নিত্যপণ্য বেচাকেনা হচ্ছে বেড়ার ফাঁক দিয়ে

জাহিদ হাসান, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, মাদারীপুর
নিত্যপণ্য বেচাকেনা হচ্ছে বেড়ার ফাঁক দিয়ে/ছবি: বার্তা২৪.কম

নিত্যপণ্য বেচাকেনা হচ্ছে বেড়ার ফাঁক দিয়ে/ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনাভাইরাস সংক্রমণ এড়াতে মাদারীপুরের সঙ্গে দক্ষিণাঞ্চলের জেলা বরিশালের যোগাযোগ প্রায় বিচ্ছিন্ন। শুধু খোলা আছে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়ক।

সোমবার (২৩ মার্চ) দুপুর থেকে কালকিনি উপজেলার কয়েকটি রুটের সংযোগস্থলে বাঁশ-কাঠ দিয়ে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে, যাতে মাদারীপুরের কেউ বরিশাল ঢুকতে না পারে এবং বরিশালের কেউ মাদারীপুর ঢুকতে না পারে।

সরজমিনে দেখা যায়, মাদারীপুর জেলার কালকিনি উপজেলার সঙ্গে বরিশাল জেলার গৌরনদী উপজেলার সীমান্তবর্তী নতুন টরকি থেকে রমজানপুর রাস্তার বড় ব্রিজ, গৌরনদীর লঞ্চ ঘাট থেকে চড় পালড়দী খেয়া ঘাট, ঘোষেরহাট বাজার থেকে খাজুড়তলা হাট ব্রিজ, আগৈলঝাড়া-মাদারীপুর রাস্তার খাঞ্জাপুর বড় ব্রিজসহ ছোট-বড় ব্রিজ, কালভার্ট, পায়ে হাটা পথ, নদী পথসহ এমনকি সাঁকোর সকল যাতায়াতের পথ বন্ধ করে দিয়েছে বরিশাল প্রশাসন। এতে করে দুই জেলার সীমান্তবর্তী হাট-বাজারগুলোতে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য বেচাকেনা করতে হচ্ছে বেড়ার মধ্য দিয়ে।

সীমান্ত সড়কগুলো এভাবেই বন্ধ করা হয়েছে/ছবি: বার্তা২৪.কম 

গৌরনদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইসরাত জাহান বলেন, করোনাভাইরাস সংক্রমণ এড়াতে মাদারীপুরের সঙ্গে গৌরনদীর সকল সংযোগ সড়ক সাময়িক বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে তবে ঢাকা বরিশাল মহাসড়ক খোলা আছে।

কালকিনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা.আমিনুল ইসলাম বলেন, ইতিমধ্যে আমরা যে সমস্ত দোকানে জনগণের ভিড় হয় ঐ সমস্ত দোকানপাট বন্ধ রাখতে নির্দেশনা দিয়েছি এবং আমরা মাঠে তদারকি করছি।

আপনার মতামত লিখুন :