বিচার চেয়ে হাসপাতাল ছাড়লেন সাংবাদিক আরিফুল

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, কুড়িগ্রাম
বাংলা ট্রিবিউনের কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি আরিফুল

বাংলা ট্রিবিউনের কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি আরিফুল

  • Font increase
  • Font Decrease

কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসনের অনিয়মের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে নিজের ওপর নির্মম নির্যাতনের বিচার চেয়ে হাসপাতাল ছাড়লেন সাংবাদিক আরিফুল ইসলাম।

এক সপ্তাহ চিকিৎসার পর শনিবার (২১ মার্চ) বিকেলে কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসক তাকে ছাড়পত্র দিলে তিনি বাসায় চলে আসেন।

গত ১৩ মার্চ মধ্যরাতে বাসার দরজা ভেঙে বাংলা ট্রিবিউনের কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি আরিফুলকে ধরে নিয়ে আসে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। পরে কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসক মোছা. সুলতানা পারভীনের নির্দেশে তাকে এনকাউন্টার দেয়ার চেষ্টা চালায় আরডিসি নিজাম উদ্দিন। একপর্যায়ে এনকাউন্টার না নিয়ে আবারও জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে তাকে নিয়ে এসে বিবস্ত্র করে নির্যাতন চালানো হয়। নির্মম নির্যাতনের পর ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে মাদকের মামলায় ১ বছরের জেল ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করে তাকে জেলে পাঠানো হয়।

এ ঘটনায় সংবাদ মাধ্যম ও সোশ্যাল মিডিয়ায় তোলপাড় শুরু হলে গত ১৫ মার্চ চাপের মুখে জেলা প্রশাসন থেকে জামিন পান আরিফুল। জামিন পেয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন আরিফুল।

এ ঘটনায় কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসক মোছা. সুলতানা পারভীনসহ ৩ ম্যাজিস্ট্রেটকে প্রত্যাহার করে নেয় জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।
হাসপাতাল ছাড়ার সময় নিজের উপর নির্যাতনের বিচার দাবি করেন সাংবাদিক আরিফুল ইসলাম। এসময় তিনি তার সতীর্থ সাংবাদিকসহ দেশবাসী ও সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

 

 

আপনার মতামত লিখুন :