সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ১৬০০ ফুট ওপরে ‘ইত্যাদি’



বিনোদন ডেস্ক, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
‘ইত্যাদি’র প্রধান হানিফ সংকেত

‘ইত্যাদি’র প্রধান হানিফ সংকেত

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশে ম্যাগাজিন অনুষ্ঠানের ইতিহাসে সবচেয়ে জনপ্রিয় অনুষ্ঠানটির নাম ‘ইত্যাদি’র এবারের পর্বটি ধারণ করা হয়েছে পাহাড়-ঝর্ণা-নদী-সবুজ অরণ্য আর ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর বিচিত্র সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যে ঘেরা বান্দরবানে। গত ১৬ নভেম্বর সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ১৬০০ ফুট ওপরে টাইগার পাহাড়ের চূড়ায় পর্যটন কেন্দ্র নীলাচলে ইত্যাদির এবারের পর্ব ধারণ করা হয়েছে।

এই প্রসঙ্গে অনুষ্ঠানটির প্রধান হানিফ সংকেত জানান, বান্দরবানের ইতিহাস, ঐতিহ্যের পাশাপাশি এবারের পর্বে থাকছে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যঘেরা, দর্শনীয় ও আকর্ষণীয় স্থানগুলোর ওপর বিশেষ প্রতিবেদন। আরও থাকছে পার্বত্য এলাকার ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর চঞ্চল কান্তি চাকমার ব্যতিক্রমী উদ্যোগের ওপর একটি মানবিক প্রতিবেদন। পৃথিবীর কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সমুদ্র সৈকতের পরিবেশের ওপর রয়েছে একটি সচেতনতামূলক প্রতিবেদন। এবারের ইত্যাদির বিশেষ চমক হলো দুই প্রবীণ অভিনেতা। বিভিন্ন সমসাময়িক ঘটনা নিয়ে বেশকিছু সরস অথচ তীক্ষ্ণ নাট্যাংশ থাকবে ইত্যাদিতে। যার একটি নাটকের মাধ্যমে দীর্ঘদিন পর অভিনয়ে ফিরছেন খ্যাতিমান অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামান ও মাসুদ আলী খান।

‘‌ইত্যাদি’র মাধ্যমে অভিনয়ে ফিরলেন এটিএম শামসুজ্জামান

আরও পড়ুন: ‘‌ইত্যাদি’র মাধ্যমে অভিনয়ে ফিরলেন এটিএম শামসুজ্জামান

আরও থাকছে ভারতের তামিলনাড়ু রাজ্যের পাথর নগরী বলে খ্যাত মামালাপুরামের কিছু স্মৃতিস্তম্ভের ওপর সচিত্র প্রতিবেদন। মূল গান থাকছে দু’টি। বাংলা ও মারমা গানের দু’জন প্রতিষ্ঠিত শিল্পীর কণ্ঠে একটি অনুরাগের গান। শিল্পী দু’জন হলেন, বাংলা গানের আঁখি আলমগীর এবং মারমা গানের মান মান সিং। গানটি লিখেছেন মোহাম্মদ রফিকউজ্জামান, সুর করেছেন হানিফ সংকেত, সংগীতায়োজন করেছেন মেহেদী।

এছাড়া বান্দরবানের সবুজ-শ্যামল রূপ বৈচিত্র্য নিয়ে মোহাম্মদ রফিকউজ্জামানের কথায়, হানিফ সংকেতের সুর ও মেহেদীর সংগীতায়োজনে আরেকটি গানের সঙ্গে নৃত্য পরিবেশন করেছেন বান্দরবানের ১১টি নৃগোষ্ঠী ও বাঙালি শিল্পীদের সমন্বয়ে শতাধিক নৃত্যশিল্পী। এই গানে কণ্ঠ দিয়েছেন চথুইফ্রু মারমা, কমল, হ্লামেচিং মারমা ও তানজিনা রুমা। মারমা ভাষায় গানটি অনুবাদ করেছেন চথুইফ্রু মারমা, নৃত্য পরিচালনা করেছেন প্রাণ গোপাল।

বান্দরবানের ‘ইত্যাদি’

দর্শক পর্বের নিয়ম অনুযায়ী ধারণস্থান বান্দরবানকে ঘিরে করা প্রশ্নোত্তরের মাধ্যমে উপস্থিত দর্শকের মাঝখান থেকে ৪ জন দর্শক নির্বাচন করা হয়। ২য় পর্বে নির্বাচিত দর্শকরা বান্দরবানের কিছু উল্লেখযোগ্য বিষয় নিয়ে রচিত একটি নাট্যাংশে অভিনয় করেন, যা ছিল বেশ উপভোগ্য।

কেয়া কসমেটিকস লিমিটেড নিবেদিত ‘ইত্যাদি’র এই বান্দরবানের পর্বটি একযোগে বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডে প্রচার হবে ২৯ নভেম্বর, শুক্রবার-রাত ৮টার বাংলা সংবাদের পর। অনুষ্ঠানটি রচনা, পরিচালনা ও উপস্থাপনা করেছেন হানিফ সংকেত। নির্মাণ করেছে ফাগুন অডিও ভিশন।