চরমোনাই পীরের আহ্বানে দলীয় ব্যানারবিহীন বিক্ষোভ



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
চরমোনাই পীরের আহ্বানে দলীয় ব্যানারবিহীন বিক্ষোভ, ছবি: সংগৃহীত

চরমোনাই পীরের আহ্বানে দলীয় ব্যানারবিহীন বিক্ষোভ, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় মহানবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাইর আহ্বানে দলীয় ব্যানারবিহীন বিক্ষোভ কর্মসূচি পালিত হয়েছে। বিক্ষোভ মিছিলে দলমতের ঊর্ধ্বে সবশ্রেণির মানুষের অংশগ্রহণের সুবিধার্থে এই কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।

শুক্রবার (৩০ অক্টোবর) বাদ জুমা একযোগে সারাদেশে মসজিদে দোয়া ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। সংশ্লিষ্ট মসজিদের ইমাম-খতিবের নেতৃত্বে শান্তিপূর্ণ মিছিলে স্বত:স্ফূর্তভাবে ঈমানদার রাসূলপ্রেমিক জনতা অংশ নেন।

গত ২৭ অক্টোবর ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের উদ্যোগে ঢাকাস্থ ফ্রান্স দূতাবাস ঘেরাও কর্মসূচি থেকে দলের দলটির আমির চরমোনাই পীর এই ব্যতিক্রমী কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

দেশব্যাপী মিছিলের অংশ হিসেবে কেন্দ্রীয়ভাবে পুরানা পল্টন জামে মসজিদ থেকে দলের মহাসচিব অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমাদের নেতৃত্বে একটি মিছিল পল্টন মোড়, জিরোপয়েন্ট হয়ে পল্টন মোড়ে এসে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়। মিছিল শেষের সমাবেশে বক্তব্য রাখেন দলটির রাজনৈতিক উপদেষ্টা অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন, যুগ্ম-মহাসচিব মাওলানা গাজী আতাউর রহমান, ঢাকা দক্ষিণ সভাপতি মাওলানা মুহাম্মদ ইমতিয়াজ, কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম, আলহাজ্ব আব্দুর রহমান, অধ্যাপক সৈয়দ বেলায়েত হোসেন, আলহাজ্ব আলতাফ হোসেন, মুফতি মোস্তফা কামাল ও মাওলানা এবিএম জাকারিয়া প্রমুখ।

বক্তব্যে মাওলানা ইউনুছ আহমাদ বলেন, বর্ণবাদী রাষ্ট্র ফ্রান্সের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন ও পণ্য বর্জন অব্যাহত রাখতে হবে। ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূতকে ডেকে নিন্দা জানাতে হবে এবং সংসদ অধিবেশন ডেকে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয়ভাবে নিন্দা প্রস্তাব করতে হবে।

নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, বিরানব্বই ভাগ মুসলমানের আবেগ-অনুভূতির প্রতি শ্রদ্ধা রেখে বিশ্ব মুসলিম নেতৃবৃন্দের মতো বাংলাদেশ সরকারকেও ফ্রান্সের ইসলামবিরোধী কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে অবস্থান নিতে হবে। অন্যথায় সরকার থেকে দেশবাসী মুখ ফিরিয়ে নেবে।

এ দিকে বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) সারাদেশে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ সফল করায় ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই জেলা নেতৃবৃন্দ ও সংশ্লিষ্ট সবাইকে আন্তরিক মোবারকবাদ ও অভিনন্দন জানিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার দলটি সারাদেশে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে। বিক্ষোভ থেকে ৫টি দাবি পেশ করা হয়। দাবিগুলো হলো- ১. বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে ফ্রান্স সরকারের বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক নিন্দা, ২. ফ্রান্সের সঙ্গে বাংলাদেশের সবরকম কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন, ৩. ইসলাম ও রাসূল (সা.) কে অবমাননার জন্য ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতিকে প্রকাশ্যে বিশ্ব মুসলিমের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা, ৪. অবিলম্বে ওআইসিতে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব জ্ঞাপন ও ৫. বাংলাদেশে ইসলাম ও মহানবী (সা.)-এর বিরুদ্ধে কটূক্তি বন্ধে কঠোর শাস্তির আইন প্রণয়ন।

সারাদেশে বিক্ষোভ: ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশ করে ফ্রান্স মুসলমানদের চরম আঘাত দিয়েছে

ফ্রান্সের পণ্য বয়কটের আহবান সাভারের বিক্ষোভ থেকে

ফ্রান্সে নবী করিম সা.-এর অবমাননার প্রতিবাদে ময়মনসিংহে বিক্ষোভ