পঙ্গুর রোগী ভাগিয়ে এনে ভুয়া চিকিৎসা, মালিকসহ গ্রেফতার ১১

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজধানীর কলেজ গেটে রোগীদের সাথে প্রতারণা ও সরকারি হাসপাতাল থেকে রোগী ভাগিয়ে এনে ঠকানোর অভিযোগে প্রাইম অর্থোপেডিক এন্ড জেনারেল হাসপাতালের মালিক আব্দুর রাজ্জাকসহ ১১ জনকে আটক করেছে র‍্যাব।

বুধবার (১৩ মে) দুপুর থেকে শুরু হওয়া অভিযান এখনও চলছে। র‌্যাব-২ এর এসপি মুহাম্মদ মহিউদ্দিন ফারুকীর নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা করেন র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম।

এদিকে র‍্যাবের এই অভিযান টিমের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, মোহাম্মদ খায়রুল সড়ক দুর্ঘটনায় ‘ডান পা’ গুরুত্বর জখম হয়ে পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি হতে আসে। কিন্তু সেখানে (পঙ্গু) ভালো চিকিৎসা হবে না জানিয়ে খায়রুলকে মোহাম্মদপুর কলেজ গেটের প্রাইম হাসপাতালে নিয়ে আসে কয়েকজন।

কিন্তু হাসপাতালটিতে কোনো চিকিৎসক নেই। শুধু আছে দুই-তিনজন নার্স। প্রতারিত হয়ে ভর্তি হওয়া খাইরুলের পায়ের অবস্থার অবনতি হলে নেওয়া হয় অন্য একটি হাসপাতালে। সেখানে অপারেশন শেষে আবার প্রাইম হাসপাতাল আনা হয়। অপারেশনের পর ড্রেসিং পর্যন্ত করে তারা। অন্য হাসপাতালে যেতে চাইলে তাতে দেওয়া হয় বাঁধা। এমন বেশ কয়েকটি অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযান চালায় র‍্যাব।

এদিকে ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম বার্তা২৪.কমকে বলেন, ‘আমরা হাসপাতালটির সকল কার্যক্রম খতিয়ে দেখছি। তাদের অপারেশন থিয়েটার থাকলেও মনে হচ্ছে ‘ভুয়া চিকিৎসক’ দিয়ে রোগীদের অপারেশন করত। অভিযান শেষে বিস্তারিত জানানো সম্ভব হবে।’

আপনার মতামত লিখুন :