আত্মবিশ্বাসী মানুষেরা যে কাজগুলো কখনোই করেন না!

ফাওজিয়া ফারহাত অনীকা, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইফস্টাইল
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই আমরা খুব ভুল ধারণা লালন করি নিজেদের ভেতর।

বাকপটু মানুষ মানেই যে আত্মবিশ্বাসী নয়, এটা অনেকেই জানি না। ঠিক তেমনভাবেই জানি না, একজন আত্মবিশ্বাসী মানুষের মাঝে কী ধরণের চারিত্রিক গুণাবলী থাকে!

হয়তো আপনি নিজেও আত্মবিশ্বাসী হবার চেষ্টা করছেন। কিন্তু জানেন না- একজন আত্মবিশ্বাসী মানুষ কোন কাজগুলো করা থেকে বিরত থাকেন এবং কোন অভ্যাসগুলোর চর্চা করেন।

এমন অনেক কিছুই আমরা নিজের অজান্তে করি বা এমন অনেক অভ্যাস রয়েছে আমাদের মাঝে, যা আত্মবিশ্বাসী হয়ে ওঠার অন্তরায় হিসেবে কাজ করে। তাই আজকের ফিচারে তুলে ধরা হলো, কোন কাজগুলো করা থেকে বিরত থাকেন একজন আত্মবিশ্বাসী মানুষ।

ভুল শুধরে দিলে রেগে যান না

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Oct/24/1540363232564.jpeg

ভুল যে কারোরই হতে পারে যে কোন ক্ষেত্রে। আত্মবিশ্বাসী মানুষেরা সেটা খুব ভালোভাবেই জানেন ও বোঝেন। যে কারণে তাদের কোন ভুল ধরিয়ে দিলে বা শুধরে দিলে তারা রাগান্বিত হওয়ার বদলে সেটাকে শান্তভাবে গ্রহণ করেন ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

সবাইকে সন্তুষ্ট করার চেষ্টা করেন না

নিজের সাধ্যমতো সবাইকে সাহায্য করা এবং সবাইকে সন্তুষ্ট করার মাঝে বড় ধরণের তফাৎ আছে। যা খুব ভালোভাবেই জানেন আত্মবিশ্বাসীরা। নিজ অবস্থান থেকে সাহায্য করার চেষ্টা করলেও, কখনোই নিজের ক্ষতি করে বা নিজের আত্মসম্মান বিসর্জন দিয়ে কাউকে সন্তুষ্ট করার চেষ্টা করবেন না তারা।

কথা বলার চাইতে শোনেন বেশি

বেশিরভাগ মানুষের ধারণা আত্মবিশ্বাসীরা সবসময় বেশি কথা বলেন। অথচ বাস্তবতা একেবারেই উল্টো। তারা অন্যের কথা গুরুত্ব দেন ও শোনেন বেশি এবং নিজে কথা বলেন খুব বুঝেশুনে। এছাড়া কথা বলে নিজেকে জাহির করা ও নিজেকে প্রমাণ করার প্রচেষ্টাও তারা কখনো করেন না।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সময় কম কাটান

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Oct/24/1540363152270.jpeg

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটি সবার সঙ্গে যোগাযোগ রাখার জন্য ও কিছুটা অবসর সময় কাটানোর জন্য। আত্মবিশ্বাসী মানুষেরা যে বিষয়টি খুব ভালো মতোই জানেন ও মানেন। তারা যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করেন কোন একটি উদ্দেশ্য নিয়ে এবং সুনির্দিষ্ট সময়ে।

অন্যকে নিয়ে ব্যঙ্গ করেন না

কথায় কথায় অন্যকে খোঁটা দেওয়া, অন্যকে নিয়ে মজা করা ও ব্যঙ্গ করার মতো নেতিবাচক চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য কখনোই আত্মবিশ্বাসীদের মাঝে দেখা যাবে না। তারা সবসময় অন্যকে অনুপ্রাণিত করতে, সমর্থন দিতে ও অন্যকে ইতিবাচক কথা বলতে চেষ্টা করেন।

জথুবথু হয়ে বসেন না

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Oct/24/1540363180869.jpeg

জথুবথু হয়ে কিংবা ঝুঁকে বসা, এমনকি শুধু বসার ভঙ্গী নয়, দাঁড়ানোর ভঙ্গীর মাঝে জড়তা ও জথুবথু ভাব আত্মবিশ্বাসহীনতার পরিচয় বহন করে। একজন আত্মবিশ্বাসী মানুষ যেকোন স্থানে ও সময়ে স্ট্রং বডি জেসচার (ভঙ্গী) নিয়ে থাকেন।

সবজান্তা ভাব থাকে না

অন্যের কথা, আইডিয়া ও দর্শন শোনা ও বোঝার মাধ্যমে আত্মবিশ্বাসীরা নিজেদের ম্যাচিউরিটি ও সেলফ-কন্ট্রোল প্রকাশ করে থাকেন। নিজের মতবাদ সবার উপরে চাপানোর চেষ্টা করা থেকে যথাসম্ভব বিরত থাকেন এবং তারা জানেন প্রত্যেককের নিজের মতো করে ভাবা ও চিন্তা করার স্বাধীনতা আছে।

অন্যের সফলতা নিয়ে মাথা ঘামান না

আশেপাশের বা পরিচিত কারোর সফলতা ও অর্জন নিয়ে কখনোই নিজের মাঝে হীনমন্যতা বোধ করে না আত্মবিশ্বাসী মানুষেরা। তারা জানেন, অন্যের সফলতার জন্য তার নিজের সফলতা কখনোই বিচার করা হবে না এবং নিজের অর্জন কখনোই পেছনে পড়ে থাকবে না। বরং তারা নিজেকে আরও বড় সফলতার জন্য প্রস্তুত করার প্রস্তুতি নেন।

অতীত নিয়ে পড়ে থাকেন না

সবারই জীবনেই অতীত থাকে। থাকে বন্ধুর পথের স্মৃতি। অতীতের দিনগুলো থেকে শিক্ষা ও অনুপ্রেরণা নিয়ে আত্মবিশ্বাসী মানুষেরা সামনের দিকে এগিয়ে যান। কিন্তু কখনোই অতীতকে আঁকড়ে ধরে একই জায়গায় পড়ে থাকেন না।

আপনার মতামত লিখুন :