শেখ হাসিনা স্টেডিয়াম নির্মাণে ব্যয় হবে ৭০০ কোটি টাকা



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

শিগগিরই শুরু হতে যাচ্ছে শেখ হাসিনা স্টেডিয়ামের কাজ। আগামী দুই বছরের মধ্যে ৭০০ কোটি টাকার কিছু কম খরচে স্টেডিয়ামটি নির্মিত হবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) গ্রাউন্ডস কমিটির চেয়ারম্যান মাহবুব আনাম।

২০১৯ সালে ঢাকার পূর্বাচলে একটি নতুন স্টেডিয়াম তৈরির উদ্যোগ নেয় বিসিবি। কিন্তু করোনার প্রকোপসহ নানা কারণে কিছুটা বিলম্বে শুরু হয় এর কার্যক্রম। গত বছর জুলাইয়ে কাজ শুরুর ঘোষণা দিলেও ফের ঝুলে পড়ে তা। তবে আশার কথা শুনিয়ে মাহবুব আনাম বলেন, আউটডোর ফিল্ড, প্র্যাকটিস ফিল্ড হবে। দুটোকেই আমরা প্রস্তুত করা শুরু করব। মাঠের যে পানি নিষ্কাশণ ব্যবস্থা, বর্ষার আগে সেটিও আমরা সেরে ফেলতে চাই। এখনও যদি আমরা উইকেট তৈরি করতে পারি, তাহলে আগামী বছরের ক্রিকেট মৌসুমে খেলা সম্ভব হবে। উইকেট আর আউটফিল্ড তৈরি হয়ে গেলে বাকি কাজগুলো খেলা চালিয়েও করা সম্ভব হবে। বিশ্বের অনেক জায়গায় স্টেডিয়ামের রিডেভেলপমেন্ট হয়, সেখানে খেলা চলা অবস্থায় মাঠের বাইরের কাজগুলো চলমান থাকে। বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় স্টেডিয়াম নির্মাণ করতে যাচ্ছে বিসিবি।

স্বাভাবিকভাবেই খরচটা বেশি হওয়ার কথা। সুর্নির্দিষ্ট কোনো অঙ্কের কথা জানাতে না পারলেও বিসিবির এই পরিচালক বলেন ৭০০ কোটি টাকার মতো খরচ হবে এই স্টেডিয়ামটি নির্মাণে। এত ব্যয় কেন এর ব্যাখ্যায় বিসিবির এই পরিচালক বলেন, এখানে কেবল মাঠই নয়, আমাদের একাডেমি ভবন হচ্ছে, বিসিবির একটা নিজস্ব ভবন হচ্ছে। একটা হোটেলের জায়গা ড্রয়িং করা অবস্থায় থাকবে, পরে আমরা এটা কনস্ট্রাকশনে যাব।

এছাড়া ক্রিকেটার্স ক্লাব, তার সঙ্গে একাডেমি ও একটা অ্যাডিশনাল মাঠ হচ্ছে। তার বাইরেও আমরা ৫ ফেডারেশনকে স্থাপনা দিচ্ছি। জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ (এনএসসি) অনুরোধ করেছে আমাদের যে, তাদের এখানে সংকুলান করা যায় কি না। সে কারণে আমরা ৫টা ফেডারেশনকে এখানে সংকুলান এবং তাদের ঢোকা ও বাইরের জায়গাটাও আমরা আলাদাভাবে করে দিচ্ছি। যাতে আমাদের কারও কোনও কাজে বিঘ্ন না ঘটে।

ট্যাক্স মওকুফের বিষয়ে মাহবুব আনাম বলেন, আমরা এ বিষয়ে সরকারের কাছে আবেদন করেছি। সে আবেদন এখন তাদের বিবেচনাধীন আছে। আশা করছি এ বিষয়ে সহায়তা পাব। শেখ হাসিনা মাঠের জন্য স্পন্সরশিপ নিলেও কখনো এর নাম পাল্টানো হবে না বলে জানিয়েছেন বিসিবি’র এই পরিচালক।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নামে এই স্টেডিয়ামটা আমরা উৎসর্গ করেছি। যে সহযোগিতা বা অনুদান আমাদের এই স্টেডিয়ামের জন্য তিনি করেছেন, সেটাকে স্মরণীয় করে রাখতে চাই। সুতরাং স্টেডিয়ামের নামকরণে কোনো পরিবর্তনের সম্ভাবনা নেই। হয়তো ভেতরের বাণিজ্যিক বিষয়গুলো থাকে, সেখানে হবে। কিন্তু নামকরণের বিষয়ে আমরা অনড়।

   

বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত ভারত-কানাডা ম্যাচ

  ক্রিকেট কার্নিভাল



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

একের অধিকবার ম্যাচটি মাঠে গড়ানোর সম্ভাবনা দেখিয়েও শেষ পর্যন্ত টসই হলো না ভারত-কানাডা ম্যাচের। তাই ম্যাচটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করে দুই দলের মধ্যে পয়েন্ট ভাগাভাগি করা হলো।

এই ম্যাচটিকে মূলত বলা হচ্ছিল শুধুই নিয়মরক্ষার। কারণ গ্রুপ ‘এ’ থেকে শীর্ষ দুই দল ভারত এবং যুক্তরাষ্ট্র ইতোমধ্যে সুপার এইটে জায়গা করে নিয়েছে। তিন ম্যাচের তিনটিতেই জয় তুলে নিয়ে গ্রুপে শীর্ষে ছিল রোহিত-কোহলিরা। অপরদিকে গ্রুপের চতুর্থ স্থানে ছিল কানাডা।

আজকে ভারতকে হারিয়ে দিলেও কানাডা সর্বোচ্চ পাকিস্তানকে টপকে তৃতীয় স্থান দখল করতে পারত। চলতি টুর্নামেন্টে এই ম্যাচের ফলাফল কোনো প্রভাব ফেলবে না বললেই চলে।

৮ টায় টস হওয়ার কথা থাকলেও আজ ম্যাচের আগে ভেন্যুতে বৃষ্টি হওয়ার ফলে আউটফিল্ড ছিল ভেজা। ফলে সাড়ে ৯টা পর্যন্ত পর্যবেক্ষণে ছিলেন ম্যাচ রেফারি এবং আম্পায়াররা। শেষ পর্যন্ত খেলার অনুপযোগী আবহাওয়া ও পরিস্থিতি থাকার কারণে পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হলো ম্যাচটি।

বর্তমান পয়েন্ট টেবিল অনুযায়ী, গ্রুপ এ-তে ৭ পয়েন্টের সঙ্গে শীর্ষেই রইল ভারত। অপরদিকে ৬ পয়েন্টের সঙ্গে স্বাগতিক যুক্তরাষ্ট্র ভারতের সঙ্গে সুপার এইটে জায়গা করে নিয়েছে।

;

বোলার সাকিবের অপেক্ষায় আছে বাংলাদেশ

  ক্রিকেট কার্নিভাল



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

যখনই কোনো কারণে সমালোচিত হন সাকিব আল হাসান, তখনই নিজের পারফরম্যান্স দিয়ে জবাব দিয়ে দেখান সাকিব। অতীতেও এই নজির একের অধিকবার দেখা গেছে। চলতি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে আরও একবার সেখা গেল সেটা। 

সাকিব কেন দলে, অবসর কেন নিচ্ছেন না- এই কথাগুলোই শোনা যাচ্ছিল বেশ কয়েকদিন ধরে। ভারতের সাবেক ব্যাটার বীরেন্দর শেবাগ তো বলেই বসলেন যে সাকিবের লজ্জা পাওয়া উচিৎ এবং দ্রুতই অবসরে যাওয়া উচিত। 

কথাটা সাকিবের কানে যে পৌঁছায়নি সেটা প্রেস কনফারেন্সে তার কৌতূহলী ভাবে প্রশ্ন করাটা দেখেই স্পষ্ট ছিলো। সাকিব কে নিয়ে কে এমন মন্তব্য করেছেন সেটা তিনি সেখানেই জিজ্ঞেস করেছিলেন। 

তবে কে বলেছেন সেটা জেনে রাখলেও, কে কী বললেন এসব নিয়ে একদমই ভাবেন না। নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ফিফটি এবং ম্যাচসেরা হওয়ার পর পরিস্কার জানিয়ে দিলেন এটা কাউকে জবাব দেওয়ার জন্য নয়, ‘আমি কাউকে উত্তর দেওয়ার জন্য ক্রিকেট খেলি না। আমার মনে হয়, ক্রিকেট খেলায় ব্যাটসম্যানদের কাজ ব্যাটিং করা, রান করা। বোলারদের কাজ উইকেট নেওয়া। ফিল্ডারদের কাজ ভালো ফিল্ডিং করা, ক্যাচ নেওয়া।’

ব্যাট হাতে অফ ফর্মটাকে পেছনে ফেলার ইঙ্গিত দিয়েছেন সাকিব। তবে বল হাতে তিনি আছেন শেষ কিছু দিনের মতোই নিস্প্রভ।

প্রথম দুই ম্যাচে মাত্র চার ওভার বোলিং। সবশেষ পাঁচ ইনিংস উইকেটলেস। সবমিলিয়ে শেষ সাত ইনিংসে উইকেট মাত্র একটা। এই ইনিংসে  আগে ব্যাট হাতেও পার করছিলেন বাজে সময়। তবুও নিজের জায়গা বাঁচানো নিয়ে ভাবেননি। খেলেছেন দলের জন্যই। 

নিজের এবং দলের সার্বিক পারফরম্যান্স সম্পর্কে বলেছেন, ‘টি-টোয়েন্টিতে কেউ ব্যক্তিগত পারফরম্যান্স নিয়ে অতটা ভাবে না। দলে কতটা অবদান রাখা গেল, এটাই আসল কথা।’

সে যাই হোক, সাকিব বল করে যাচ্ছেন, কিন্তু তার পাশে উইকেটের দেখা নেই, তা নিশ্চয়ই দেখতে চাইবেন না কেউ! নেপাল ম্যাচ থেকেই তাই বোলার সাকিবের ‘কামব্যাক’ চায় বাংলাদেশ।

;

এটি আমার শেষ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ: বোল্ট

  ক্রিকেট কার্নিভাল



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

আইসিসির প্রতিটি ইভেন্টেই নিউজিল্যান্ডের ভাল একটি স্কোয়াড থাকে, যেখানে অভিজ্ঞ এবং তরুণদের মিশেলে দুর্দান্ত দল খেলতে যায়। কিন্তু প্রতিবারই আশানুরূপ ফল নিয়ে ফেরত আসতে পারে না দলটি। ভাগ্যও যেন সহায় হয় না তাদের প্রতি। এবারও তার ব্যতিক্রম হলো না।

চলতি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে গ্রুপপর্ব থেকেই বিদায় নিতে হলো কেন উইলিয়ামসমের দলকে। এই টুর্নামেন্টের ডেথ গ্রুপ বলা হচ্ছিল গ্রুপ ডি-কে, যেখানে প্রথম দুই ম্যাচে হেরে সুপার এইটের স্বপ্ন ইতোমধ্যে শেষ হয়ে গেছে কিউইদের। শোচনীয় এই বিদায়ের পর নিজের অবসরের ইঙ্গিত দিয়েছেন সময়ের অন্যতম সেরা তারকা পেসার ট্রেন্ট বোল্ট।

শনিবার সকালে উগান্ডার বিপক্ষে ম্যাচে দুর্দান্ত পারফর্ম করেছেন বোল্ট। ৪ ওভারে বল করে মাত্র ৭ রান খরচ করে ২ উইকেট শিকার করেছেন তিনি। ম্যাচ শেষে তিনি বলেছেন, ‘নিজের দিক থেকে বলতে গেলে, এটি আমার শেষ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ।’

তবে ঠিক বিশ্বকাপের পরই জাতীয় দলের জার্সি তুলে রাখছেন না তিনি এমনটাও বললেন তিনি, ‘আমি ও সাউদি একসঙ্গে অনেক খেলেছি। মাঠ–মাঠের বাইরে তার সঙ্গে আমার বন্ধুত্বও অসাধারণ। এখন ঘড়ির কাঁটাটাকে একটু পিছিয়ে দিলে দেখা যাবে এখানে আমরা সুইং বোলিংয়ের সেরা কিছু প্রদর্শনী দেখিয়েছি। কিছু দুর্দান্ত স্মৃতিও আছে এবং আশা করি আরও কিছু হওয়া বাকি।’

বিশ্বকাপের মঞ্চে হয়ত এবারই শেষবার বল হাতে দাপট দেখাবেন বোল্ট। কিন্তু জাতীয় দলের জার্সি গায়ে আরও কিছুদিন খেলা চালিয়ে যাওয়ার ইঙ্গিতও দিয়েছেন এই পেসার।

;

শেষ হলো ৮ম এশিয়ান গোজোরিউ কারাতে চ্যাম্পিয়নশিপ



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ভারতের পুনেতে সম্পন্ন হলো এশিয়ান গোজোরিউ কারাতে চ্যাম্পিয়নশিপ। এটি ছিল এই টুর্নামেন্টের অষ্টম আসর। যেখানে কাজাকিস্তান, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, শ্রীলঙ্কা, ভারত, নেপাল ও বাংলাদেশ অংশগ্রহণ করেছিল। স্বাগতিক ভারত এখানে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে।

পুনেতে শিবাজি ছত্রপতি স্পোর্টস কমপ্লেক্সে এই আসরটি আয়োজিত হয়েছিল। প্রায় চারশত প্রতিযোগীর মধ্যে ভারত চ্যাম্পিয়ন হওয়া ছাড়াও নেপাল দ্বিতীয় এবং বাংলাদেশ তৃতীয় অবস্থান আদায় করে নিয়েছে। বাংলাদেশ গোজোরিউ কারাতে ফেডারেশনের তত্ত্বাবধানে বাংলাদেশের এবারের দলটি এই চ্যাম্পিয়নশিপে অংশগ্রহণ করেছে।

গোজোরিউ কারাতেতে অবদানের জন্য এজিকেএফ কর্তৃক এশিয়ার জেনারেল সেক্রেটারি হানসি খালেদ মনসুর চৌধুরীকে বিশেষ সম্মাননায় ভূষিত করেন। কংগ্রেসের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ২০২৫ সালের নবম এশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের আয়োজক হবে শ্রীলঙ্কা এবং ২০২৬ সালের ১০ম এশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ বাংলাদশে অনুষ্ঠিত হবে।

সদ্য শেষ হওয়া আসরে বাংলাদেশ দলে যারা ছিলেনঃ হানসি খালেদ মনসুর চৌধুরী, শাহিদা আক্তার, মোঃ আনোয়ার হোসেন, মোঃ নেয়ামত হোসেন, মিথিলা আফরোজ, সানজিদা আক্তার ও ফাইকা হোসেন।

;