ঠাকুরগাঁওয়ে আ'লীগের দুই গ্রুপের দ্বন্দ্ব, সম্মেলন স্থগিত

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা টোয়েন্টিফোর.কম, ঠাকুরগাঁও
হরিপুর উপজেলা শাখা, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

হরিপুর উপজেলা শাখা, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

আগামী ২৩ নভেম্বর ঠাকুরগাঁও হরিপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন হওয়ার কথা থাকলেও দলটির দুই গ্রুপের দ্বন্দ্বের কারণে স্থগিত করা হয়েছে সম্মেলন।

মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) বিকেলে জেলা পরিষদ হলরুমে দলীয় অভ্যন্তরীণ সভায় সম্মেলন স্থগিতের বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে বলেন জানান জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ঠাকুরগাঁও-২ আসনের সাংসদ মো. দবিরুল ইসলাম।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মাহাবুবুর রহমান খোকন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ সাদেক কুরাইশী, সাংগঠনিক সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম সুজন, প্রচার সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান রিপন সহ জেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন ধরেই হরিপুর উপজেলায় আওয়ামী লীগের কমিটিতে সদস্য বাতিল ও অন্তর্ভুক্তিকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলছে। গত বুধবার (৬ নভেম্বর) হরিপুর উপজেলার বকুয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভাকে কেন্দ্র করে দলটির দুই পক্ষ লাঠি-সোটা নিয়ে ওই এলাকায় মুখোমুখি অবস্থান নেয়। বর্ধিত সভা বন্ধ করে দিয়ে প্রশাসন ওই এলাকার চাপধা বাজার ও আশপাশের এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করে পুলিশ মোতায়েন করে। এর জের ধরে একইদিন পুরো উপজেলা জুড়ে অবস্থান নেয় দু-গ্রুপের নেতাকর্মীরা।

সংঘর্ষের আশঙ্কা ও জনসাধারণের জানমালের নিরাপত্তা রক্ষার্থে অনির্দিষ্টকালের জন্য ১৪৪ ধারা জারি করা হয় বলে জানান হরিপুর উপজেলার নির্বাহী অফিসার আব্দুল করিম। ওই সময় তিনি বলেন, রাজনৈতিক সকল ধরনের সভা সমাবেশ নিষিদ্ধ থাকবে এই সময়ে। উপজেলায় কোনো দলীয় কার্যালয়ে পাঁচজনের অধিক লোক সমবেত হতে পারবে না। জারি করা ১৪৪ ধারা এখনও পর্যন্ত অব্যাহত রয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :