বিশ্বে ১০ কোটিরও বেশি মানুষ বাস্তুচ্যুত: জাতিসংঘ



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

সহিংসতা, মানবাধিকার লঙ্ঘন ও নিপীড়ন থেকে বাঁচতে রেকর্ড সংখ্যক মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছেন। ফলে ঘরবাড়ি ছেড়ে অন্যত্র মাথা গোঁজার ঠাঁই খুঁজতে হয়েছে তাদের। জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থার (ইউএনএইচসিআর) প্রতিবেদনে এই তথ্য উঠে এসেছে। খবর বিবিসির।

ইউএনএইচসিআর জানিয়েছে, লাখ লাখ মানুষ বাস্তুচ্যুত হওয়ার অন্যতম এক কারণ ইউক্রেন যুদ্ধ। এ ছাড়া ইথিওপিয়া ও কঙ্গোতে দীর্ঘস্থায়ী সংঘাতের কারণে অনেক মানুষ ঘরবাড়ি ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন।

ইউএনএইচসিআর প্রধান ফিলিপ্পো গ্র্যান্ডি এক বিবৃতিতে বলেছেন, এটা একটি কঠোর পরিসংখ্যান, যা উদ্বেগজনক ৷ এটি এমন একটি রেকর্ড যা কখনও সৃষ্টি করা উচিত নয়। নিরপরাধ মানুষদের বাড়িঘর ছেড়ে যেতে বাধ্য হওয়ার পেছনে যে ধ্বংসাত্মক দ্বন্দ্ব ও নিপীড়ন রয়েছে তা অবসানে সোচ্চার হতে হবে আমাদের।

ইউএনএইচসিআর যে তথ্য দিয়েছে সেখানে শরণার্থী, আশ্রয়প্রার্থী ও নিজ দেশে বাস্তুচ্যুত মানুষেরা অন্তর্ভুক্ত রয়েছেন। একটি মানবাধিকার সংস্থা জানিয়েছে, নিজ দেশে বাস্তুচ্যুত হওয়া মানুষের সংখ্যা গত বছরের শেষ নাগাদ ৬ কোটিতে গিয়ে ঠেকেছে।

ইউএনএইচসিআর বলছে, ইউক্রেনের যুদ্ধে দেশের মধ্যে ৮০ লাখ মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছে এবং ৬০ লাখেরও বেশি মানুষ বিদেশে পালিয়েছে।

ফিলিপ্পো গ্র্যান্ডি বাস্তুচ্যুতির কারণগুলো মোকাবিলার জন্য পদক্ষেপ নিতে আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, মানবিক সহায়তা শুধু বাস্তুচ্যুতির পরিণতিগুলোর চিকিৎসা করছে। বাস্তুচ্যুতি রোধ করার একমাত্র উপায় হলো শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখা, যাতে নির্দোষ মানুষেরা ঘরবাড়ি ছেড়ে নির্বাসনে যেতে বাধ্য না হয়।

রাশিয়ান সোনা আর কিনবে না যুক্তরাষ্ট্র-যুক্তরাজ্য

  রুশ-ইউক্রেন সংঘাত



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ইউক্রেন যুদ্ধের জেরে এবার রাশিয়া থেকে সোনা আমদানির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে যাচ্ছে যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও জাপান।

যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বলেছেন, এই পদক্ষেপ পুতিনের যুদ্ধ মেশিনের হৃদয়ে আঘাত করবে।

জার্মানিতে শুরু হওয়া জি৭ সম্মেলনে বিশ্বের শীর্ষ সাত ধনী দেশের নেতারা রোববার (২৬ জুন) এ সিদ্ধান্ত নেন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানায়, ২০২১ সালে রাশিয়া সোনা রফতানি করে দেড় হাজার কোটি ডলারের বেশি আয় করেছে।

জি৭ এর বাকি তিন দেশ জার্মানি, ফ্রান্স এবং ইতালি রাশিয়ার সোনা আমদানিতে নিষেধাজ্ঞা আরোপের দলে যোগ দেবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

এক টুইটে তিনি বলেন, একসঙ্গে, জি৭ দেশগুলো ঘোষণা করবে যে তারা আর রাশিয়ার সোনা আমদানি করবে না। যেসব খাত থেকে রাশিয়া কোটি কোটি ডলার আয় করে সোনা তার অন্যতম।

লন্ডন বিশ্বে অন্যতম বৃহৎ সোনার বাজারগুলোর একটি। যুক্তরাজ্য সরকার থেকে বলা হয়, রাশিয়ার কাছ থেকে সোনা আমদানি বন্ধের ‘সিদ্ধান্ত পুতিনের সক্ষমতা এবং তার যুদ্ধের জন্য অর্থের যোগাড় করার কাজে বড় ধরনের প্রভাব ফেলবে।

গত ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেনে আগ্রাসন চালানোর পর থেকে পশ্চিমা দেশগুলো রাশিয়ার ধনী ব্যক্তি, ব্যাংক, ব্যবসা ও রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানকে লক্ষ্য করে বিভিন্ন ধরনের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।

যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, যুক্তরাজ্য এবং অন্যান্য দেশগুলি এ পর্যন্ত এক হাজারেরও বেশি রাশিয়ান ব্যক্তি এবং ব্যবসাকে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।

;

বেলারুশকে ‌‘ইস্কান্দার-এম’ পারমাণবিক সক্ষম ক্ষেপণাস্ত্র দেবে রাশিয়া



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
বেলারুশকে ‌‘ইস্কান্দার-এম’ পারমাণবিক সক্ষম ক্ষেপণাস্ত্র দেবে রাশিয়া

বেলারুশকে ‌‘ইস্কান্দার-এম’ পারমাণবিক সক্ষম ক্ষেপণাস্ত্র দেবে রাশিয়া

  • Font increase
  • Font Decrease

মিত্রদেশ বেলারুশকে ইস্কান্দর-এম পারমাণবিক সক্ষম স্বল্প-পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র দেবে রাশিয়া। শনিবার (২৫ জুন) সেন্ট পিটার্সবার্গে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ও বেলারুশের প্রেসিডেন্ট আলেক্সান্ডার লুকাশেঙ্কোর মধ্যে এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠক থেকে এ সিদ্ধান্তের ঘোষণা আসে।ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে।

এ সময় প্রতিবেশী ইউক্রেন-রাশিয়া ইস্যুতে লিথুয়ানিয়া ও পোল্যান্ডের তীব্র সমলোচনা করেন লুকাশেঙ্কো। দেশ দু’টি আগ্রাসী ও ঘৃণ্য আচরণ করছে বলে উদ্বেগ জানান তিনি। ইউক্রেনের হয়ে যুদ্ধরত ভাড়াটে সেনাদের বেশিরভাগই পোল্যান্ডের বলেও দাবি করেন তিনি। রাশিয়া থেকে বেলারুশ হয়ে কালিনিনগ্রাদে ট্রানজিট বন্ধে বহু চেষ্টা করছে লিথুয়ানিয়া, করেন এমন অভিযোগও। সমানে সমান জবাব নিশ্চিতে পুতিনের কাছে সামরিক সহায়তা চান লুকাশেঙ্কো।

লুকাশেঙ্কো বলেন, লিথুয়ানিয়া ও পোল্যান্ডের উদ্দেশ্য সংঘাত তৈরি। এটা স্পষ্ট তাদের পেছনে কারও ইন্ধন আছে। একই আচরণ লিথুয়ানিয়ার।

পুতিন বলেছেন, ছয় ইউরোপীয় দেশে যুক্তরাষ্ট্রের বিপুল সংখ্যক বিধ্বংসী মারণাস্ত্র আছে। ২৫৭টি যুদ্ধবিমান আছে। ইউরোপের বাইরেও এমন চিত্র। পোল্যান্ড-লিথুয়ানিয়ার বিরুদ্ধে এখনই হয়তো সামরিক পদক্ষেপ দরকার নেই। তবে আমি একমত, দেশের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। তাই বেলারুশকে ইস্কান্দর এম ট্যাকটিক্যাল মিসাইল সিস্টেম দেয়া হবে।

;

নরওয়েতে বন্দুক হামলায় নিহত ২, আহত ২১



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

নরওয়ের রাজধানী অসলোতে বন্দুক হামলায় দুই জন নিহত এবং আরও ২১ জন আহত হয়েছেন।

স্থানীয় সময় শনিবার (২৫ জুন) শহরের বেশ কয়েকটি বারের সামনে গিয়ে গুলি চালায় ওই বন্দুকধারী। খবর বিবিসির।

৪২ বছর বয়সী সন্দেহভাজন বন্দুকধারীকে গ্রেফতার করেছে দেশটির পুলিশ।

টোর বারস্টাড নামে পুলিশের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, লন্ডন পাব থেকে কাছের একটি ক্লাব ও একটি সড়কে ওই হামলার ঘটনা ঘটেছে।

স্থানীয় সময় শনিবার রাতে বন্দুক হামলার ওই ঘটনার কয়েক মিনিটের মাথায় সন্দেহভাজন হামলাকারীকে কাছাকাছি একটি সড়ক থেকে গ্রেফতার করা হয়।

অসলোর প্রাণকেন্দ্রে থাকা দ্য লন্ডন পাব নামের ওই ক্লাবটি সমকামীদের কাছে বেশ জনপ্রিয় নাইটক্লাব।

এ ঘটনাকে নরওয়ের প্রধানমন্ত্রী জোনাস গাহর স্টোয় ভয়ানক ও মর্মান্তিক আক্রমণ বলে অভিহিত করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শী এক ব্যক্তি বলেন, আমি একজন ব্যক্তিকে ব্যাগ নিয়ে আসতে দেখেছি এবং সে ব্যাগ থেকে বন্দুক বের করে গুলি করতে শুরু করে।

;

গর্ভপাত নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের রায়কে ‘মর্মান্তিক ভুল’ বললেন বাইডেন



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

গর্ভপাতের জন্য মার্কিন নারীদের সাংবিধানিক অধিকার বাতিলের রায়কে ‘মর্মান্তিক ভুল’ বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

গর্ভপাতকে বৈধতা দেওয়া প্রায় ৫০ বছরের পুরোনো আইনটি শুক্রবার (২৪ জুন) দেশটির সুপ্রিম কোর্ট বাতিল করে দেয়।

দেশবাসীর উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে বাইডেন বলেন, যেভাবে নারীদের সংবিধান প্রদত্ত অধিকারকে কেড়ে নেওয়া হল, তা অত্যন্ত দুঃখজনক। তিনি বলেন, এই রায়ে আমেরিকার লাখ লাখ নারীর জীবন নাটকীয়ভাবে পরিবর্তন করবে এবং দেশটিতে এ নিয়ে উত্তেজনা বাড়বে।

শুক্রবার এক রায়ে আমেরিকার শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, গর্ভপাতের অধিকার সংবিধান দেবে না। তা দেওয়া হবে কি হবে না, তা স্থির করবে স্থানীয় প্রদেশের প্রশাসন। পাঁচ দশক আগে রো বনাম ওয়েড মামলার রায়কে বাতিল করে দিয়ে আদালত শুক্রবার এই রায় দিয়েছে।

প্রসঙ্গত, ওই মামলায় আদালত জানিয়েছিল, গর্ভপাত আমেরিকার নারীদের সংবিধান প্রদত্ত অধিকার। বাইডেন বলেন, ‘আদালত আমেরিকাবাসীর সংবিধানপ্রদত্ত মৌলিক অধিকার কেড়ে নিয়েছে। শীর্ষ আদালতের এই রায়ের ফলে দেশ ১৫০ বছর পিছিয়ে গেল।

সুপ্রিম কোর্টে এই রায়ের একটি খসড়া প্রস্তাব প্রকাশ্যে আসার পরেই দেশে জুড়ে বিক্ষোভ শুরু হয়। প্রেসিডেন্ট বাইডেনও এই ধরনের সিদ্ধান্ত নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, ‘সুপ্রিম কোর্ট এই ধরনের রায় দেওয়ায় শুধু গর্ভপাতের অধিকার নয়, সমকামীদের অধিকারও ক্ষুণ্ণ হবে।

;