এক হাজার অসহায় পরিবারের পাশে আতাউর রহমান কবির

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ব্রাহ্মণবাড়িয়া
দরিদ্রদের খাদ্য দিয়েছেন আতাউর রহমান কবির, ছবি: বার্তা২৪.কম

দরিদ্রদের খাদ্য দিয়েছেন আতাউর রহমান কবির, ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে দেশের সব অফিস আদালত ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যাওয়ায় কর্মহীন হয়ে পড়েছে খেটে খাওয়া নিম্ন আয়ের লোকজন।
সারাদেশের মত ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়ও পড়েছে এর প্রভাব। ঠিক এমন সময়ে জেলার আশুগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ও ঠিকাদার মো. আতাউর রহমান কবির দাঁড়িয়েছেন এক হাজার নিম্ন আয়ের পরিবারের পাশে। দিচ্ছেন খাদ্য সহায়তা।

সোমবার (৩০ মার্চ) বিকেলে উপজেলার ফেরিঘাট এলাকায় খাদ্য সামগ্রী বিতরণ শুরু করা হয়। এ উপলক্ষে বিকেলে ফেরিঘাটে তার ব্যক্তিগত অফিসের সামনে আয়োজন করা হয় মিলাদ মাহফিলের।

এ সময় উপস্থিত থেকে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন আশুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. নাজিমুল হায়দার, আশুগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জাবেদ মহামুদ, আশুগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি মো. মোজাম্মেল হক, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি শাহীন শিকদার, আশুগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আতাউর রহমান কবির।

এসময় উপস্থিত ছিলেন চরচারতলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. আইয়ুব খান, সাধারণ সম্পাদক মো. হুমায়ুন কবির, আওয়ামী লীগ নেতা হেবজুল বারী ও ছাইদুর রহমান, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক শাহীন সিকদার, যুবলীগ নেতা মোশারফ হোসেন মুন্সী, মারুফ আহমেদ রনি, সোহাগ আহমেদ, নাসের আহমেদ, রমজান হায়দার, বাকের আহমেদ খান, উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক তানভীর আজহার ও মিনহাজুর রহমান হৃদয়সহ অনেকে।

মিলাদ মাহফিল শেষে বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা নিম্ন আয়ের লোকজনের মাঝে উপস্থিত অতিথিরা এ খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন। খাদ্য সামগ্রীর প্রতিটি প্যাকেটে পাঁচ কেজি করে চাল, দুই কেজি আলু, এক কেজি ডাল, এক কেজি পেঁয়াজ ও একটি সাবান রয়েছে।

দরিদ্রদের খাদ্য দিয়েছেন আতাউর রহমান কবির, ছবি: বার্তা২৪.কম

এদিকে উপজেলা যুবলীগ ও ছাত্রলীগের সহায়তায় এ খাদ্য সামগ্রী রাতে বিভিন্ন ইউনিয়নে গিয়ে অসহায় ও গরিব লোকজনের কাছে পৌঁছে দেওয়া হয়।

আতাউর রহমান কবির জানান, কোনো রাজনৈতিক ফায়দা অর্জন কিংবা লোক দেখানোর জন্য আমি এ খাদ্য সামগ্রী দেইনি। শুধুমাত্র মানবিক দিক বিবেচনা করেই সম্পূর্ণ নিজস্ব অর্থায়নে সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছি। এমন দুর্যোগের সময়ে আমি সমাজের সবার প্রতি নিম্ন আয়ের লোকজনের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানাই।

আপনার মতামত লিখুন :