ঠাকুরগাঁওয়ে হানাদার মুক্ত দিবস উপলক্ষে মুক্তি শোভাযাত্রা



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঠাকুরগাঁও
শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণ করেন মুক্তিযোদ্ধারা, ছবি: সংগৃহীত

শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণ করেন মুক্তিযোদ্ধারা, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

১৯৭১ সালের ৩ ডিসেম্বর ঠাকুরগাঁও পাক হানাদার বাহিনী মুক্ত দিবস। এই দিনটিকে ঘিরে বিভিন্ন সংগঠন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। দিনের শুরুতেই মুক্তিযোদ্ধারা একটি শোভাযাত্রা বের করে।  

মঙ্গলবার (৩ ডিসেম্বর) সকালে উদীচী শিল্পী গোষ্ঠী ঠাকুরগাঁও জেলা শাখার আয়োজনে শহরের শহীদ স্মৃতিস্তম্ভ সাধারণ পাঠাগার চত্বরে দিবসটির উদ্বোধন করেন মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ও সাবেক পৌর মেয়র আকবর আলী ও শহীদ বুদ্ধিজীবী অধ্যাপক গোলাম মোস্তফার পত্নী শহীদজায়া আনোয়ারা মোস্তফা।

এ সময় অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন জেলা উদীচীর সভাপতি সেতেরা বেগম, জেলা প্রশাসক ডা.কেএম কামরুজ্জামান সেলিম, পুলিশ সুপার মনিরুজ্জামান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ঠাকুরগাঁও-২ আসনের সংসদ সদস্য দবিরুল ইসলাম,সাধারণ সম্পাদক মুহা. সাদেক কুরাইশী,জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বদরুদ্দোজা বদর প্রমুখ।

বক্তব্য শেষে পাঠাগার চত্বর থেকে মুক্তি শোভাযাত্রা বের হয়। শোভাযাত্রাটি শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে গিয়ে শেষ হয়। শোভাযাত্রায় জেলার বিভিন্ন স্কুল-কলেজের ছাত্রছাত্রী, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড ও জেলার মুক্তিযোদ্ধারা অংশগ্রহণ করেন। শোভাযাত্রা অতিক্রমকালে শহীদ মোহাম্মদ আলীর কবরে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করা হয়।

উল্লেখ্য, একাত্তরের আজকের এই দিনে পাক হানাদার মুক্ত হয়েছিল ঠাকুরগাঁও জেলা। বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মরণপণ লড়াই আর মুক্তিকামী জনগণের দুর্বার প্রতিরোধে নভেম্বরের শেষ দিক থেকেই পিছু হটতে শুরু করে পাকিস্তানি সৈন্যরা। তাদের সেই চূড়ান্ত পরাজয় ঘটে আজকের এই দিনেই। জেলা শহর থেকে পল্লী অঞ্চলের বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের স্মৃতি বিজড়িত গণকবর আর বধ্যভূমি।