বিশ্ব ঐতিহ্যের স্বীকৃতি পেল ব্যাবিলন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
প্রাচীন ব্যাবিলন শহর, ছবি: সংগৃহীত

প্রাচীন ব্যাবিলন শহর, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

প্রাচীন মেসোপটেমীয় নগরী ব্যাবিলনকে বিশ্ব ঐতিহ্য (World Heritage Site) হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে জাতিসংঘের বিজ্ঞান, শিক্ষা ও সংস্কৃতিবিষয়ক সংস্থা ইউনেস্কো। শহরটি ‘ঝুলন্ত উদ্যান’ -এর জন্য বিখ্যাত এবং এটি বিশ্বের সপ্তাশ্চর্যের একটি।

ইউনেস্কোর এই ঘোষণায় ইরাক বলেছে, এর মধ্য দিয়ে ঐতিহাসিক মেসোপটেমীয় সভ্যতার প্রতি সম্মান জানানো হলো।

Babylon
শিল্পীর কল্পনায় ব্যাবিলনের ঐতিহাসিক ঝুলন্ত উদ্যান, ছবি: সংগৃহীত

 

ঘোষণায় সংস্থাটি বলেছে, ধারাবাহিক রাজতন্ত্রের অংশ হিসেবে হাম্বুরাবি ও নেবুচাদনেজারের শাসনামলে ব্যাবিলন তার উচ্চ মার্গীয় সৃজনশীলতার পরিচয় দিয়েছে। সেখানকার ‘ঝুলন্ত উদ্যান’ বৈশ্বিক বিবেচনায় অত্যন্ত জনপ্রিয়, শৈল্পিক এবং ধর্মীয় সংস্কৃতি।

শহরটি অরক্ষিত অবস্থায় রয়েছে। এজন্য জরুরি ভিত্তিতে এটি সংরক্ষণের উদ্যোগ নেওয়ার তাগিদও দিয়েছে ইউনেস্কো।

Babylon

উল্লেখ্য, চার হাজার বছরের পুরনো এই স্থানটিকে জাতিসংঘের সম্মানজনক এই তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করতে ১৯৮৩ সাল থেকে চেষ্টা করে আসছিল ইরাক। দেশটির সাবেক শাসক সাদ্দাম হোসেনের প্যালেস নির্মাণের জন্য শহরটি কিছুটা আক্রান্ত হয়। পরে মার্কিন সেনাদের ঘাঁটি হওয়ায় এটি আরও ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

আজারবাইজানের বাকুতে বসেছে ইউনেস্কোর বৈঠক। এতে বিশ্ব ঐতিহ্য কমিটির ভোটে ব্যাবিলন ছাড়াও এখন পর্যন্ত চীনের ইয়ালু নদীর পরিযায়ী পাখিভর্তি মোহনা এবং আইসল্যান্ডের অত্যাশ্চর্য ভ্যানুওয়াকিড ন্যাশনাল পার্ককেও বিশ্ব ঐতিহ্য হিসাবে ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

Babylon

ইউনেস্কোর এই সভা চলবে আগামী ১০ জুলাই পর্যন্ত। এর মধ্যে আরো কিছু বিখ্যাত স্থান ও স্থাপনা এই তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হতে পারে।

সূত্র: বিবিসি

আপনার মতামত লিখুন :