যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে ৩ কিশোর নিহতের ঘটনায় তদন্ত কমিটি

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, যশোর
যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্র/ছবি: বার্তা২৪.কম

যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্র/ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের তিন বন্দি কিশোর নিহত ও অন্তত ১৪ জন আহতের ঘটনায় দুই সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে সমাজসেবা অধিদপ্তর।

শুক্রবার (১৪ আগস্ট) প্রতিষ্ঠানটির মহাপরিচালক শেখ রফিকুল ইসলাম স্বাক্ষরিত চিঠিতে এই কমিটি গঠন করা হয়। তিন কর্মদিবসের মধ্যে সরেজমিন তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

তদন্ত কমিটির দুই সদস্য হলেন- সমাজসেবা অধিদপ্তরের পরিচালক (প্রতিষ্ঠান) যুগ্ম সচিব সৈয়দ মো. নূরুল বাসির ও সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপরিচালক (প্রতিষ্ঠান-২) এমএম মাহমুদুল্লাহ। বিষয়টি শুক্রবার দুপুরে বার্তা ২৪.কমকে নিশ্চিত করেছেন যশোরের জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম খান।

তিনি আরও জানান, সরেজমিনে শিশু উন্নয়ন কেন্দ্র পরিদর্শন করে তিন কিশোর নিহতের নেপথ্য সকল সূত্র উদঘাটন করতে হবে। এই ঘটনার সাথে শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের কোন কর্মকর্তা, কর্মচারীর প্রত্যেক্ষ, পরোক্ষ কোনো সংশ্লিষ্টতা বা সম্পৃক্ততা আছে কি না যাচাই করতে হবে। এই ঘটনায় তাৎক্ষণিকভাবে কেন্দ্রে অবস্থানরত নিরাপত্তাকর্মীদের ভূমিকা কি ছিল তা যাচাই করতে হবে। তত্ত্বাবধায়ক ও অন্যান্য কর্মচারীদের দায়িত্ব পালনে কোনরূপ উদাসীনতা, অবহেলা, গাফিলতি ও ব্যর্থতা ছিল কিনা তা যাচাই করতে হবে।

এছাড়াও উপ-পরিচালক জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের কোনরূপ ব্যর্থতা ছিল কি না তাও যাচাই করতে হবে। এই বিষয়গুলো ছাড়াও অন্য কোনো বিষয় তদন্ত কমিটির দৃষ্টিগোচর হলে সেই বিষয়েও তদন্ত প্রতিবেদনে উল্লেখ করতে বলা হয়েছে। যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে সংঘর্ষ নয়; বরং কর্মকর্তা ও আনসার সদস্যরে বেধড়ক মারপিটে হতাহতের ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই ঘটনায় কেন্দ্রের সহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ আল মাসুদ, সহকারী তত্ত্বাবধায়ক মাসুম বিল্লাহ, সাইকো সোস্যাল কাউন্সিলর মুশফিকুর রহমানসহ ১০জন কর্মকর্তা কর্মচারীকে জিজ্ঞাসাবাদেও জন্য পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।

যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে সংঘর্ষে তিন কিশোর নিহত, আহত ১৪

যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের সহকারী পরিচালকসহ ১০ কর্মকর্তা পুলিশ হেফাজতে