সেই প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা জেল-হাজতে



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, দিনাজপুর
আটক প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা/ছবি: বার্তা২৪.কম

আটক প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা/ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

পৌনে ২ কোটি টাকাসহ দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলার ত্রাণ ও পুনর্বাসন অধিদফতরের প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা তাজুল ইসলামকে জেল হাজতে পাঠানো করা হয়েছে।

শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) আদালতের মাধ্যমে তাকে জেল হাজতে পাঠানো হয়।

এর আগে বৃহস্পতিবার (৯ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় দুদকের হটলাইন সেবা ১০৬ এ আসা অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ঘুষ ও দুর্নীতির মাধ্যমে অবৈধ অর্থ অর্জনের অভিযোগে তাকে আটক করা হয়।

অবৈধ পথ অবলম্বন করে ঘুষের মাধ্যমে অর্জিত ১ কোটি ৭০ লাখ টাকা এই প্রকল্প কর্মকর্তার অফিস ও বাসায় রক্ষিত আছে বলে তথ্য দেওয়া হয়। সেই মোতাবেক তার কার্যালয়ে অভিযান চালায় দুদক।

আরও পড়ুন: প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার বাসায় কোটি টাকা, উদ্ধারে অভিযান

অভিযানের নেতৃত্ব দেন সহকারী পরিচালক আবু হেনা আশিকুর রহমান। তিনি বার্তা২৪.কমকে বলেন, মোবাইল ফোনে আমাদের কাছে আসা তথ্যের ভিত্তিতে তার কার্যালয়ে অভিযান চালানো হয়। এসময় তার অফিসে বিপুল পরিমাণ টাকা বিভিন্ন স্তূপে ভাগ করে গণনার কাজ করছিলেন তিনি। তার অফিস কক্ষের আলমিরাসহ টেবিলের ড্রয়ারে তল্লাশি করে এককোটি ৮৫ লাখ ২৫ হাজার টাকা পওয়া যায়।

দুদকের জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতার পিআইও তাজুল ইসলাম বিভিন্ন প্রকল্প থেকে ঘুষ বা কমিশন হিসেবে এসব টাকা পেয়েছেন বলে স্বীকার করেছেন। তবে কোন ব্যক্তি বিশেষের কাছ থেকে এসব টাকা পেয়েছেন জানতে চাইলে এ ব্যাপারে মুখ খুলতে অপারগতা প্রকাশ করেন তিনি।

দুদক জানিয়েছেন ঘুষ প্রদানকারী ব্যক্তিসহ অন্যান্য দুর্নীতিগ্রস্ত প্রকল্পসমূহকেও চিহ্নিত করার কাজ করছে দুদক।

তাজুল ইসলামকে অন্তবর্তীকালীন সময়ে দিনাজপুর জেলা পুলিশের বিশেষ হেফাজতে রেখে আজ আদালতের মাধ্যমে জেল-হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: পৌনে ২ কোটি টাকাসহ প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আটক