সেপটিক ট্যাংক বিস্ফোরণে শিশু নিহত, মা-বাবা-ভাই-বোন আহত



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা ২৪.কম, নারায়ণগঞ্জ
দেয়াল ধসে শিশুটির মৃত্যু হয়, ছবি: বার্তা২৪.কম

দেয়াল ধসে শিশুটির মৃত্যু হয়, ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

নারায়ণগঞ্জে সেপটিক ট্যাংক বিস্ফোরিত হয়ে দেয়াল ধসে পড়ায় আহম্মেদ নামে আট মাস বয়সী একটি শিশুর মৃত্যু হয়েছে। এতে গুরুতর আহত হয়েছেন শিশুটির মা-বাবা ও ভাই-বোন।

শুক্রবার (২৭ মার্চ) ভোরে শহরের বাবুরাইল বটতলা এলাকায় তোফাজ্জল হোসেনের বাড়িতে এ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন তোফাজ্জল হোসেন (৫০), তার স্ত্রী ফেরদৌসী বেগম (৩০), মেয়ে হালিমা বেগম (১১) ও ছেলে মোহাম্মদ হোসেন (৯)।

তোফাজ্জল হোসেনের খালাতো ভাই রাকিব উদ্দিন জানান, ভোর ৫টার দিকে বিকট শব্দে বাড়ির সেপটিক ট্যাংক বিস্ফোরিত হলে দেয়াল ধসে পড়ে। এতে দেয়াল চাপা পড়ে তোফাজ্জল, তার স্ত্রী ও তিন ছেলে মেয়ে গুরুতর আহত হন। এ অবস্থায় স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ সদর জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখান থেকে চিকিৎসকের পরামর্শে তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার শিশুপুত্র আহম্মেদ মারা যায়। বাকিদের মধ্যে তোফাজ্জলের স্ত্রী ও দুই ছেলে-মেয়েকে আইসিউতে রাখা হয়েছে।

 দেয়াল ধসে শিশুটির মৃত্যু হয়, ছবি: বার্তা২৪.কম

নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোস্তাফিজুর রহমান জানান, বিস্ফোরণের ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। তদন্তের পর এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়া হবে। নিহত শিশুটির মরদেহ স্বজনদের অনুরোধে ময়নাতদন্ত ছাড়াই তাদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

স্থানীয়দের অভিযোগ, এ এলাকার সড়কের নিচে গ্যাস পাইপের লিকেজ থেকেই তোফাজ্জলের বাড়ির সেপটিক ট্যাংকের বিস্ফোরণ হয়েছে। একই কারণে পাশের একটি ভবনের সেপটিক ট্যাংকও বিস্ফোরিত হয়েছিল। তবে তাতে কেউ হতাহত হননি।