এক্সপ্রেসওয়ের উদ্বোধন, মাদারীপুরে আনন্দের বন্যা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, মাদারীপুর
দেশের প্রথম অ্যাক্সেস কন্ট্রোল্ড ননস্টপ এক্সপ্রেসওয়ে/ছবি: বার্তা২৪.কম

দেশের প্রথম অ্যাক্সেস কন্ট্রোল্ড ননস্টপ এক্সপ্রেসওয়ে/ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

ঢাকা থেকে ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলা পর্যন্ত ননস্টপ এক্সপ্রেসওয়ে উদ্বোধনের মধ্যে দিয়ে আরেকটি স্বপ্নের বাস্তবরূপ পেলো মাদারীপুরসহ দক্ষিণাঞ্চলবাসীর। এ এক্সপ্রেসওয়ের মধ্যে দিয়ে যোগাযোগ ব্যবস্থার নতুন দিগন্তে প্রবেশ করলো দক্ষিণবঙ্গের ২১ জেলার মানুষ।

বৃহস্পতিবার (১২ মার্চ) সকালে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই এক্সপ্রেসওয়েটির উদ্বোধন করেছেন। পদ্মাসেতুর সাথে সাথে বহুল প্রত্যাশিত সড়কপথ ঢাকা-মাওয়া-পাচ্চর(শিবচর)-ভাঙ্গা এক্সপ্রেসওয়ের উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে দক্ষিণাঞ্চলের মানুষেরা আরও একটি সুবিধা ভোগ করতে যাচ্ছে।

শিবচরের পাচ্চর থেকে ভাঙ্গা পর্যন্ত পথের দূরত্ব ২০ কিলোমিটার

উদ্বোধন উপলক্ষে মাদারীপুর জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধন অনুষ্ঠান প্রদর্শিত হয়। এ সময় প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তা, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন। উদ্বোধনের খবর পেয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন মাদারীপুরবাসী।

জানা গেছে, ফরিদপুরের ভাঙ্গা থেকে ঢাকার যাত্রাবাড়ী পর্যন্ত সড়ক পথের দূরত্ব ৫৫ কিলোমিটার। এর মধ্যে শিবচরের পাচ্চর থেকে ভাঙ্গা পর্যন্ত পথের দূরত্ব ২০ কিলোমিটার। এজন্যই মাদারীপুর বাসিন্দারা আনন্দ উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন।

ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধন অনুষ্ঠান প্রদর্শিত হয়

শিবচর উপজেলার মাদবরেরচর এলাকার আসিফ হোসেন বাবু জানান, আজ থেকে সড়কটি আমরা ব্যবহার করার সুযোগ পাচ্ছি। মুজিব বর্ষে দক্ষিণবঙ্গের মানুষের সেরা উপহার এটি বলে আমি মনে করি। 

মাদারীপুর জেলা পরিষদের সদস্য আয়েশা সিদ্দিকা মুন্নী বলেন, ঢাকা থেকে আমাদের সড়ক পথে আসতে যে ভোগান্তি ছিলো তা আজ নিরসন হলো। তবে আমাদের পদ্মাসেতুটি হলে মাদারীপুরবাসীর ঢাকা যেতে কোনো সমস্যা হবে না।

আপনার মতামত লিখুন :