শিশুকে হত্যার অভিযোগে বাবা-মামা আটক

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, নড়াইল
নড়াইলে রমজান নামে এক শিশুকে হত্যা, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

নড়াইলে রমজান নামে এক শিশুকে হত্যা, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

নড়াইলের লোহাগড়া পৌর এলাকার সিঙ্গা গ্রামে রমজান (৬) নামে এক শিশুকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।

বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) সদর হাসপাতালে নিহতের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। গত বুধবার বিকেলে গ্রামের একটি বাগানের পাশে নালায় তার লাশ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে শিশুটির পিতা ইলিয়াস শেখ ওরফে ইলু শেখ ও মামা ইউছুফ শেখকে আটক করেছে পুলিশ।

জানা গেছে, লোহাগড়া পৌর এলাকার রমজান সিঙ্গা-মশাঘুনি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিশু শ্রেণির ছাত্র। বুধবার সকালে স্কুলে গিয়ে দীর্ঘ সময় অতিবাহিত হলেও রমজান বাড়িতে ফিরে না আসায় খোঁজাখুঁজি করা হয়। এরপর বিকালের দিকে বাড়ির পার্শ্ববর্তী বাগানে সাদা শার্ট ও প্যান্ট পরা অবস্থায় রমজানের মরদেহ পাওয়া যায়।

পরে স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে পুলিশ সন্ধ্যার দিকে ঘটনাস্থলে পৌঁছে মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। শিশুটির মা মারিয়ার সঙ্গে ইলু শেখের অবৈধ সম্পর্কের জেরে রমজানের জন্ম হয়। মারিয়া অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে সামাজিক চাপে বিয়ে করেন ইলু শেখ। কিছুদিন পরে মারিয়াকে তালাক দেন ইলু শেখ। রমজানের ভরণ-পোষণের দাবি করে মারিয়ার পরিবার মামলা করে আদালতে। এতে প্রতিমাসে টাকা দিতে হতো ইলু শেখকে। কয়েকমাস টাকা বাকি থাকায় গ্রেফতারি পরোয়ানায় কারাগারে যেতে হয় ইলু শেখকে।

নিহিত রমজানের খালা ঝরণা বেগম অভিযোগ করে বলেন, রমজানকে তার বাবা ও সৎ মা হত্যা করে ফেলে রেখে গেছে।

লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোকাররম হোসেন বলেন, উভয় পরিবার সন্দেহের তালিকায় আছে। সৎ মা তহমিনা ঘটনার পর থেকেই পলাতক রয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে শিশুটির পিতা ইলিয়াস শেখ ওরফে ইলু শেখ ও মামা ইউছুফ শেখকে আটক করা হয়েছে। লাশের ময়নাতদন্ত বৃহস্পতিবার সদর হাসাপাতালে সম্পন্ন হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

আপনার মতামত লিখুন :