আমন ধান পানির নিচে, সরিষা-মসুরেরও ব্যাপক ক্ষতি

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, নড়াইল
ধান গাছ নুয়ে পড়ে পানিতে তলিয়ে গেছে। ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

ধান গাছ নুয়ে পড়ে পানিতে তলিয়ে গেছে। ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

গত দুইদিনে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে নড়াইল জেলায় রোপা আমন ধানের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। অধিকাংশ জমির পাকা আমন ধান গাছ নুয়ে পড়ে পানিতে তলিয়ে গেছে। এছাড়া সরিষা, খেসারি, মসুরসহ বিভিন্ন ফসলেরও ক্ষতি হয়েছে।

সোমবার (১১ নভেম্বর) জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, গত দুইদিনে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে ঝড়-বৃষ্টিতে নড়াইল জেলায় ৩ হাজার ৮৪৫ হেক্টর জমির বিভিন্ন ফসলের ক্ষতি হয়েছে। এর মধ্যে ১ হাজার ৭১০ হেক্টর জমির রোপা আমন, রবি মৌসুমের সরিষা ১৮০ হেক্টর, খেসারি ৭৫০ হেক্টর, মসুর ১শ হেক্টর, মুগ কলাই ৫০ হেক্টর, মাষকলাই ২০ হেক্টর ও ১ হাজার ৩৫ হেক্টর জমির সবজি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

সদর উপজেলার সীমানন্দপুর গ্রামের ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক ইশারত শেখ বলেন, ‘আমার এক একর জমিতে রোপা আমন ধান ছিল। এর অধিকাংশ পানিতে তলিয়ে গেছে। জমিতে পানি জমে থাকায় দুইদিনেই পচন ধরেছে।’

 ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

লোহাগড়া উপজেলার শরুশুনা গ্রামের রকিবুল ইসলাম বলেন, ‘দেড় একর জমিতে রবি ফসল সরিষা ও মসুর ডাল বুনেছিলাম। বৃষ্টির পানিতে জমি তলিয়ে যাওয়ায় তা নষ্ট হয়ে গেছে। নতুন করে পুনরায় বুনতে হবে।’

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক চিন্ময় রায় বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে জানান, গত দুইদিনে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে ঝড়-বৃষ্টিতে নড়াইল জেলায় ৩ হাজার ৮৪৫ হেক্টর জমির ফসল নষ্ট হয়েছে।

তিনি আরও জানান, জেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে কর্মরত উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তারা ক্ষয়-ক্ষতির চূড়ান্ত তালিকা নির্ণয়ের জন্য কাজ করছেন। আগামী দুই-তিনদিনের মধ্যে ক্ষতির পরিমাণ নির্ণয় করা সম্ভব হবে।

আপনার মতামত লিখুন :