দেশে প্রকৃত অর্থে গণতন্ত্র নাই: ড. কামাল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
বক্তব্য রাখছেন ড. কামাল হোসেন, ছবি: বার্তা২৪.কম

বক্তব্য রাখছেন ড. কামাল হোসেন, ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেছেন, সরকার দেশের মানুষের জান-মালের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হচ্ছে এবং দেশে প্রকৃত অর্থে গণতন্ত্র নাই।

শনিবার (১১ জানুয়ারি) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট আয়োজিত 'ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীসহ সারাদেশে ধর্ষণ ও নির্যাতনের প্রতিবাদে' বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন, আমরা অনেক কষ্ট করে, যুদ্ধ করে, কত মূল্য দিয়ে দেশ স্বাধীন করলাম কিন্তু আজ কি পেলাম? দেশে আজ ধর্ষণ, নির্যাতন, হত্যা এবং জনগণের জানমালের নিরাপত্তা নেই। এই দেশের মালিক দেশের জনগণ। দেশের মালিক কখনো চায় না দেশে নির্যাতন, হত্যা, ধর্ষণ হোক। প্রকৃত অর্থে আইনের শাসন এবং গণতন্ত্র থাকলে এসব হতো না। সরকার জনগণের জানমালের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হচ্ছে। দেশে আইনের শাসন এবং প্রকৃত অর্থে গণতন্ত্র নাই।

ড. কামাল হোসেন আরো বলেন, পত্রিকা খুললেই দেখা যায় ঢাকা শহরসহ বিভিন্ন জেলায় ধর্ষণ, নির্যাতনের ঘটনা ঘটছে। স্বাধীনতার প্রায় ৫০ বছর হতে যাচ্ছে, আমরা উদযাপন করবো। কিন্তু দেশে আজ কেন এ ধরনের ঘটনা ঘটবে? দেশের জনগণ দেশপ্রেমের পরিচয় দিচ্ছে, কিন্তু সরকার তাদের মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত করছে। আমরা চাই দ্রুত এসবের ব্যবস্থা নেয়া হোক। দেশে যেন আইনের শাসন কার্যকর এবং গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করা হয়। না হলে জন সমাজকে সুযোগ করে দিন তারা সমাজকে সন্ত্রাস মুক্ত করুক।

বিক্ষোভ সমাবেশে নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, যারা ভোটের আগের দিন ভোট করতে পারেন তাদের কথার কোনো বিশ্বাস নেই। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় আমরা নতুন কোনো জজ মিয়া নাটক দেখতে চাই না। এই সরকার মেগা প্রকল্পের নামে মেগা লুট করছে।
সিটি নির্বাচন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমরা আগামী ৩০ তারিখের সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছি গণতন্ত্র এবং ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য। সমস্ত কিছুর জবাব আমরা আগামী ৩০ তারিখ দেব।

বিক্ষোভ সমাবেশে আরো উপস্থিত ছিলেন সাবেক মন্ত্রী আবদুল মঈন খান, গণস্বাস্থ্যের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ প্রমুখ।

আপনার মতামত লিখুন :