আদালতের অনুমতি ছাড়া বিদেশ যেতে পারবেন না বিডিনিউজের সম্পাদক



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
আনোয়ার ইব্রাহিমকে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন

আনোয়ার ইব্রাহিমকে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন

  • Font increase
  • Font Decrease

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) মামলায় বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের প্রধান সম্পাদক তৌফিক ইমরোজ খালিদীকে বিচারিক আদালতের দেয়া জামিন বাতিল প্রশ্নে জারি করা রুলের ওপর রায়ের জন্য ১ ডিসেম্বর দিন রেখেছেন হাইকোর্ট। এই সময় পর্যন্ত আদালতের অনুমতি ছাড়া তিনি বিদেশ যেতে পারবেন না।

বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি খিজির হায়াতের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান।

রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক। তৌফিক ইমরোজ খালিদীর পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মোহাম্মদ শাহরিয়া কবির বিপ্লব।

পরে আমিন উদ্দিন মানিক জানান, তৌফিক ইমরোজ খালিদীর জামিন বাতিলের জন্য দুদকের করা রিভিশন আবেদনের শুনানি আজ শেষ হয়েছে। রায় ১ ডিসেম্বর। এ সময়ের মধ্যে খালিদী বিদেশ যেতে পারবে না। নিষেধাজ্ঞার আদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

২০২০ সালের ২০ অক্টোবর ঢাকার মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালত তৌফিক ইমরোজ খালিদীকে জামিন দেন। এর বিরুদ্ধে দুদক আবেদন করে। একই বছরের ৮ ডিসেম্বর হাইকোর্ট জামিন বাতিলে ১০ দিনের রুল জারি করেন।

২০২০ সালের ৩০ জুলাই দুদকের উপ-পরিচালক গুলশান আনোয়ার প্রধান বাদী হয়ে দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়-১-এ ওই মামলা দায়ের করেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, তৌফিক ইমরোজ খালিদী এইচএসবিসি, ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেড, সাউথ ইস্ট ব্যাংক লিমিটেড এবং মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেডের বিভিন্ন হিসাবে ৪২ কোটি টাকা জমা রেখেছেন, যার বৈধ কোনো উৎস নেই।

ভুয়া কাগজপত্র সৃষ্টি করে অবৈধ প্রক্রিয়ায় প্রতারণার মাধ্যমে তিনি ওই টাকা অর্জন করেছেন বলে প্রাথমিক তথ্য-উপাত্তে প্রমাণিত। তৌফিক ইমরোজ খালিদী ওই অস্থাবর সম্পদ অসাধু উপায়ে অর্জন করেছেন, যা তার জ্ঞাত আয়ের উৎসের সঙ্গে অসঙ্গতিপূর্ণ বলে এজাহারে অভিযোগ আনা হয়েছে।

ইউনিগ্যাস ডিস্ট্রিবিউটরস মিট ২০২২ অনুষ্ঠিত



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ইউনিগ্যাস ডিস্ট্রিবিউটরস মিট ২০২২ অনুষ্ঠিত

ইউনিগ্যাস ডিস্ট্রিবিউটরস মিট ২০২২ অনুষ্ঠিত

  • Font increase
  • Font Decrease

ইউনিগ্যাস ডিস্ট্রিবিউটরস মিট ২০২২ অনুষ্ঠিত হলো গতকাল ২৭ এবং আজ ২৮ নভেম্বর ২০২২।

এ অনুষ্ঠানে গত দুবছরে ইউনিগ্যাসের অর্জন, সাফল্য ও কার্যক্রম পর্যালোচনা করা হয়। ২০২০ সালের ২৬ মার্চ কমার্শিয়াল লঞ্চ হওয়ার পর গত ২ বছরে ইউনিগ্যাস বাংলাদেশ এলপিজি ইন্ডাস্ট্রিতে অন্যতম উল্লেখযোগ্য অবস্থান করে নিয়েছে।

অল্প সময়ের মধ্যেই ইউনিগ্যাস দেশের উত্তরাঞ্চলে বিপনন কার্যক্রম শুরু করতে যাচ্ছে এবং মোংলায় ইউনিগ্যাসের পরবর্তী প্ল্যান্ট স্থাপন করতে যাচ্ছে। আজ ২৮ নভেম্বর হবিগঞ্জের দি প্যালেস রিসোর্টে ইউনিগ্যাসের বিজনেস সেশনে এ বক্তব্য উপস্থাপন করেন ইউনিটেক্স গ্রুপের সিএফও জনাব মোহাম্মাদ আরিফ। সারা দেশ থেকে আগত ইউনিগ্যাসের প্রায় ৩ শতাধিক ডিস্ট্রিবিউটর এর মাঝে এ অনুষ্ঠানে ইউনিগ্যাসের পরবর্তী ব্যবসায়িক কর্মপরিকল্পনা তুলে ধরেন ইউনিগ্যাসের হেড অফ সেলস এন্ড মার্কেটিং জনাব মো: ফারুকুজ্জামান। এর পরে ডিস্ট্রিবিউটরদের মাঝে সম্মাননা পুরস্কার উপহার দেয়া হয়।

ইউনিগ্যাস ডিস্ট্রিবিউটরস মিট ২০২২-এ ইউনিগ্যাসের সম্মানিত ডিস্ট্রিবিউটরদের সাথে এ ছাড়াও মত বিনিময় করেন ইউনিটেক্স গ্রুপের অপারেশন ডিরেক্টর জোবাইদুল ইসলাম চৌধুরী, গ্রুপ বিজনেস কো-অর্ডিনেটর সাকিব আহমেদ সিদ্দীকী, জিএম একাউন্টস মো. ইরফান, হেড অফ ফাইনান্স মো: কামরুল হাসান এবং এজিএম ব্র্যান্ড মো. রিয়াদ উল কবীর।

;

ইউপি সদস্য মমিন পেলেন জিপিএ-৫



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, সিরাজগঞ্জ
আব্দুল মমিন

আব্দুল মমিন

  • Font increase
  • Font Decrease

এবারের এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পেয়ে পাস করলেন আব্দুল মমিন (৪৫) নামে এক ইউপি সদস্য (মেম্বার)। সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার শুভগাছা ইউনিয়ন পরিষদের ৫নং ওয়ার্ডের টানা তিনবারের নির্বাচিত সদস্য তিনি।

সোমবার (২৮ নভেম্বর) এসএসসি পরীক্ষার ঘোষণার পর আব্দুল মমিনের পাস করার বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়। রায়গঞ্জের একটি কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে জিপিএ-৫ পেয়ে পাস করেছেন মমিন।

আব্দুল মমিন বলেন, আমি পাস করেছি এটাই বড় কথা। আমার ইচ্ছা ছিল লেখাপড়া করব। সেই ইচ্ছা থেকে এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছি। এইচএসসিতে ভর্তি হবেন এবং ডিগ্রি পাস করার ইচ্ছা তার আছে বলে জানান তিনি। আব্দুল মমিন আরও বলেন, বয়স কোন বিষয় না। আমি এই বয়সে নিজেও লেখাপড়া করছি, পড়াশোনা করতে অন্যদেরকেও উৎসাহিত করি।

জেলার কাজিপুর উপজেলার শুভগাছা ইউনিয়নি পরিষদ চেয়ারম্যান মো. গিয়াস উদ্দিন জানান, ইউপি সদস্য টানা তিনবার বিজয়ী হয়ে এখন পরিষদে দায়িত্ব পালন করছে। তিনি এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছেন বিষয়টি জানা ছিল না। আজকে শুনলাম তিনি রায়গঞ্জের পাঙ্গাসীর একটি কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে পরীক্ষা দিয়ে জিপিএ-৫ পেয়ে পাস করেছেন। আমরা পরিষদের পক্ষ থেকে তাকে অভিনন্দন জানাই।

;

চলমান নৌ পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার



সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
চলমান নৌ পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার

চলমান নৌ পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার

  • Font increase
  • Font Decrease

নৌ পরিবহন শ্রমিকদের ডাকে চলমান ধর্মঘট প্রত্যাহার করেছে নৌ পরিবহন শ্রমিক নেতৃবৃন্দ।

সোমবার (২৮ নভেম্বর) বিকালে বিজয়নগর শ্রম ভবনের সম্মেলন কক্ষে চলমান নৌ পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার করা হয়েছে।

এ সেক্টরের উদ্ভুত সমস্যা সমাধানে শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান এর সভাপতিত্বে সরকার, মালিক-শ্রমিক নেতৃবৃন্দের মধ্যে অনুষ্ঠিত বৈঠক শেষে নৌ পরিবহন শ্রমিক নেতৃবৃন্দ এ ধর্মঘট প্রত্যাহরের ঘোষণা দেন।

;

পা দিয়ে লিখে জি‌পিএ-৫ পেয়েছে মানিক



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, কুড়িগ্রাম
পা দিয়ে লিখে জি‌পিএ ৫ অর্জন মানিকের

পা দিয়ে লিখে জি‌পিএ ৫ অর্জন মানিকের

  • Font increase
  • Font Decrease

দুই হাতহীন কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার জন্মগত প্রতিবন্ধী কিশোর মানিক পা‌ দিয়ে লি‌খে এবার এসএস‌সি পরীক্ষা‌তে জি‌পিএ ৫ অর্জন করেছে। সোমবার ফলাফল প্রকাশ হওয়ার পর পা দি‌য়েই ল‌্যাপট‌প চা‌লি‌য়ে নি‌জের ফলাফল দে‌খে সে। নি‌জের সফলতায় উচ্ছ্ব‌সিত মা‌নিক। সে বিজ্ঞান বিভাগ থে‌কে গো‌ল্ডেল এ প্লাস অর্জন ক‌রে‌ছে। তার মোট প্রাপ্ত নম্বর ১২৪২ ।

মানিক রহমান কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার সদর ইউনিয়নের চন্দ্রখানা গ্রামের ওষুধ ব্যবসায়ী মিজানুর রহমান ও শিক্ষক মরিয়ম বেগমের ছেলে। এ বছর ফুলবাড়ী জছি মিঞা মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ফুলবাড়ী উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় (পাইলট) কেন্দ্রে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নি‌য়ে‌ছিল মা‌নিক। মা‌নি‌কের এ সফলতায় তার বাবা-মা ও শিক্ষক-শিক্ষিকাসহ প‌রি‌চিতজনরা‌ সক‌লেই আন‌ন্দিত।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, মানিক রহমানের দুই হাত না থাকলেও সে দুই পা দিয়ে নিজের প্রয়োজনীয় সব কাজ করতে পারদর্শী হয়ে উঠেছে। পা দিয়েই কম্পিউটার চালনা, ইন্টারনেট ব্যবহারসহ মোবাইল ফোনও অপারেট করে সে। এভাবে গড়ে উঠতে মানিকের মা মরিয়ম বেগম তাকে সহায়তা করেছে বলে জানান মানিকের বাবা মিজানুর রহমান।

প্রতিবন্ধকতাকে জয় করে এগিয়ে চলা এই কিশোরের মা মরিয়ম বেগম ও বাবা মিজানুর রহমান বলেন, ‘আমাদের দুই ছেলে। মানিক বড়। মানিক প্রতিবন্ধী এটা আমরা মনে করি না। জন্ম থেকেই তার দুই হাত না থাকলেও ছোট থেকে আমরা তাকে পা দিয়ে লেখার অভ্যাস করিয়েছি। এভাবে লিখে মানিক অন্যদের চেয়ে পিএসসি ও জেএসসির পাশাপা‌শি এবা‌রের এসএস‌সি‌তেও ভালো রেজাল্ট করেছে। এটা আমাদের গর্ব। সবাই আমাদের ছেলের জন্য দোয়া করবেন, সে যেন সুস্থ-সুন্দরভাবে বেঁচে থাকতে পারে, স্বাবলম্বী হতে পারে। সে যেন তার স্বপ্নগুলো বাস্তবায়ন করতে পারে।’


মানিক রহমান বলেন, আমার দুটো হাত না থাকলেও আল্লাহ রহমতে এসএসসি পরীক্ষায় গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়েছি। আমি এর আগে জেএসসি পরীক্ষায় গোল্ডেন এ-প্লাস পাই।

এই কি‌শোর আরও বলেন, আমি এইচএসসিতে বিজ্ঞান বিভা‌গে পড়া‌শোনা ক‌রে ভাল রেজাল্ট করতে চাই। আমার ইচ্ছা প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে প‌ড়ে ভবিষ্যতে কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ার হওয়ার। বা‌মি যে‌ন নি‌জের সা‌থে বাবা-মায়ের স্বপ্নও পূরণ করতে পারি।

ফুলবাড়ী জছি মিঞা মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবেদ আলী খন্দকার জানান, শারীরিক প্রতিবন্ধী হওয়ার পরেও মানিক রহমান ভাল ফলাফল করায় আমরা মুগ্ধ। সে জীবনে অনেক বড় হোক এ দোয়াই করি।

 

;