বগুড়ায় শ্বশুরবাড়ি বেড়াতে এসে জামাই খুন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, বগুড়া
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

বগুড়ার নন্দীগ্রামে শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে এসে প্রতিপক্ষের লাঠির আঘাতে শাহীন আলম (২৬) নামে এক যুবক খুন হয়েছেন।

সোমবার (২৩ ডিসেম্বর) রাতে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

নিহত শাহীন রাজশাহী জেলার বাগমারা থানার জোগী পাড়া গ্রামের সজিবর রহমানের ছেলে।

স্থানীয় লোকজন জানান, দীর্ঘদিন ধরে নন্দীগ্রাম উপজেলার থালতা মাঝগ্রাম ইউনিয়নের জামালপুর গ্রামের মামুনুর রশিদ ও সামছুল আলমের মধ্যে জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। বিরোধপূর্ণ জমি নিয়ে গত বৃহস্পতিবার (১৯ ডিসেম্বর) বিকেলে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এ সময় মামুনের বাড়িতে বেড়াতে আসা জামাই শাহীন আলমসহ পাঁচজন প্রতিপক্ষের লাঠির আঘাতে গুরুতর আহত হন। আহতদের শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জামাই শাহীন আলম গতকাল রাতে মারা যান।

এ ঘটনায় মামুনুর রশিদ বাদী হয়ে ১২ জনের নামে মামলা করেছেন। ঘটনার পর থেকে আসামিরা পলাতক। এই সুযোগে গতকাল রাতে আসামি সামছুল হকের বাড়িতে চুরি হয়েছে। চোরেরা ঘরের তালা ভেঙে স্বর্ণের গহনাসহ মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে গেছে।

বিষয়টি জানাতে চাইলে থালতা মাঝগ্রাম ইউনিয়েনের চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন বার্তা২৪.কমকে বলেন, চুরির ঘটনা লোকমুখে শুনেছি।

নন্দীগ্রাম থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শওকত কবীর বলেন, এ ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্য আসামিদের ধরতে অভিযান চলছে।

আপনার মতামত লিখুন :