপো এক ছাদের নীচে ভারতের শীর্ষস্থানীয় কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়গুলির ২০০টির অধিক বিভিন্ন বিষয়ের কোর্স প্রদর্শন করবে, যার মধ্যে অনেকগুলি NAAC-স্বীকৃত এবং NIRF- রেটিংযুক্ত। এই কোর্সগুলিতে Al. মেশিন লার্নিং, রোবোটিক্স, ক্লাউড-কম্পিউটিং, AR, VR এবং আরও অনেক নতুন যুগের কোর্সের পাশাপাশি ইঞ্জিনিয়ারিং, চিকিৎসা, বিজ্ঞান, ফার্মেসি, বিসনেস ম্যানেজমেন্ট ইত্যাদি ঐতিহ্যবাহী জনপ্রিয় কোর্স অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। এই প্রতিষ্ঠানগুলির প্রধান এবং ভর্তি টিম উচ্চ শিক্ষায় আগ্রহী শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকদের সাথে সরাসরি আলাপ করে মূল্যবান মতামত প্রদান করবেন, অন- স্পট কাউন্সেলিং করবেন এবং তাদের একাডেমিক এবং পেশাদার ভবিষ্যতের জন্য সঠিক পথ বেছে নিতে তাদের গাইড করবেন।

এক্সপোতে চারটি বোর্ড (Cambridge, IB, CBSE এবং ICSE) এর অধিন ঐতিহ্যবাহী এবং নতুন যুগের স্কুল সহ ১০টির ও বেশী ভারতের প্রধান শহরগুলির সেরা বোর্ডিং স্কুলগুলিও প্রদর্শিত হবে, যা সাশ্রয়ী মূল্যের ফি রেঞ্জে বিশ্বমানের অবকাঠামো এবং আন্তর্জাতিক মানের শিক্ষা প্রদান করবে। এই প্রতিষ্ঠানগুলির প্রধানরা এবং এডমিশন টিম ক্যাম্পাস, কোর্স, অনুষদ, ফি, বৃত্তি এবং আরও অনেক কিছু সম্পর্কিত সমস্ত প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার জন্য ভেন্যুতে উপস্থিত থাকবেন।

বিশেষজ্ঞ ক্যারিয়ার কাউন্সেলররাও শিক্ষার্থীদের সঠিক কোর্স বাছাই করতে এবং ভর্তি সম্পর্কিত আপডেট এবং সঠিক তথ্য সরবরাহ করতে গাইড করার জন্য ভেন্যুতে উপস্থিত থাকবেন। অন-স্পট মূল্যায়ন এবং অন-স্পট অ্যাপ্লিকেশনগুলি প্রক্রিয়াটিকে দ্রুত এবং সহজ করে তোলে।

   

টেস্ট পরীক্ষার নামে বাড়তি ফি নিলে কঠোর ব্যবস্থা: শিক্ষামন্ত্রী



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে টেস্ট পরীক্ষার নামে বাড়তি ফি আদায় করলে সংশ্লিষ্ট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে নির্দেশ দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী।

মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে পোস্ট করা এক চিঠির মাধ্যমে এ নির্দেশনার তথ্য জানা যায়।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, টেস্ট পরীক্ষার নামে এবং পরীক্ষার কারণ দেখিয়ে অ্যাডমিট কার্ড দেওয়া থেকে বঞ্চিত করাসহ শিক্ষার্থীদের নিকট থেকে বিভিন্নভাবে আর্থিক সুবিধা নিচ্ছে মর্মে বিভিন্ন মাধ্যম থেকে অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে। টেস্ট পরীক্ষার নামে কোন শিক্ষার্থীর কাছ থেকে বাড়তি ফি আদায় করা যাবে না এবং পরীক্ষার কারণ দেখিয়ে অ্যাডমিট কার্ড দেওয়া থেকে বঞ্চিত করা যাবে না বলে শিক্ষামন্ত্রী নির্দেশনা দিয়েছেন।

আরও বলা হয়, এই নির্দেশনার প্রতিপালন না করলে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট ব্যবস্থা গ্রহণপূর্বক মন্ত্রণালয়কে অবহিত করার জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।

;

এ মাসেই ৪৬তম বিসিএস, মানতে হবে যেসব নির্দেশনা



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

চলতি মাসের ২৬ তারিখ অনুষ্ঠিত হবে ৪৬তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা। ওইদিন ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, সিলেট, রংপুর ও ময়মনসিংহ কেন্দ্রে একযোগে হবে এ পরীক্ষা।

এ নিয়ে পরীক্ষার্থীদের জন্য একগুচ্ছ নির্দেশনা দিয়েছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)।

শনিবার (৬ এপ্রিল) এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানায় পিএসসি।

এতে বলা হয়েছে, প্রিলিমিনারি পরীক্ষাকেন্দ্রে বইপুস্তক, সব ধরনের ঘড়ি, মোবাইল ফোন, ক্যালকুলেটর, সব ধরনের ইলেকট্রনিক ডিভাইস, ব্যাংক বা ক্রেডিট কার্ডসদৃশ কোনো ডিভাইস, গহনা, ব্রেসলেট ও ব্যাগ আনা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। এসব সামগ্রীসহ কোনো প্রার্থী পরীক্ষাকেন্দ্রে ঢুকতে পারবেন না।

পরীক্ষাকেন্দ্রের গেটে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট-পুলিশের উপস্থিতিতে প্রবেশপত্র এবং মেটাল ডিটেক্টরের সাহায্যে মোবাইল ফোন, ঘড়ি, ইলেকট্রনিক ডিভাইসসহ নিষিদ্ধসামগ্রী তল্লাশির মধ্যদিয়ে প্রার্থীদের পরীক্ষাকেন্দ্রে ঢুকতে হবে।

পরীক্ষার দিন উল্লিখিত নিষিদ্ধ সামগ্রী সঙ্গে না আনার জন্য সব প্রার্থীর মোবাইল ফোনে এসএমএস পাঠানো হবে। এসএমএসের নির্দেশনা অনুসরণ করতে হবে। পরীক্ষার সময় প্রার্থীদের কান খোলা রাখতে হবে। কানে কোনো ধরনের হিয়ারিং এইড ব্যবহারের প্রয়োজন হলে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শপত্রসহ আগেই কমিশনের অনুমতি নিতে হবে।

পরীক্ষাকেন্দ্রে কোনো প্রার্থীর কাছে এসব নিষিদ্ধ সামগ্রী পাওয়া গেলে তা বাজেয়াপ্তসহ বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (বয়স, যোগ্যতা ও সরাসরি নিয়োগের জন্য পরীক্ষা) বিধিমালা ২০১৪-এর বিধিভঙ্গের কারণে সংশ্লিষ্ট প্রার্থীর প্রার্থিতা বাতিলসহ ভবিষ্যতে কর্ম কমিশনের নিয়োগ পরীক্ষার জন্য ওই প্রার্থী অযোগ্য ঘোষিত হবেন।

২৬ এপ্রিল সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত ২০০ নম্বরের এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষার্থীদের সকাল ৯টা ৩০ মিনিটের মধ্যে আসনগ্রহণ করতে হবে। এরপর পরীক্ষাকেন্দ্রের ফটক বন্ধ করে দেওয়া হবে।

;

আন্তর্জাতিক মানব মহাকাশ উড্ডয়ন দিবসে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা



ডেস্ক রিপোর্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

আন্তর্জাতিক মানব মহাকাশ ফ্লাইট দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন (বিএএ)এর সহযোগিতায় ঢাকায় রাশিয়ান হাউসের উদ্যোগে ঢাকায় ‘ইউরি গ্যাগারিন: দ্য ফার্স্ট ম্যান ইন স্পেস’ শীর্ষক চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বাংলাদেশ অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন অফিস চত্বরে বৃহস্পতিবার এই চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন ঢাকাস্থ রাশিয়ান হাউজের পরিচালক পাভেল দভয়চেনকভ।

চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় অতিথিদের সঙ্গে পুরষ্কারপ্রাপ্তরা

উদ্বোধনী বক্তব্যে তিনি ইউরি গাগারিনের শৈশব, পেশাগত জীবন এবং তার ঐতিহাসিক মহাকাশ উড্ডয়নের পাশাপাশি রাশিয়ান মহাকাশ কর্মসূচির ইতিহাস এবং বৈজ্ঞানিক কার্যক্রম এবং এই ক্ষেত্রে বিশ্বব্যাপী অগ্রগতির উপর তাদের প্রভাব সম্পর্কে কথা বলেন।

চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজ, সরকারি ল্যাবরেটরি হাই স্কুল, স্কলাস্টিকা স্কুলসহ ঢাকার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অংশ নেয়।

ছবি আঁকতে ব্যস্ত শিশুরা

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন, বাংলাদেশ জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘর, ঢাকা এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নভোথিয়েটারের নির্বাহী সদস্য ছাড়াও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা উপস্থিত ছিলেন। প্রতিযোগিতা শেষে ঢাকায় রাশিয়ান হাউসের পরিচালক বিজয়ীদের মাঝে স্মারক সুভ্যেনির ও সনদপত্র বিতরণ করেন।

;

নাটোরের শ্রুতিকটু ৫৩ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
নাটোরের শ্রুতিকটু ৫৩ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন

নাটোরের শ্রুতিকটু ৫৩ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন

  • Font increase
  • Font Decrease

লেংগুড়িয়া, মাটিকোপা-২, ঠেংগামারা, নেংটাদহ, পাওধোয়াসহ বিভিন্ন রকমের শ্রুতিকটু ও নেতিবাচক নাম থাকায় নাটোরের ৫৩টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করেছে সরকার।

বুধবার (০৩ এপ্রিল) প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় প্রজ্ঞাপন জারি করে নাম পরিবর্তনের কথা জানিয়েছে। এতে স্বাক্ষর করেন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মোহাম্মদ কবির উদ্দীন।

প্রজ্ঞাপনে দেখা যায়, নাটোরের লেংগুড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- আনন্দ ভুবন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মাটিকোপা-২ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- মাতৃছায়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বলদখাল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- স্বপ্নসিঁড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মাটিকোপা-১ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- অক্ষরমালা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মদনহাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- শিশু কানন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কাটাশকোল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- কাঁঠালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, খাকসা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- বনলতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কচুগাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- মাধবীলতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, থানাইখাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- চকপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, লক্ষ্মীচামারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- লক্ষ্মীনিকেতন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চামটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- পদ্মপুকুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, নেংটাদহ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- শাপলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ভবানীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- পাবনাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মাকুপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- জাগরণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

ঠেংগামারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- অঙ্কুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, করমদোষী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- কলমিলতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পোয়ালশুরা পাটপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- ধানসিঁড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, দড়িহাঁসমারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- তিতাস সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পোয়ালশুরা দড়িপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- দড়িপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চামটিয়া ভাটপাড়া সরকারি প্রাথমিকবিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- সবুজছায়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, গোদাগাছা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- সালামপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ঢুষপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- আলোর দিশারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

চোষডাংগা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- বড়াল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চিকাদহ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- আত্রাই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, হাগড়াগাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- দিগন্ত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চামটিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- তিলকপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ধনকোড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- অপরাজিতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বুড়িরভাগ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- নয়নতারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মদনহাট পাবনাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- হাসনাহেনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বামনগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- মাধবীলতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, গোয়ালঘাট বামনগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- অলকানন্দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পুরুষোত্তম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- উদয়পদ্ম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বাংগালখলসী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- জ্ঞানপ্রদীপ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, রামশার কাজীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- আমতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কাউয়াটিকরী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- পায়রা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কুঞ্চি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- কাঁঠালবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কুস্তা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- পলাশবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কুমগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- হৈমন্তী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, সিকিচোড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- বিলাসী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চামারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- পদ্ম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। 

গুনাইখাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- চন্দ্রমল্লিকা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ভাগনাগরকান্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- পুষ্পবিথী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পুঠিমারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে দৌলনচাপা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ভুলবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- কৃষ্ণচূড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পাওধোয়া ত্রিমোহনী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- ত্রিমোহনী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, গুনাইখাড়া পশ্চিমপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- শিশু কানন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, থেলকুড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- কুসুমকলি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ভোগা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- ডালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চক লাডুয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- মাধবীলতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, আগলাডুয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- সবুজসাথী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পূর্ব ভেংড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- ভৈরব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

গুনাইখাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- চন্দ্রমল্লিকা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ভাগনাগরকান্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- পুষ্পবিথী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পুঠিমারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- দৌলনচাপা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ভুলবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- কৃষ্ণচূড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পাওধোয়া ত্রিমোহনী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- ত্রিমোহনী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, গুনাইখাড়া পশ্চিমপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- শিশু কানন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, খেলকুড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- কুসুমকলি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ভোগা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- ডালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চক লাডুয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- মাধবীলতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, আগলাডুয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- সবুজসাথী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পূর্ব ভেংড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে- ভৈরব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

;