মাধবপুরে সোনাই নদী ভেঙে ২০ গ্রাম প্লাবিত

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, হবিগঞ্জ
প্রবল বর্ষণে গ্রামে ঢুকে যায় পানি / ছবি: বার্তা২৪

প্রবল বর্ষণে গ্রামে ঢুকে যায় পানি / ছবি: বার্তা২৪

  • Font increase
  • Font Decrease

রাতভর প্রবল বর্ষণ আর পাহাড়ি ঢলে হবিগঞ্জের মাধবপুরে সোনাই নদীর পাড় ভেঙে অন্তত ২০টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। এতে পানিবন্দী হয়ে পড়েছেন অন্তত ১০ হাজার মানুষ। ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে ফসলি জমি, সবজির ক্ষেত ও মাছ চাষের পুকুর। ঈদের আগ মুহূর্তে এমন ক্ষয়ক্ষতিতে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন ক্ষতিগ্রস্ত লোকজন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার (১ জুন) রাতভর প্রবল বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে সোনাই নদীর আলাবক্স ও কমলানগর অংশে তিনটি ভাঙন দেখা দেয়। ওই ভাঙনগুলো দিয়ে প্রবল বেগে পানি প্রবেশ করায় উপজেলার কমলাপুর, হরিণখোলা, সিদ্ধরপুর, চৈতন্যপুর, কালিকাপুর, জয়নগর, দেবপুর, নুরুল্লাপুর, মনোহরপুর, সাতপাড়িয়াসহ প্রায় ২০টি গ্রাম প্লাবিত হয়ে পড়ে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jun/01/1559386289279.jpg

স্থানীয় লোকজন জানান, গ্রামগুলো পানিবন্দী হওয়ায় প্রায় অর্ধশতাধিক কাঁচা ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। পানিতে ভেসে গেছে প্রায় দুই শতাধিক পুকুরের মাছ। ৫০০ হেক্টর জমির উঠতি ফসল (বিভিন্ন ধরনের সবজি) তলিয়ে গেছে।

মাধবপুর মৎস্য কর্মকর্তা আবু আসাদ ফরিদুল হক বার্তা২৪.কমকে জানান, হঠাৎ সোনাই নদী ভাঙনে প্রায় দুই শতাধিক পুকুরের মাছ ভেসে গেছে। এতে চাষিদের অন্তত কোটি টাকার মাছ ভেসে গেছে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jun/01/1559386314351.jpg

মাধবপুর দুর্যোগ ও ত্রাণ কর্মকর্তা মাসুদুল ইসলাম বার্তা২৪.কমকে বলেন, ‘মাঠ পর্যায়ে ক্ষয়ক্ষতির নিরুপণের কাজ চলছে। তাদেরকে আর্থিক সহযোগিতা করা হবে।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jun/01/1559386346229.jpg

মাধবপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাসনূভা নাশতারান বার্তা২৪.কমকে জানান, ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা তৈরি করা হচ্ছে। এছাড়া বেশি পানিবন্দীদের পুনর্বাসন করার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

আপনার মতামত লিখুন :