ভক্তদের চাহিদা কতোটা পূরণ করলো মিলার ‘টোনা টুনি’



মাসিদ রণ, সিনিয়র নিউজরুম এডিটর, বার্তা২৪.কম
‘টানা টুনি’ মিউজিক ভিডিওতে মিলা

‘টানা টুনি’ মিউজিক ভিডিওতে মিলা

  • Font increase
  • Font Decrease

ঈদ উপলক্ষ্যে নতুন মিউজিক ভিডিও নিয়ে হাজির জনপ্রিয় পপ তারকা মিলা ইসলাম। ‘টোনা টুনি’ নামের গানটিতে যেন সেই এক দশক আগের মিলাকে পাওয়া গেলো। না, শুধু গানের আমেজই নয়, গানটির ভিডিওটি দেখলে বোঝা যাবে এই গানের শুটিংও করা হয়েছে অনেক বছর আগে। কারণ, ‘টোনা টুনি’ মিউজিক ভিডিওতে যে মিলাকে দেখা যাচ্ছে তার সঙ্গে বর্তমানের মিলার চেহারার কোন মিল নেই। এই মিলা সেই ‘রূপবানে নাচে কোমর দুলাইয়া’ কিংবা ‘বাপুরাম শাপুড়ে’র সময়কার মিলা!

গত ১৫ জুন জি সিরিজের ব্যানারে মুক্তি পেয়েছে ‘টোনা টুনি’ গানের ভিডিও। মুক্তির আগে গানটি নিয়ে দারুণ আশাবাদী ছিলেন মিলা। তিনি বার্তা২৪.কমকে বলেন, ‘নতুন গান আসছে ঈদে। আমি খুবই এক্সাইটেড। গানটি যেন হিট হয় সেটাই চাওয়া।’

‘টানা টুনি’ মিউজিক ভিডিওতে মিলা

মিলা তার ভেরিয়ায়েড ফেসবুকে গানের লিংক শেয়ার দিয়েছেন। তাতে ভিউ হয়েছে প্রায় দেড় মিলিয়ন। আর জি সিরিজের ইউটিউব চ্যানেল গানটির ভিউ ৭০ হাজারের কাছাকাছি। গানটি খুব বেশি শ্রোতার কাছে না পৌঁছালেও অনেকেই এই গানে পুরনো মিলাকে দেখে নস্টালজিক হয়ে পড়েছেন বলে জানিয়েছেন।

সমালোচনাও যে আসেনি না কিন্তু নয়! অনেকে লিখেছেন, এই সময়ে এসে এতো আগের একটি গান প্রকাশ করাটা বেমানান। ভিডিওতেও নেই যত্নের ছাপ!

‘টানা টুনি’ মিউজিক ভিডিওতে মিলা ও মডেল অমি

মিলা বহুবার নিজেকে প্রমাণ করেছেন। অ্যালবাম যুগে তিনি ছিলেন অন্যতম চাহিদাসম্পন্ন শিল্পী। মিলা ফিউশন ও লোকধারার গানও গেয়ে থাকেন। মিলা মানেই স্টেজ শো’র প্রধান আকর্ষণ। তাকে সর্বশেষ তিন বছর আগে জি-সিরিজের ‘আইসালা’ শিরোনামের একটি মিউজিক ভিডিও নিয়ে হাজির হতে দেখা যায়। 

নতুন গানটি নিয়ে আশাবাদী মিলা। তিনি বলেন, ‘প্রথমবার আইটেম গানে হাজির হয়েছিলাম বহুল প্রশংসিত ‘রূপবান’ গানে। এরপর আর কখনোই এভাবে দেখা যায়নি আমায়। এরপর অসংখ্য বার আমার ভক্তরা আইটেম গানে দেখার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।’

‘টানা টুনি’ মিউজিক ভিডিওতে মিলা

মিলা বলেন, ‘‘ভক্তদের চাহিদায় ‘টোনা টুনি’ গানটি নিয়ে হাজির হয়েছি। তবে এমন আইটেম গানে আর কখনো হাজির হবো না। ২ বছর আগে গানটি তৈরি করেছি। বেশ সময় নিয়ে কাজটি করেছি যাতে দীর্ঘ সময় পর শ্রোতা-দর্শকরা নিরাশ না হয়। এমন একটি চমক নিয়েই ফিরতে চেয়েছিলাম। অপেক্ষার অবসান। এখন সবার প্রতিক্রিয়া জানার অপেক্ষায়।’

মিলা আরও বলেন, ‘‘টিকটকে সবচেয়ে বেশি যাদের ভিডিও ভিউ হবে এবং পারফর্ম ভালো করবে এমন ১০ জনের সঙ্গে আমি পারফর্ম করব। ‘টোনা টুনি’ গানের কথাগুলো একেবারে আলাদা। আমি ড্যান্সার না তারপরও এই গানের জন্য নাচ করতে হয়েছে। নিজের সেরাটা দিয়ে ভালো করার চেষ্টা করেছি। এতটুকু বলতে পারি বিভিন্ন উৎসব মাতানোর মতো একটি গান হয়েছে। গানটি দিয়ে মঞ্চ মাতানোর অপেক্ষায় আছি।’’

‘টানা টুনি’ মিউজিক ভিডিওতে মিলা

মিলা বলেন, ‘বিভিন্ন কারণে মাঝে কিছু সময় নষ্ট হয়েছে। আর সেটা হতে দিতে চাই না। কারণ আমি জানি আমার শ্রোতা-দর্শক আমাকে কতটুকু চায়। স্টেজ শোর ধারবাহিকতা অব্যাহত থাকবে। তাছাড়া নতুন গানের কাজও করা আছে। নতুন বছর কয়েকটি গান নিজের মনের মতো করে প্রকাশ করতে চাই।’

ইন্তেখাব দিনার এবার বড়পর্দার খলনায়ক



মাসিদ রণ, সিনিয়র নিউজরুম এডিটর, বার্তা২৪.কম
ইন্তেখাব দিনার

ইন্তেখাব দিনার

  • Font increase
  • Font Decrease

মঞ্চ থেকে টেলিভিশন। তারপর নাম লেখান বড়পর্দায়। তবে ওটিটি আসার পর নিজের জাত আলাদাভাবেই চিনিয়েছেন অভিনেতা ইন্তেখাব দিনার। জটিল ও বৈচিত্র্যময় চরিত্রগুলোতে সাবলিল অভিনয়ের জন্য এখন নির্মাতাদের অন্যরকম আস্থার জায়গায় রয়েছেন এই অভিনেতা।

তাইতো সম্প্রতি আরেকটি চ্যালেঞ্জ হাতে নিলেন দিনার। মেধাবী নির্মাতা ফাখরুল আরেফীন খানের নতুন সিনেমা ‘নীল জোছনা’য় চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন তিনি। এর আগে ‘ভূবন মাঝি’, ‘গণ্ডি’, ‘জেকে ১৯৭১’ ছবিগুলো নির্মাণ করেছেন ফারখরুল। আর এবার সরকারী অনুদানের ‘নীল জোছনা’ সিনেমাটি নির্মাণ করতে যাচ্ছেন মোশতাক আহমেদের প্যারাসাইকোলজি বিষয়ক উপন্যাস ‘নীল জোছনার জীবন’ অবলম্বনে।

ইন্তেখাব দিনার

জানা গেছে, এই সিনেমায় দিনারকে দেখা যাবে সেন্টু নামের চরিত্রে। এটি এই সিনেমার নেতিবাচক চরিত্র। ইন্তেখাব দিনার বলেন, ‘বহু বছর ধরে এমন একটি চরিত্রের অপেক্ষায় ছিলাম। সিনেমাটির গল্প খুবই ভালো লেগেছে। আর নির্মাতার সঙ্গে এটা আমার প্রথম কাজ। আশা করছি, এটি দারুণ একটি চলচ্চিত্র হবে।’ তিনি আরও বলেন, ‘অভিনয়ে নিজের ইমেজ ভেঙে এই ছবিতে ভিন্ন একটি চরিত্রে কাজ করছি। কতটুকু করতে পারছি জানি না, তবে সর্বোচ্চ চেষ্টা দিয়ে এই সিনেমার নেতিবাচক চরিত্রে নিজেকে আবিষ্কার করেছি। আমার ভক্ত আর দর্শকদের কাছে অনুরোধ থাকবে, ছবিটি দেখতে সিনেমা হলে যাবেন সবাই।’

দিনার প্রসঙ্গে নির্মাতা আরেফীন বলেন, ‘এর আগ টেলিভিশন, ওটিটি কিংবা সিনেমায় ইন্তেখাব দিনারকে এমন চরিত্রে দেখা যাইনি। সে জায়গা থেকে বলতে গেলে তিনি দারুণ করেছেন। আশা করছি সিনেমাটির কাজ ঠিকঠাক মতো শেষ করতে পারব।’

পাওলি দাম, পার্থ বড়ুয়া ও মেহের আফরোজ শাওন

‘নীল জোছনা’ সিনেমায় আরও অভিনয় করেছেন পশ্চিমবাংলার নন্দিত অভিনেত্রী পাওলি দাম, বাংলাদেশের জনপ্রিয় তারকা মেহের আফরোজ শাওন, নামকরা সংগীতশিল্পী ও অভিনেতা পার্থ বড়ুয়াসহ অনেকে।

;

কাকে ‘কোকিল নামযুক্ত কূটনী বুড়ি’ বললেন ন্যানসি?



মাসিদ রণ, সিনিয়র নিউজরুম এডিটর, বার্তা২৪.কম
নাজমুন মুনিরা ন্যানসি / ছবি : নূর

নাজমুন মুনিরা ন্যানসি / ছবি : নূর

  • Font increase
  • Font Decrease

জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী নাজমুন মুনিরা ন্যানসি এখন গানে বেশ অনিয়মিত। নিজের মতো করে অল্প বিস্তর মিউজিকের কাজ করছেন। তবে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরব থাকতে দেখা যায় এই শিল্পীকে।

তেমনি আজ নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এক স্ট্যাটাসের মাধ্যমে খোলা চিঠি লিখেছেন এই শিল্পী। যা তা পড়ে যে কারও চোখ কপালে উঠবে! কেননা তিনি আমাদের সঙ্গীতাঙ্গনেরই কোন এক নারীকে ‘কূটনী বুড়ি’ আর ‘শেয়াল রাণী’সহ আরও নানা রকম গালমন্দ করেছেন! কিন্তু কাকে নিয়ে এমন কটাক্ষপূর্ণ কথাগুলো লিখেছেন তা স্পষ্ট করেননি। ন্যানসি তার সেই ফেসবুক স্ট্যাটাসে একটি শেয়ালের ছবি পোস্ট করে লিখেছেন,

‘বরাবর,

কোকিল নামযুক্ত কূটনী বুড়ি শেয়াল রাণী

পরের চুল কাটা নিয়ে না ভেবে নিজের লেজ কোথায়, কাদের কাছে, কিভাবে এবং কতবার কেটে এসেছো সেটা নিয়ে ভাবো। মেকাপ ছাড়া দেখতে তুমি যেমন বিশ্রী, তোমার কর্মকান্ডও ঠিক তেমন বিশ্রী। মানের ভয় তোমার নেই জানি কিন্ত প্রাণের ভয় তো আছে! তাই যত দ্রুত পারো জঙ্গলে চলে যাও, নইলে যে কোনো সময় রাম প্যাদানি খাবে।

সতর্ক বার্তা প্রচারে....

সুস্থ শিল্প সমাজ’

ন্যানসি

ন্যানসির এই পোস্টের নিচে মো. শামীম ভূইয়া নামের ব্লু টিকধারী ফেসবুক ব্যবহারকারী লিখেছেন, ‘অর্থগুলি বুজতে খুব কষ্ট হয়ে গেলো।’ সেই মন্তব্যের জবাবে ন্যানসি লিখেছেন, ‘আমাদের গানের জগতে বিগত কয়েক বছর ধরে একটাই আবর্জনা। আপনি না বুঝলেও গসিপ মাতা ঠিকই বুঝবে কি বলতে চেয়েছি।’

তানভীর মাহমুদ ন্যানসিকে প্রশ্ন করেছেন, ‘কাকে বললে প্রিয় গায়িকা?’ এই প্রশ্নে ন্যানসি উত্তর দিয়েছেন, ‘লেজ কাটা বুড়ি শেয়াল রাণীকে বলেছি’।

ন্যানসি বিষয়টি পরিষ্কার না করলেও অনেকেই ধরে নিয়েছেন তিনি যেহেতু মিউজিক ইন্ডাস্ট্রির কাউকে উদ্দেশ্য করে কথাগুলো লিখেছেন, তাহলে সেটি হতে পারে আরেক জনপ্রিয় গায়িকা দিলশাদ নাহার কনা। কেননা ন্যানসি তার স্ট্যাটাসের শুরুতেই লিখেছেন ‘কোকিল নামযুক্ত কূটনী বুড়ি’। আর সবাই জানেন যে, সম্প্রতি কনার গাওয়া ‘দুষ্টু কোকিল’ গানটি দারুণ জনপ্রিয় হয়েছে।

ফলে শরিফ খান নামের এক নেটিজেন মন্তব্যের ঘরে লিখেছেন, ‘কনা কনা’।

কনা

বিষয়টিতে অনেকেই সস্তা বিনোদন পেলেও তানিয়া ইমরুজ নামে ন্যানসির এক ভক্ত মন্তব্য করেছেন, ‘ছোটবেলা থেকে আপনার গান শুনি। প্রচন্ড পছন্দের একজন শিল্পী আপনি। কিন্তু কি বিশ্রীভাবে মানুষকে নিয়ে লিখেন আপনি! সেই লেখায় কোনাল (আরেক জনপ্রিয় গায়িকা) আবার হা হা রিয়েক্ট দিচ্ছে। কনার পিছনে দুজন লেগেছেন। আপনাদের কি পেছনে লাগা ছাড়া আর কোন বিজনেস নেই? পা তো চাটে কোনাল, ও আর ওর হাসব্যান্ড শাকিব খানের পা চেটে প্রত্যেকটা মুভিতে গান করে যেই এবার গাইতে পারলো না তাতেই তেলে বেগুনে জ্বলে উঠে আপনার পোস্টে হা হা রিয়েক্ট দিয়ে মনের দুঃখ কমাচ্ছে।’

কোনাল

এদিকে, ন্যানসির এই পোস্টের স্ক্রিনশট শেয়ার করে কোনাল লিখেছেন, ‘বহুরূপী, মিত্থুক, hypocrite, manipulators রা আসলে বুঝে না, অসভ্য আচরণ, বর্বরতা, মিথ্যা প্রোপাগান্ডা ছড়াতে ছড়াতে মানুষ টায়ার্ড হয়ে গেলেও আল্লাহ টায়ার্ড হন না। রাম প্যাদানির সময় আসার আগে তার নিজের বেঁচে থাকা সম্মানটুকু নিয়ে সতর্ক হয়ে যাওয়া উচিত। অনেক হয়েছে! মানুষের সহ্যের সীমা থাকে। সীমা অতিক্রম করাটা আল্লাহও পছন্দ করেননা! ধন্যবাদ ন্যানসি আপু অনেকের মতো চুপ না থেকে বরাবরই সত্যটা বলার জন্য।’

;

আম্বানিদের বিয়েতে এবার ঘোমটা দিয়ে হাজির কিম!



মাসিদ রণ, সিনিয়র নিউজরুম এডিটর, বার্তা২৪.কম
কিম কার্দাশিয়ানের এই নতুন লুক ভাইরাল হয়েছে

কিম কার্দাশিয়ানের এই নতুন লুক ভাইরাল হয়েছে

  • Font increase
  • Font Decrease

হলিউডের অন্যতম বোল্ড তারকা কিম কার্দাশিয়ান। প্রতিনিয়ত আবেদনময় পোশাকে হাজির হন সোশ্যাল মিডিয়ায়| তবে সেই তারকা এবার অনন্ত আম্বানির বিয়েতে ঘোমটা মাথায় হাজির!


না একেবারে ভারতীয় নারীদের মতো ঘোমটা তিনি দেননি। লাল টুকটুকে বৈচিত্র্যময় কাটিংয়ের গাউনের সঙ্গে ফ্যাশনের ছোঁয়া দিতে এই ঘোমটা ব্যবহার করেছেন ডিজাইনার


শুধু ঘোমটা নয়, গাঢ় সবুজ পাথরের টিকলিও পরেছেন কিম। তবে পোশাকটি ছিলো বরাবরের মতোই বেশ খোলামেলা। আজ অনন্ত-রাধিকার রিসেপশন পার্টিকে কিমের সাজ এটি


এরইমধ্যে কিমের এই ভিন্নধর্মী লুক সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে
;

উঠতি গায়কের সঙ্গে জনপ্রিয় অভিনেত্রী সোহিনীর বিয়ে কাল



মাসিদ রণ, সিনিয়র নিউজরুম এডিটর, বার্তা২৪.কম
শোভন গাঙ্গুলি ও সোহিনী সরকার

শোভন গাঙ্গুলি ও সোহিনী সরকার

  • Font increase
  • Font Decrease

অনেকদিন থেকেই কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেত্রী সোহিনী সরকারের সঙ্গে সেখানকার উঠতি গায়ক শোভন গাঙ্গুলির বিয়ের গুঞ্জন চলছে। গত বছর অভিনেতা যীশু সেনগুপ্ত আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার সময় ঘনিষ্ঠতা বাড়ে তাদের। অবশেষে বিয়ের গুঞ্জন সত্যি হতে চলেছে।

হিন্দুস্তান টাইমস ওটিটি প্লে’র প্রতিবেদনে জানা গেছে, ১৫ জুলাই অর্থাৎ আগামীকাল কলকাতার বাইরে একটি ফার্মহাউসে গাঁটছড়া বাঁধবেন সোহিনী-শোভন।

সোহিনী সরকার

এদিন সকাল বেলা গায়ে হলুদের পর রেজিস্ট্রি বিয়ে করবেন তারা। আপাতত বিয়ের অন্যসব নিয়ম বাদ রেখে শুধুমাত্র পরিবারের সদস্য এবং ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের নিয়ে ছোটখাটো একটি অনুষ্ঠান হবে। এ বছরের শীতকালে ইন্ডাস্ট্রির বন্ধুদের জন্য একটা বড় পার্টি দেবেন সোহিনী-শোভন।

বিয়ের দিন লাল শেডের বেনারসি পরবেন সোহিনী। আর শোভন পরবেন ধুতি-কুর্তা। তবে সোহিনীর বিয়েতে কোনও বিরিয়ানি থাকছে না। মাটন ও মাছের সঙ্গে বাঙালি খাবার পরিবেশন করা হবে অতিথিদের।

শোভন গাঙ্গুলি

মাসখানেক আগে এই জুটি একসঙ্গে বিদেশ ভ্রমণে গিয়ে আংটি বদল সেরেছেন। তেমন বড় তারকা কিংবা অনেক ধনী না হলেও সোহিনীর আগে শোবিজ তারকাদের মধ্যেই একাধিক প্রেমিকা ছিলো সারেগামাপা বাংলা’র চ্যাম্পিয়ন হওয়া শোভনের। সেই তালিকায় রয়েছেন তুমুল জনপ্রিয় গায়িকা ইমন চক্রবর্তী ও অভিনেত্রী স্বস্তিকা দত্ত। সোহিনীও শোভনের আগে কলকাতার হ্যান্ডসাম হাঙ্ক অভিনেতা রণজয়ের সঙ্গে দারুণ রোমান্টিক সম্পর্কে ছিলেন।

স্বস্তিকা দত্ত, রণজয় ও ইমন চক্রবর্তী
;