জনযুদ্ধ ও সর্বহারা পরিচয়ে কলেজ শিক্ষকদের কাছে চাঁদা দাবি

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, নড়াইল
নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজ, ছবি: সংগৃহীত

নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজ, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজ এবং নড়াইল সরকারি মহিলা কলেজের ২৩ শিক্ষকের কাছে বিপ্লবী কমিউনিস্ট পার্টি এমএল জনযুদ্ধ ও সর্বহারা পরিচয়ে প্রায় ৪০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। চাঁদা না দিলে পরিবারের সদস্যসহ শিক্ষকদের হত্যারও হুমকিও দেয়া হয়েছে।

রোববার (২০ অক্টোবর) ও গতকাল শনিবার বিভিন্ন সময়ে জনযুদ্ধের আঞ্চলিক কমান্ডার ‘হাতকাটা বিপ্লব’ পরিচয়ে শিক্ষকদের মোবাইল ফোনে এ হুমকি দেয়া হয়। এ ঘটনায় শিক্ষকদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

জানা গেছে, নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজের শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ও দর্শন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান এম আব্দুর রহিমসহ এ বিভাগের অপর শিক্ষক আবুল হাসনাত খান, অর্থনীতি বিভাগের এহসানুল হক, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের তরফদার সাজ্জাদ হোসেন টিপু ও প্রসেনজিৎ দাস, উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগের শিমুল কুমার ভক্ত, রসায়ন বিভাগের হাসানুজ্জামান ছাড়াও কলেজের ২০ শিক্ষকের কাছে জনযুদ্ধ ও সর্বহারা পরিচয়ে দুই লাখ টাকা করে ৪০ লাখ চাঁদা দাবি করা হয়েছে।

অন্যদিকে, গত ১৯ অক্টোবর সন্ধ্যায় নড়াইল সরকারি মহিলা কলেজের অন্তত তিন শিক্ষকের কাছে একইভাবে জনযুদ্ধ পরিচয়ে চাঁদা দাবি করা হয়।

ভিক্টোরিয়া কলেজের প্রভাষক তরফদার সাজ্জাদ হোসেন টিপু জানান, রোববার কলেজে অবস্থানকালে বেলা ১১টা ২৯ মিনিটে ০১৯৪৭-৯০৮৯৯৮ নম্বর থেকে তার ব্যক্তিগত মোবাইল ফোনে কল করে টাকা দাবি করা হয়। পরে প্রতিবাদ করলে তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করা হয়।

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-কে বলেন, ‘শিক্ষকদের কাছ থেকে বিষয়টি জানতে পেরেছি। তদন্ত করে জড়িতদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

আপনার মতামত লিখুন :