বসুন্ধরা সিটির স্টার সিনেপ্লেক্স আর থাকছে না!



বৃষ্টি শেখ খাদিজা, নিউজরুম এডিটর, বার্তা২৪.কম
স্টার সিনেপ্লেক্স

স্টার সিনেপ্লেক্স

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজধানীর চলচ্চিত্রপ্রেমীদের জন্য মন খারাপের খবর। বসুন্ধরা সিটির স্টার সিনেপ্লেক্স আর থাকছে না। তবে করোনাভাইরাস মহামারি এর কারণ নয়। আগামী অক্টোবরে বসুন্ধরা সিটি কর্তৃৃপক্ষের সঙ্গে জনপ্রিয় মাল্টিপ্লেক্সটির চুক্তি শেষ হওয়ায় এমন সিদ্ধান্ত নিতে হচ্ছে।

বার্তা২৪.কমকে এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন স্টার সিনেপ্লেক্সের মিডিয়া-বিপণন বিভাগের জ্যেষ্ঠ ব্যবস্থাপক মেসবাহ উদ্দিন আহমেদ। তিনি বলেন, ‘বসুন্ধরা সিটিতে আমাদের কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। গত মাসে আমরা ফ্লোর ছেড়ে দেওয়ার নোটিশ পেয়েছি। মার্কেট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আমাদের চুক্তি আর নবায়ন হচ্ছে না।’

বসুন্ধরা সিটি ছিল স্টার সিনেপ্লেক্সের প্রাণকেন্দ্র। এটি বন্ধ হলে মাল্টিপ্লেক্সটির পথচলা কঠিন হবে মানছেন মেসবাহ উদ্দিন আহমেদ। তিনি বার্তা২৪.কমকে আরও বলেন, ‘আমরা মনে করি, গোটা চলচ্চিত্র শিল্পের ওপর নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। কারণ আমাদের দর্শকদের সিংহভাগই বসুন্ধরা সিটিতে আসতেন। এখান থেকে চলে যাওয়া সত্যি দুঃখজনক।’

২০০৪ সালে বসুন্ধরা সিটিতে স্টার সিনেপ্লেক্সের কার্যক্রম শুরু হয়। এতে রয়েছে ছয়টি বড় পর্দা। মেসবাহ উদ্দিন আহমেদের কথায়, ‘বসুন্ধরা সিটিতে সবশ্রেণীর দর্শক সিনেমা উপভোগ করতে এসেছেন। তাদের ভালোবাসা আমাদের সবসময় অনুপ্রাণিত করেছে। কিন্তু পরিস্থিতি মেনে নিতেই হবে। আশা করি, আমাদের অন্য শাখাগুলোতে এসব দর্শক আসবেন।’

স্টার সিনেপ্লেক্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাহবুব রহমান রুহেল এবং মিডিয়া-বিপণন বিভাগের জ্যেষ্ঠ ব্যবস্থাপক মেসবাহ উদ্দিন আহমেদ
 

ঢাকায় স্টার সিনেপ্লেক্সের শাখা রয়েছে জিগাতলায় সীমান্ত স্কয়ার ও মহাখালীর এসকে টাওয়ারে। তবে করোনাভাইরাস মহামারির কারণে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী ছয় মাস ধরে সব প্রেক্ষাগৃহ বন্ধ রাখা হয়েছে। প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাহবুব রহমান রুহেল সিনেমা হল মালিকদের প্রণোদনা দিতে সম্প্রতি সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।